Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১৩ কার্তিক ১৪২৭, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

পাকিস্তানে রাজনাথের জন্য কঠোর নিরাপত্তা, ইসলামাবাদে বিক্ষোভ

সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে আঞ্চলিক স্থিতাবস্থা বজায় রাখার উপর জোর দেবে ভারত

প্রকাশের সময় : ৫ আগস্ট, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : দক্ষিণ এশীয় আঞ্চলিক সহযোগিতা সংস্থা (সার্ক) সম্মেলনে অংশগ্রহণ করতে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং পাকিস্তানে গেছেন। অপরদিকে তার সফরের বিরোধিতা করে ইসলামাবাদসহ দেশটির বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সংবাদ মাধ্যম জানায়, গত বুধবার ভারতের শীর্ষ পর্যায়ের এক প্রতিনিধি দলকে সঙ্গে নিয়ে পাকিস্তানে গেছেন রাজনাথ সিং। তার সঙ্গে রয়েছেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পদস্থ কর্মকর্তারা।
পাকিস্তানে যাওয়ার আগে রাজনাথ বলেন, সন্ত্রাসবাদ ও সংঘটিত অপরাধের বিরুদ্ধে আঞ্চলিক স্থিতাবস্থা বজায় রাখার ওপর তিনি নজর দেবেন। ওই বৈঠকে আঞ্চলিক নিরাপত্তাকে সুনিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় সমস্ত কিছুই আলোচনায় রাখা হবে বলেও তিনি জানান। হিজবুল মুজাহিদীন প্রধান সৈয়দ সালাউদ্দিন এবং লস্কর-ই তাইয়্যেবা প্রধান হাফিজ সাঈদের হুঁশিয়ারির পরিপ্রেক্ষিতে পাকিস্তানে রাজনাথের নিরাপত্তা কঠোর করা হয়েছে। ইসলামাবাদে রাজনাথের নিরাপত্তায় ২০০ কমান্ডো মোতায়েন করা হয়েছে। তাকে প্রেসিডেন্ট পর্যায়ের নিরাপত্তা দেয়া হচ্ছে। ইসলামাবাদে সম্মেলন স্থলের বাইরে রাজনাথ সিংয়ের সফরের বিরোধিতা করে মানুষজন তীব্র বিক্ষোভ দেখায়। হাফিজ সাঈদ এর আগে এক হুঁশিয়ারিতে বলেন, রাজনাথ এখানে এলে গোটা দেশজুড়ে এর বিরোধিতা করা হবে। অন্যদিকে, সৈয়দ সালাউদ্দিন তার পাক সফর নিয়ে প্রশ্ন তুলে তাকে কাশ্মিরিদের হত্যাকারী বলে অভিহিত করেছেন। তিনি ভারত থেকে পাক দূতকে প্রত্যাহার করে নেয়াসহ ভারতের সঙ্গে বাণিজ্যিক এবং কূটনৈতিক সম্পর্ক শেষ করারও দাবি জানিয়েছেন। ভারতের স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী কিরণ রিজিজু দিল্লিতে বলেন, সার্কে বহুপাক্ষিক বৈঠক হয়। রাজনাথ সিং পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে আলাদাভাবে কোনো বৈঠক করবেন না বা কোনো বার্তাও দেবেন না। তিনি বলেন, কাশ্মিরে বুরহান ওয়ানি নিহত হওয়ার পর সহিংসতা বৃদ্ধি পাওয়ায় একে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করে পাকিস্তান দ্বিপক্ষীয় সংলাপ স্থগিত করতে চাচ্ছে। এমতাবস্থায় যদি ভারতের পক্ষ থেকে ওই সম্মেলনে অংশ না নেয়া হয় তাহলে পাকিস্তান এ ঘটনাকে আন্তর্জাতিক ফোরামে ইস্যু তৈরি করবে। এর আগে খবরে বলা হয়, ভারতীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নিরাপত্তার খাতিরে ইতোমধ্যেই নওয়াজ শরিফ সে দেশের নিরাপত্তা সংস্থাগুলির সঙ্গে বৈঠকও করেছেন। নিরাপত্তায় যাতে কোনওরকম ঘাটতি না হয়, সেজন্য সদা তৎপর থাকবে পাক প্রশাসন। নিরাপত্তা যতই আঁটসাঁট হোক না কেন, রাজনাথ যখন ইসলামাবাদের উদ্দেশ্যে রওনা দিলেন, তখন পাকিস্তানজুড়ে বিক্ষোভ শুরু করেছে হিজবুল মুজাহিদিন, জামাত-উদ-দাওয়ার মত কট্টরপন্থি সংগঠনগুলো। হিজবুল প্রধান সাঈদ সালাউদ্দিনের নেতৃত্বে ইসলামাবাদে বিক্ষোভও হয়েছে। পাকিস্তানের বিভিন্ন জায়গাতেও জঙ্গি নেতা হিসেবে পরিচিতরা প্রকাশ্য বিক্ষোভ করেছে। অবশ্য, ভারতের তরফে এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য এখনও করা হয়নি। পার্সটুডে, এনডিটিভি।  



 

Show all comments
  • Firoz ৫ আগস্ট, ২০১৬, ১২:১০ পিএম says : 0
    India ki asole e santi chay ?
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাকিস্তানে রাজনাথের জন্য কঠোর নিরাপত্তা
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ