Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫ আশ্বিন ১৪২৭, ০২ সফর ১৪৪২ হিজরী

অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন উৎপাদন করবে চীন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৭ আগস্ট, ২০২০, ৭:২৫ পিএম | আপডেট : ৭:২৭ পিএম, ৭ আগস্ট, ২০২০

এবার চীনেও উৎপাদিত হতে চলেছে অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির বিজ্ঞানীদের তৈরি করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) সম্ভাব্য ভ্যাকসিন। বৃহস্পতিবার এই তথ্য জানিয়েছে ভ্যাকসিনটির উৎপাদন ও বাণিজ্যিক কার্যক্রমের দায়িত্বে থাকা বৃটিশ ওষুধ প্রস্তুতকারী কোম্পানি এস্ট্রাজেনেকা।

এস্ট্রাজেনেকার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, চীনের মূল ভখণ্ডে ভ্যাকসিনটি উৎপাদন করবে চীনা কোম্পানি শেনঝেন কাংতাই বায়োলজিউক্যাল প্রোডাক্টস। এ বিষয়ে তাদের মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন নিয়ে কোনো চীনা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে এটাই এস্ট্রাজেনেকার প্রথম চুক্তি। চুক্তি অনুসারে, চীনের শেনঝেন কাংতাই এক বছরে অক্সফোর্ডের বিজ্ঞানীদের তৈরি টিকাটির অন্তত ১০ কোটি ডোজ উৎপাদন করবে। চলতি বছরের মধ্যেই টিকাটি উৎপাদনের জন্য যাবতীয় প্রস্তুতি গ্রহণ শেষ করবে তারা। পরীক্ষাধীন ওই টিকাটি এজেড-১২২২ নামেও পরিচিত।

চীনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম উইচ্যাটে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে এস্ট্রাজেনেকা জানায়, শেনঝেন-ভিত্তিক কোম্পানিটিকে অবশ্যই আগামী বছরের মধ্যে ২০ কোটি ডোজ উৎপাদন করার সক্ষমতা অর্জন করতে হবে। এছাড়া, বাজারে থাকা অন্যান্য সম্ভাব্য টিকা নিয়েও চীনা প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে কাজ করার সম্ভাবনার কথা জানিয়েছে এস্ট্রাজেনেকা।

জানা গেছে, বর্তমানে বিশ্বজুড়ে মানবদেহে পরীক্ষা চলছে অন্তত ২৬টি সম্ভাব্য করোনা টিকার। এর মধ্যে আটটিই তৈরি হচ্ছে চীনে। তা সত্ত্বেও অক্সফোর্ডের টিকা উৎপাদনে শীর্ষ টিকা তৈরিকারক চীনা কোম্পানির সঙ্গে চুক্তিটি করোনার টিকা তৈরিতে এস্ট্রাজেনেকার এগিয়ে থাকার বিষয়টি আরো জোরদার করলো।

প্রসঙ্গত, এখন পর্যন্ত করোনার কোনো অনুমোদিত ভ্যাকসিন নেই বাজারে। তবে অনুমোদন পাওয়ার দৌড়ে এগিয়ে রয়েছে বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের ভ্যাকসিন। এর মধ্যে অক্সফোর্ডের টিকাটির ফলাফল বেশ আশা জাগিয়েছে। টিকাটি উৎপাদন নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল, ব্রিটেন, দক্ষিণ কোরিয়ার বিভিন্ন কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি করেছে এস্ট্রাজেনেকা। সবমিলিয়ে ইতিমধ্যে ২০০ কোটি ডোজের চুক্তি স্বাক্ষর করেছে প্রতিষ্ঠানটি। সূত্র: রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন