Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

বাবরী মসজিদের জায়গায় রাম মন্দির নির্মাণের খেসারত দিতে হবে ভারতকে খেলাফত মজলিস

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৫ আগস্ট, ২০২০, ১২:৪১ পিএম

ভারতের অযোধ্যার ঐতিহাসিক বাবরী মসজিদের জায়গায় রাম মন্দির নির্মাণ কাজ শুরুর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে খেলাফত মজলিসের আমীর অধ্যক্ষ¬¬ মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক ও মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদের বলেছেন, আজ বুধবার বাবরী মসজিদের জায়গায় রাম মন্দির নির্মাণ ভারতের হিন্দুত্ববাদী বিজিপি সরকারের এক ঐতিহাসিক ভুল। একদিন এ ভুলের খেসারত দিতে হবে ভারতকে। ইতিহাস সাক্ষী পৃথিবীর বহু মসজিদে মূর্তি ঢুকানো হয়েছিলো কিন্তু তা স্থায়ী হয়নি। পবিত্র কা’বা আঙ্গিনায়ও ৩৬০টি মূর্তি স্থাপন করা হয়েছিলো কিন্তু তা অপসারিত হয়েছে।

আজ বুধবার বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় বলেন, অযোধ্যার ঐতিহাসিক বাবরী মসজিদের জায়গায় রাম মন্দির নির্মাণের রায়ে মুসলমানরা ন্যায় বিচার পায়নি। সুপ্রীম কোর্ট রায়েই বলেছে, ‘ভারতের প্রতœতাত্বিক জরিপের তথ্য অনুযায়ী এখানে কোন হিন্দু মন্দির ভেঙ্গে মসজিদ নির্মাণ করা হয়েছে তার কোন প্রমাণ নেই’। অথচ রায়ে জায়গাটিতে মন্দির নির্মাণের অনুমতি দেয়া হলো। আসলে ২০১৯ সালের ৯ নভেম্বর ভারতীয় সুপ্রীম কোর্টের ঐ রায়টি ছিলো ভারতের হিন্দুত্ববাদী বিজিপি সরকারের মনোভাব ও পরিকল্পনারই প্রতিফলন।

বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় বলেন, রাম জন্মভূমির কল্পিত দাবীকে কেন্দ্র করে ভারতের অযোধ্যায় ১৫২৯ সালে নির্মিত প্রায় পাঁচশত বছরের পুরোনো ঐতিহাসিক বাবরী মসজিদ ১৯৯২ সালে উগ্র হিন্দুরা ভেঙ্গে ফেলে। বাবরী মসজিদ ভাঙ্গার পরপর সেসময়ে ভারতে হাজার হাজার মুসলমানকেও হত্যা করা হয়। ভারতীয় সুপ্রীম কোর্ট ভেঙ্গে ফেলা বাবরী মসজিদের জায়গায় রাম মন্দির নির্মাণের অন্যায় রায় দিয়ে ভারতসহ সারা দুনিয়ার মুসলমানদের যেভাবে ব্যাথিত করেছে, আজকে বাবরী মসজিদের জায়গায় রামমন্দির নির্মাণ করে বিশ্ব মুসলিমের অন্তরে চরম আঘাত হানা হয়েছে। বাবরী মসজিদ ধ্বংস ও মসজিদের জায়গায় মন্দির নির্মাণ বিশ্ব মুসলিম কোনভাবই মেনে নেবে না। জোর করে ও অন্যায়ভাবে কোন কিছু চাপিয়ে দেয়ার পরিণাম শুভ হবে না। বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় অযোধ্যার ঐতিহাসিক বাবরী মসজিদের জায়গা রাম মন্দির নির্মাণ বন্ধ এবং ঐতিহাসিক বাবরী মসজিদ স্বস্থানে পুন:নির্মাণের জোর দাবি জানান।

 



 

Show all comments
  • আইমুল আদনান ৫ আগস্ট, ২০২০, ৬:১৪ পিএম says : 0
    আজকের এই সভ্যতা আগামীর ইতিহাস। জগত বদলে যাবে, সভ্যতা পাল্টে যাবে, রাষ্ট্রীয় ধর্ম রুপান্তরিত হবে; কিন্তু ইতিহাস থেকে যাবে। ভবিষ্যতে শুধু একটি জাতি চরম ঘৃণিত হবে অন্য একটি জাতির কাছে। ঘৃণা, উগ্রবাদিতার জয় হোক!
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: খেলাফত মজলিস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ