Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

র‌্যাব স্পর্শকাতর মামলার নিরপেক্ষ তদন্ত করবে

ওসি প্রদীপসহ সাত আসামি ৭ দিনের রিমান্ডে

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৮ আগস্ট, ২০২০, ১২:০১ এএম

অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা সিনহা রাশেদ হত্যা মামলায় ওসি প্রদীপসহ সাত আসামিকে ৭ দিনের রিমান্ডে পাঠিয়েছেন আদালত। এমনটা দাবি করেছে র‌্যাব। বাকি দু’জন পলাতক থাকায় তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। মামলাটি অনেক স্পর্শকাতর এবং চাঞ্চল্যকর। আদালতের নির্দেশে র‌্যাব এই মামলার দায়িত্বভার গ্রহণ করেছে। তাই সব ধরনের প্রভাবমুক্ত থেকে নিরপেক্ষভাবে মামলাটির তদন্ত এবং আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। গতকাল দৈনিক ইনকিলাবকে এসব কথা বলেন র‌্যাবে মুখপাত্র লে.কর্নেল আশিক বিল্লাহ।

র‌্যাবের মিডিয়া ইউংয়ের পরিচালক লে.কর্ণেল আশিক বিল্লাহ দৈনিক ইনকিলাবকে বলেন, ওসি প্রদীপসহ সাত আসামিকে ৭ দিনের রিমান্ডে পাঠিয়েছেন আদালত। খুব শীঘ্রই তাদের রিমান্ডে নিয়ে র‌্যাব জিজ্ঞাসাবাদ করবে।
তিনি বলেন, আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী র‌্যাব এটা তদন্তের দায়িত্ব পেয়েছে। সেই মোতাবেক আদালত সাত আসামিকে সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে। সম্পূর্ণ প্রভাবমুক্ত হয়ে র‌্যাব এই মামলার দায়িত্বভার গ্রহণ করেছে। কোনো প্রকার প্রভাব ছাড়াই র‌্যাব নিরপেক্ষভাবে মামলাটি তদন্ত এবং এরপর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

আশিক বিল্লাহ বলেন, মোট নয়জন এজাহারভুক্ত আসামির মধ্যে সাতজন আত্মসমর্পণ করেছেন। বাকি দু’জন আসামির বিষয়ে আমরা তদন্ত করছি। তাদের বিষয়ে আমরা যাচাই-বাছাই করছি। এই মামলায় নির্ধারিত কোনো সময়সীমা নেই। তবে সাত দিনের মধ্যে টেকনাফ থানাকে এই মামলার দায়িত্বভার কক্সবাজার ব্যাটেলিয়নকে (র‌্যাব-১৫) বুঝিয়ে দিতে বলা হয়েছে।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম থেকে পুলিশি পাহারায় কক্সবাজার আদালতে যান ওসি প্রদীপ কুমার দাস। তার আগেই সেখানে পৌঁছান আরও ছয় আসামি। ওই দিন বিকেলে মেজর (অব.) সিনহা হত্যা মামলায় ওসি প্রদীপসহ ৭ আসামিকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত। পরে আবার আদালত বসে তিন জনকে ৭ দিনের রিমান্ড এবং চার জনকে জেল গেটে জিজ্ঞাসাবাদের আদেশ দেন আদালত। গত ৩১ জুলাই রাতে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভের বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর এলাকায় চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন মেজর (অব.) সিনহা রাশেদ খান। ঘটনাটি দেশ-বিদেশে আলোড়ন সৃষ্টি করে।

 

 



 

Show all comments
  • Shahin Mirzer Bazer ৮ আগস্ট, ২০২০, ৩:০৩ এএম says : 0
    খুনি প্রদীপের পেছনের শক্তি গুলো কে, খোজে বের করা হোক,,,,,,,
    Total Reply(0) Reply
  • SHAH NOWROSE ৮ আগস্ট, ২০২০, ২:৩২ এএম says : 0
    I dont think it is OC Prodip the only one in the Police dept. who is such arrogant, cruel officer, there are several other OCs and high rank official who are even worst than this guy. Most SPs have very close link with the OCS as they help these SPS maintain high life style.
    Total Reply(0) Reply
  • শহিদুল ইসলাম ৮ আগস্ট, ২০২০, ৩:৪৩ এএম says : 0
    আশা করি রেব সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত ঘটনা তুলে ধরবেন
    Total Reply(0) Reply
  • ফাহিম ৮ আগস্ট, ২০২০, ৩:৪৪ এএম says : 0
    তদন্তটি সব ধরনের প্রভাবমুক্ত থেকে নিরপেক্ষভাবে করা দরকার
    Total Reply(0) Reply
  • মিজানুর রহমান ৮ আগস্ট, ২০২০, ৩:৪৫ এএম says : 0
    কালক্ষেপণ না করে খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হোক
    Total Reply(0) Reply
  • কামরুল ইসলাম ৮ আগস্ট, ২০২০, ৩:৪৫ এএম says : 0
    এই মামলার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে রেপ তাদের অতীত ঐতিহ্য বজায় রাখতে পারবে বলে আশা করছি
    Total Reply(0) Reply
  • সাহেদ ৮ আগস্ট, ২০২০, ১১:৪৬ এএম says : 0
    দ্রুত বিচার আদালাতে বিচার করতে হবে।
    Total Reply(0) Reply
  • robiul islam ৮ আগস্ট, ২০২০, ১১:৪৫ এএম says : 0
    কোনো তদন্তের দরকার নাই। তাকে নিয়ে র‌্যাব অস্ত্র উদ্ধারে যাক।
    Total Reply(0) Reply
  • শিহাব ৮ আগস্ট, ২০২০, ১১:৪৭ এএম says : 0
    এই ওসি ও তার স্ত্রী ভারতীয় নাগরিক বলে দাবী করা হচ্চে। সঠিক হলে এখনো তার স্ত্রীকে আটক করা হচ্ছে না কেন?
    Total Reply(0) Reply
  • আলমগীর ৮ আগস্ট, ২০২০, ১১:৪৮ এএম says : 0
    কোনো হাই কমিশন যেন এখানে নাক গলাতে না পারে।
    Total Reply(1) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ