Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০৩ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

আর্থিক কারণে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন কমলা হ্যারিস

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৫ আগস্ট, ২০২০, ৬:৫৪ পিএম

আর্থিক কারণে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন ক্যালিফোর্নিয়ার ডেমোক্রেট সিনেটর কমলা হ্যারিস। ভারতীয় বংশোদ্ভূত এই জামাইকান তরুণী প্রচারের শুরুতেই সাড়া ফেলে দেন মার্কিন রাজনৈতিক অঙ্গনে, ‘নারী বারাক ওবামা’ বলে পর্যন্ত অভিহিত করতে শুরু করেছিলেন অনেকে। -স্পুটনিক

কিন্তু বুধবার সকালে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিলেন কমলা। টুইটারে একটি ভিডিও পোস্ট করে হ্যারিস জানিয়েছেন, প্রচারের জন্য পর্যাপ্ত অর্থের অভাবেই তিনি এই সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছেন। তিনি জানান, আমি কোটিপতি নই। ভোটের প্রচারে প্রচুর অর্থ খরচের সামর্থ্যও আমার নেই। সে কারণেই প্রচার বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তবে লড়াইয়ের ময়দান ছেড়ে দেব না। সত্য ও ন্যায়ের পক্ষে আমার লড়াই চলবে। কমলার টুইটের পর টুইট করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বলেন, এটা খুবই দুর্ভাগ্যজনক। আমরা তোমার অভাব বোধ করব। ওমনি পাল্টা টুইট করে কমলা লেখেন, আপনি উদ্বিগ্ন হবেন না প্রেসিডেন্ট। আপনার বিচারে আমি থাকব!

কমলাই ছিলেন একমাত্র কৃষ্ণাঙ্গ প্রার্থী। মার্কিন প্রেসিডেন্ট পদের জন্য লড়াইয়ে নামা প্রথম আফ্রিকান-আমেরিকান নারী। নির্বাচিত হলে তিনিই হতেন বারাক ওবামার পর এই পদে দ্বিতীয় আফ্রিকান-আমেরিকান, আর একই সঙ্গে প্রথম এশীয় ও আফ্রিকান-আমেরিকান মহিলা। জ্যামাইকা ও ভারতীয় অভিবাসী দম্পতির মেয়ে, আমেরিকার নাগরিক কমলা হ্যারিস, ২০১৬ সালে ক্যালিফোর্নিয়া থেকে সেনেটর হিসেবে নির্বাচিত হন।

এর আগে তিনি ছিলেন ওই রাজ্যের অ্যাটর্নি জেনারেল। ৫৪ বছরের কমলা হ্যারিস বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের একজন কড়া সমালোচক। ডেমোক্রেটিক পার্টি থেকে ২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনী দৌড়ে মনোনয়নের লড়াইয়ে যোগ দেওয়া পঞ্চম ডেমোক্রেট তিনি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুক্তরাষ্ট্র

১৬ জানুয়ারি, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন