Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২ আশ্বিন ১৪২৭, ০৯ সফর ১৪৪২ হিজরী

খেলছে সবাই, মন খারাপ মুমিনুলের

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৯ আগস্ট, ২০২০, ১২:১১ এএম

ইংল্যান্ডে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট চলছে জোরে-শোরে। ঘরোয়া ক্রিকেটও ফিরছে অনেক দেশেই। সেই তুলনায় এখনও প্রাথমিক কাজটিও সারা যায়নি বাংলাদেশে। একক অনুশীলনেই সীমাবদ্ধ বিসিবির কার্যক্রম। সেটিও বেশ রাখ-ঢাক করে, বিধি নিষেধ মেনে। কয়েকজন মাঠের অনুশীলনে ফিরলেও খেলা থেকে অনেক দিন দূরে আছেন মুমিনুল হক। অনেকদিন থেকে নেই অনুশীলনেও। প্রায় পাঁচ মাস পর মাঠে ফিরে বাংলাদেশ টেস্ট অধিনায়ক জানালেন, সবই একটু নতুন নতুন লাগছে।

করোনাভাইরাসে মহামারি সামলেও ইংল্যান্ডে তিনটি দল ফিরেছে মাঠের ক্রিকেটে। বাড়িতে বসে অন্যদের খেলা দেখে আগামীর অনিশ্চয়তায় মন আরও ভারি হয়ে যায় মুমিনুলের। গতকাল মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে নির্দিষ্ট সময় অনুশীলন করেন মুমিনুল। পরে জানান অনেক দিনের বিরতিতে সবই একটু নতুন ঠেকছে তার কাছে, ‘অনেক দিন পর ক্রিকেটে ফিরতে পেরেছি। খুব ভালো লাগছে। সব একটু নতুন লাগছে। মানিয়ে নিতে হয়তো সময় লাগবে। দুই-তিন দিন বা চার-পাঁচ দিন। আশা করছি, খুব দ্রুত মানিয়ে নিতে পারব। অনেক দিন বাইরে ছিলাম। খুব মিস করছিলাম। অবশেষে ভালো খবর যে শুরু করতে পেরেছি।’

মার্চ মাসে ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগ চলাকালীন বন্ধ হয়ে যায় দেশের ক্রিকেট। এরপর থেকে পুরোটা সময় ঘরে বসেই কেটেছে মুমিনুলদের। স্বাস্থ্যবিধি মেনে এরমধ্যেই ক্রিকেট ফিরেছে ইংল্যান্ডে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ শেষ করে পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ খেলছেন জো রুটরা। নিজেদের খেলা-অনুশীলনের চাপ না থাকায় টিভি পর্দায় অন্যদের খেলা দেখার ফুরসত মিলছে মুমিনুলের। তবে অন্যদের খেলা দেখতে গিয়ে নাকি মন আরও বিষণ্ণ হয়ে উঠছে তার, ‘অবশ্যই ক্রিকেটটা অনেক মিস করেছি। বিশ্বের অনেকগুলি দল ক্রিকেটে ফিরেছে। তাদের খেলতে দেখলে অবশ্যই খারাপ লাগে, মিস করি। আমরাও ধীরে ধীরে ক্রিকেটে ফেরার চেষ্টা করছি। সামনে আমাদের টেস্ট ম্যাচ আছে। সেজন্য আমরা ভালো একটা প্রস্তুতি নেব।’

মাঝের কদিন গৃহবন্দী থাকায় অলস সময় মিলেছে ঢের। তবে এই সময়ে থমকে যাওয়া সময়টাকে চিন্তা-ভাবনার ক্ষেত্রে কাজে লাগিয়েছেন বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক, ‘যেহেতু কোনো কাজ ছিল না, ক্রিকেট নিয়ে অনেক চিন্তা-ভাবনা করার সুযোগ পেয়েছি। কেউ ফিটনেস নিয়ে কাজ করেছে। কেউ মানসিক দিক নিয়ে কাজ করেছে। কোচদের সঙ্গে টেকনিক্যাল, ট্যাকটিকাল কাজ করেছে, কীভাবে স্কিলের দিক থেকে উন্নতি করা যায়। অনেকে তার ব্যক্তিগত কাজ করেছে, কীভাবে নিজের খেলার আরও উন্নতি করা যায়। আমার কাছে মনে হয়, এসব থেকে আমরা ভালো কিছু আশা করতে পারি... খেলার ভেতরে থাকলে এগুলি নিয়ে আলোচনা করার সুযোগ কম হয়। মাঠের বাইরে থেকে নিজের খেলায় কীভাবে উন্নতি করা যায়, সেগুলি নিয়ে কাজ করেছি।’

অক্টোবরের মাঝামাঝি থেকে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার আলোচনা করছে বিসিবি। মুমিনুল মনে করেন আপাতত মাঠে পুরো না থাকলেও খেলার স‚চি ঠিক হলেই সময়মত তৈরি হয়ে যেতে পারবেন তারা, ‘যখন আমরা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে যাবো, আমার কাছে মনে হয়, আমরা প্রস্তুতির যথেষ্ট সুযোগ পাবো। সব দিক থেকে প্রস্তুতি নিয়ে ভালোভাবে টেস্ট ম্যাচ শুরু করতে পারব।’

শ্রীলঙ্কার করোনা পরিস্থিতি অপেক্ষাকৃত ভালো থাকায় লঙ্কানরা এর মধ্যেই এক দফা অনুশীলন ক্যাম্প সেরে ফেলেছে। এখন ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক টুর্নামেন্ট লঙ্কান প্রিমিয়ার লিগ শুরুর অপেক্ষায় তারা। বাংলাদেশ সিরিজের আগে প্রস্তুতিটা খারাপ হওয়ার কথা নয় করুনারত্নের দলের। মুমিনুলসহ এদিন থেকে বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা দ্বিতীয় দফা একক অনুশীলন শুরু করলেন। মিরপুর সহ দেশের মোট ৫ ভেন্যুতে ২৭ জন ক্রিকেটার অনুশীলনে করছেন। টেস্ট অধিনায়ক আশাবাদী, বাংলাদেশের প্রস্তুতিও ভালোই হবে, ‘আমার মনে হয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার আগে আমরা পর্যাপ্ত প্রস্তুতির সুযোগ পাব। অনুশীলন, প্রস্তুতি ম্যাচ মিলিয়ে ভালো একটা প্রস্তুতি হবে আশা করি।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মুমিনুল

২৩ নভেম্বর, ২০১৮
২২ নভেম্বর, ২০১৮
২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন