Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮ আশ্বিন ১৪২৭, ০৫ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

মাওবাদী প্রচন্ড ফের নেপালের প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশের সময় : ৪ আগস্ট, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : নেপালের পার্লামেন্ট গতকাল (বুধবার) সাবেক মাওবাদী বিদ্রোহী নেতা পুষ্প কমল দহল প্রচন্ডকে আবারও দেশের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করেছে। ক্ষমতা গ্রহণের নয় মাসের মাথায় নেপালের প্রধানমন্ত্রী কে পি অলি আস্থাভোট মোকাবিলা না করে পদত্যাগ করার প্রেক্ষাপটে পদত্যাগের এক সপ্তাহ পর ৬১ বছর বয়সী প্রচ- নতুন প্রধানমন্ত্রী হলেন। মঙ্গলবার ৫৯৫ সদস্যের পার্লামেন্টে ৫৭৩ ভোটের মধ্যে ৩৬৩ ভোট পেয়ে প্রচ- প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন বলে জানিয়েছেন স্পিকার ওনসারি ঘারতি।
প্রচ- নেপালে রাজতন্ত্রের পতন ঘটাতে দশকব্যাপী বিদ্রোহের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। ৮ বছর আগে ২৩৯ বছর প্রাচীন হিন্দু রাজতন্ত্রের অবসানের পর থেকে অষ্টম প্রধানমন্ত্রী হলেন। ১৯৯০ সালে নেপালে বহুদলীয় গণতন্ত্র চালু হওয়ার পর থেকে ২৬ বছরের মধ্যে প্রচ- দেশটির ২৪তম প্রধানমন্ত্রী হলেন। ২০০৮-এ প্রথমবার ক্ষমতায় আসে তার দল। তখন প্রথমবার প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন তিনি। প্রচ- ক্ষমতায় আসায় নেপালে আগের চেয়ে এবারের সরকার আরও স্থিতিশীল হবে বলে আশা করা হচ্ছে।
গত কয়েক বছর ধরেই নেপালের রাজনৈতিক পরিস্থিতি অস্থির হয়ে আছে। পার্লামেন্টে অনাস্থা ভোট অনুষ্ঠিত হওয়ার কয়েক মিনিট আগে প্রধানমন্ত্রী অলির পদত্যাগে দেশটির পুরো রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে ফের অনিশ্চয়তা তৈরি হয়। গত অক্টোবরে সাবেক মাওবাদীদের সমর্থন নিয়ে প্রধানমন্ত্রী হয়ে সরকার গঠন করেছিলেন অলি। কিন্তু ক্ষমতার অংশীদারিত্ব চুক্তির প্রতি প্রধানমন্ত্রী সম্মান জানাতে ব্যর্থ হয়েছেন অভিযোগ তুলে তারা অলির পাশ থেকে সরে যায়। এরপর পার্লামেন্টে অলির বিরুদ্ধে অনাস্থা ভোটের প্রস্তাব করে মাওবাদীরা। অলি এ ভোটের মুখোমুখি না হয়ে পদত্যাগ করেন। এরপর নতুন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচন করতে গতকাল গুরুত্বপূর্ণ অধিবেশনে বসে নেপালের পার্লামেন্ট। আর কোনো প্রার্থী না থাকায় প্রচ- প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন। সূত্র : এএফপি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মাওবাদী প্রচন্ড ফের নেপালের প্রধানমন্ত্রী
আরও পড়ুন