Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫ আশ্বিন ১৪২৭, ০২ সফর ১৪৪২ হিজরী

বাঁধনের এজিএম অনুষ্ঠিত

২০১৯ সালে প্রায় ৭৫ হাজার ব্যাগ রক্ত সরবরাহ

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৭ আগস্ট, ২০২০, ৬:৫৬ পিএম

স্বেচ্ছায় রক্তদাতাদের সংগঠন বাঁধন ২০১৯ সালে ৭৪ হাজার ৮৪৬ ব্যাগ রক্ত সংগ্রহ করেছে। ২০১৮ সালে ছিলো ৬৮ হাজার ১২১ ব্যাগ। এসব রক্ত বিনামূল্যে রোগীদের সরবরাহ করেছে সংগঠনটি। পাশাপাশি প্রায় ১ লাখ ৯৯ হাজার ৯৭৪ জন মানুষকে রক্তের গ্রুপ জানিয়েছে। রক্তের পাশাপাশি কভিড মহামারি পরিস্থিতিতে বাঁধন দেশের প্রায় ৩৬ টি জেলায় ত্রান সহায়তা পৌঁছে দিয়েছে। এছাড়া দেশের প্রথম সেচ্ছাসেবি সংগঠন হিসেবে প্লাজমা সংগ্রহে নেতৃত্ব দিচ্ছে বাঁধন। ২০২০-২১ সালের জন্য এক বছর মেয়াদী ৩৪ সদস্য বিশিষ্ট কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষনা করা হয়।

শুক্রবার (৭ আগষ্ট) ভার্চুয়াল জুম মিটিং এ বাঁধনের বার্ষিক সাধারণ সভা ও দায়িত্ব হস্তান্তর-২০২০ অনুষ্ঠানে এসব তথ্য জানানো হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. কামাল উদ্দিন আহাম্মদ। এছাড়া বিশেষ অতিথি বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি প্রফেসর ড. মো. জসিমউদ্দিন খান উপস্থিত ছিলেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন বাঁধনের সভাপতি সনজিত কুমার। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বাঁধন কেন্দ্রীয় পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মো. জোনাহিদ চকদার এবং আর্থিক প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন বাঁধনের কেন্দ্রীয় কোষাধাক্ষ রাজু দাস। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন বাঁধন কেন্দ্রীয় পরিষদের উপদেষ্টা ইশতিয়াক উদ্দিন আহমেদ ও বাঁধন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান রকিব আহমেদ।

সভায় জানানো হয়, বাঁধনের সৃস্টির মাধ্যমে সারা বাংলাদেশে স্বেচ্ছায় রক্তদানকে একটি সামাজিক আন্দোলনে রূপান্তর করণের লক্ষ্যে, সহানুভ‚তিশীল সমাজ গঠন এবং মানবতার অংঙ্গীকার নিয়ে ১৯৯৭ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে যাত্রা শুরু করে। সারা দেশে ৫৩ টি জেলার ৭৫ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ১৩৬ টি ইউনিট, ১২ টি জোন এবং ৭ টি পরিবার হয়ে কাজ করছে। এ পর্যন্ত এসব প্রতিষ্ঠান প্রায় ১০ লাখ ব্যাগ রক্ত সংগ্রহ করেছে। বিশ হাজারের বেশি বাঁধন কর্মী স্বেচ্ছায় রক্তদান কার্যক্রম ছাড়াও করোনা মোকাবেলায় প্লাজমা দানে মানুষকে উদ্বুদ্ধকরণে নিয়োজিত রয়েছে। কভিড-১৯ এর কারনে সংগঠনের দায়িত্ব হস্তান্তর কিছুটা বিলম্বিত হয়েছে।

অনুষ্ঠানে ৩৪ সদস্য বিশিষ্ট কেন্দ্রীয় কমিটিতে নতুন সভাপতি হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মশিউর রহমান সূর্য় এবং সাধরণ সম্পাদক হিসেবে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের জাহিদুল ইসলাম দায়িত্ব পেয়েছেন। এছাড়া কোষাধাক্ষ হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মো. রাশিদুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের মো. নাইমুল হাসান, প্রথম সহ-সভাপতি ও সহ-সাধারণ সম্পাদক হিসেবে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের যথাক্রমে রাজুয়ার হোসাইন ও উসমান মিয়া, সহ-সভাপতি হিসেবে স্মৃতি আক্তার, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অর্নব পাল, দপ্তর সম্পাদক হিসেবে সজীব কুমার, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মো. সমীর হোসেন এবং তথ্য ও শিক্ষা সম্পাদক হিসেবে দিপ্তী পোদ্দার দায়িত্ব পেয়েছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বাঁধন
আরও পড়ুন