Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১১ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

চাঁদপুরে বাণিজ্যকেন্দ্রে জোয়ারের পানিতে অর্ধকোটি টাকার খাদ্যপণ্য বিনষ্ট

স্টাফ রিপোর্টার, চাঁদপুর থেকে | প্রকাশের সময় : ৭ আগস্ট, ২০২০, ৩:৪৫ পিএম

মেঘনার পানি আকস্মিকভাবে ব্যাপক বৃদ্ধি পাওয়ায় চাঁদপুর শহরের বাণিজ্য কেন্দ্র পুরাণ বাজারে শতাধিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের বিপুল পরিমাণ খাদ্যপণ্য ভিজে নষ্ট হয়েছে। ক্ষয়-ক্ষতির পরিমাণ প্রায় অর্ধকোটি টাকা হবে বলে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন।

গত বুধবার(৫ আগস্ট) বিকেলে জোয়ারের সময় নদীর পাড়ের প্রতিটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে বানের পানি ঢুকে তলিয়ে যায়। এতে চাল, ডাল, আটা, ময়দা, পেঁয়াজ, রসুন, হলুদ, মরিচ ও আলুসহ অনেক পণ্যই ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয় চাউল পট্টির মেসার্স লক্ষী ভান্ডারের। এই প্রতিষ্ঠানেরর পরিচালক লিটন বণিক ও নতুন বণিক জানান, বিগত ১৫ বছরে এমন পানি দেখেন নাই। বিকেল সাড়ে ৪ টার সময় হঠাৎ মেঘনার পানি ফুলে-ফেঁপে বাজারের রাস্তা ডুবে ঘর গদি নিমজ্জিত হয়। তখন নিরুপায় হয়ে দাঁড়িয়ে থাকা ছাড়া উপায় ছিল না। তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে প্রায় সহস্রাধিক বস্তা বিভিন্ন প্রকার চাউল ছিল। ওই মুহূর্তে শ্রমিকরা চালের বস্তা সরিয়ে নিতে সময় পর্যন্ত পাইনি। প্রায় পৌনে ৭ লক্ষ টাকা মূল্যের আড়াইশ' বস্তা চিনিগুড়া, বাসমতি, নাজির ও মিনিকেট চাল ভিজে নষ্ট হয়েছে।

পাশবর্তী রায় ট্রেডার্সে বৃহস্পতিবার অবশিষ্ট চালের বস্তাগুলো সরিয়ে সেখানে রাখা হয়েছে বলে তারা জানান। এছাড়া মেসার্স কাউছার ট্রেডার্স, রাজলক্ষ্মী ভান্ডার, মেসার্স মদিনা ট্রেডার্স, খাদ্যভান্ডার, ভূঁইয়ার ঘাটের রফিকসহ আরো অনেকের খাদ্যপণ্য ডিজে নষ্ট হয়।

চাঁদপুর চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সহ-সভাপতি তমাল কুমার ঘোষ বলেন, হঠাৎ ব্যাপক পানি বাড়াতে নদীর পাড়ের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোতে এবং বাজার এলাকার অনেক জায়গায় বন্যার পানি ঢুকে পড়ে। তখন ব্যবসায়ীরা অপ্রস্তুত হয়ে পড়ে এবং অনেকের মালামাল ভিজে ক্ষতিগ্রস্ত হয় ।

চেম্বার সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম সেলিম ব্যবসায়ীদের মালামাল রক্ষায় যার যার প্রতিষ্ঠানে ইট সিমেন্ট দিয়ে সেফটি ব্যারিকেড দেওয়ার জন্য বলেন। কিন্তু গদি ঘরগুলোতে ইঁদুর গর্ত করায় পাকা ঘর চুইয়ে পানি ঢুকে। ক্ষয়ক্ষতির বিষয়টি চেম্বারের পক্ষ থেকে নিরূপণ করা হচ্ছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ