Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

এবার শিক্ষার্থীদের লাঠিচার্জ না করায় এএসআইকে থাপ্পড় মারলেন ওসি!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ আগস্ট, ২০২০, ১১:৩৩ এএম | আপডেট : ১২:২১ পিএম, ৯ আগস্ট, ২০২০

শিক্ষার্থীদের ওপর লাঠিচার্জ না করার কারণে ক্ষিপ্ত হয়ে একই থানার এএসআই পদমর্যাদার এক পুলিশ সদস্যকে মানুষের সামনে প্রকাশ্যে থাপ্পড় দিয়েছেন বরগুনার বামনা থানার ওসি ইলিয়াস আলী তালুকদার। পুলিশের গুলিতে নিহত সাবেক মেজর সিনহা মো. রাশেদ খানের সঙ্গে থাকা ভিডিওচিত্রগ্রাহক সাহেদুল ইসলাম সিফাতের নিজ বাড়ি বরগুনার বামনা উপজেলায় তার মুক্তির দাবিতে শনিবার দুপুরে শিক্ষার্থীদের এক কর্মসূচিতে এ ঘটনা ঘটে। শিক্ষার্থীদের ওপর লাঠিচার্জ না করার কারণে ক্ষিপ্ত হয়ে সহকর্মীকে থাপ্পড় মারেন ওসি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এ ঘটনার ভিডিওটি এখন ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। ভিডিওতে দেখা যায়, ওসি ইলিয়াস আলী প্রথমে উত্তেজিত হয়ে থানার এক সাব ইন্সপেক্টরকে চরথাপ্পড় দেন। এসময় চিৎকার করে তিনি বলেন, কী করেন আপনারা? পিটান সবাইকে। পরে ওসি নিজেই শিক্ষার্থীদের পেটাতে শুরু করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শনিবার দুপুর উপজেলার কলেজ রোডে প্রায় ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রায় তিনশতাধিক শিক্ষার্থী ও স্থানীয়রা অংশ নেন। পুলিশ এসে প্রথমে মানববন্ধনের ব্যানার ও মাইক ছিনিয়ে নেয়। এক পর্যায়ে সিফাতের বন্ধুরা মানববন্ধন চালিয়ে গেলে বামনা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইলিয়াস আলী তালুকদার ছুটে এসে মানববন্ধনরত শিক্ষার্থীদের লাঠিপেটা শুরু করেন। এতে চার জন শিক্ষার্থী গুরুতর আহত হয়। আহত শিক্ষার্থীরা হলেন মো. রুবেল, ইমরান, রায়হান ও মিথুন।

এ ব্যাপারে বামনা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইলিয়াস আলী তালুকদার গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমাদের অনুমতি না নিয়ে কতিপয় দুষ্কৃতিকারী সড়কে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছে এবং রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে মানববন্ধন করতেছে এমন সংবাদ পেয়ে আমি মানববন্ধনটি বন্ধ করে দেই’।



 

Show all comments
  • আবির ৯ আগস্ট, ২০২০, ১:০৬ পিএম says : 1
    অনতিবিলম্বে ওসির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হোক
    Total Reply(0) Reply
  • আসলাম ৯ আগস্ট, ২০২০, ১২:২১ পিএম says : 2
    ওই ওসিকে প্রকাশ্যে থাপড়ানো উচিত কাপড় খুলে নিয়ে।
    Total Reply(0) Reply
  • কবির ৯ আগস্ট, ২০২০, ১২:২১ পিএম says : 2
    পুলিশ বেপরোয়া। ওদের থামানো সম্ভব নয়।
    Total Reply(0) Reply
  • শামীম ৯ আগস্ট, ২০২০, ১২:২২ পিএম says : 1
    অবৈধ শাসনে টিকে থাকার জ ন্য পুলিশকে ব্যবহার করার ফলে পুলিশ আজ এতোটা বেপরোয়া।
    Total Reply(0) Reply
  • তানভীর ৯ আগস্ট, ২০২০, ১:০৬ পিএম says : 0
    এরাই মূলত দেশ ও জাতির সবচেয়ে বড় শত্রু
    Total Reply(0) Reply
  • habib ৯ আগস্ট, ২০২০, ১২:৫৬ পিএম says : 0
    Era sobai indian RAW agent....
    Total Reply(0) Reply
  • সালমা ৯ আগস্ট, ২০২০, ১:০৭ পিএম says : 0
    দিন দিন পুলিশ বেপরোয়া হয়ে উঠছে। এদের বিরুদ্ধে এখন কোন ব্যবস্থা না নিলে পরে নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাবে
    Total Reply(0) Reply
  • হায়দার আলী ৯ আগস্ট, ২০২০, ১:০৯ পিএম says : 0
    শিক্ষার্থীরা দুষ্কৃতিকারী, রাষ্ট্রবিরোধী মানববন্ধন করে? ফাইজলামির একটা সীমা থাকা দরকার। পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা কি এসব দেখেন না নাকি তাদের নির্দেশেই এসব হচ্ছে?
    Total Reply(0) Reply
  • মোজাম্মেল হক ৯ আগস্ট, ২০২০, ১:১১ পিএম says : 0
    কর্মরত পুলিশ অফিসারের গায়ে হাত তোলা একটি বড় অপরাধ। তারপরে শিক্ষার্থীদের উপরে হামলা, এতটা এগ্রেসিভ ওসি হয় কিভাবে?
    Total Reply(0) Reply
  • ইমরানুল করিম ৯ আগস্ট, ২০২০, ১:১১ পিএম says : 0
    অনতিবিলম্বে ওসিকে স্থায়ীভাবে চাকরি থেকে অব্যাহতি দেওয়া হোক
    Total Reply(0) Reply
  • সান্তানুর খোকন ৯ আগস্ট, ২০২০, ১০:৩২ পিএম says : 0
    সোশাল মিডিয়ার ভিডিও দেখে মনেহচ্ছে ঔ ওসি তার ব্যাচমেট বা উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের আশীর্বাদ পুষ্টলোক,এর সম্পদের হিসেব নেওয়া এবং জনসমাগম স্থলে কর্তব্যরত পুলিশ কর্মীর গায়ে হাততুলে পদের অবমাননার জন্যে বিভাগীয় ও স্বতঃপ্রণোদিত একটি মামলাকরা
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Shah Alam Khan ১৫ আগস্ট, ২০২০, ১১:৫৯ পিএম says : 0
    প্রদীপ বাবুকে বাচানোর জন্যে উপরের ওসি মিয়া সচেস্ট হয়েছেন এটা প্রমাণিত। এখন সরকারের উচিৎ হবে এই ওসির সম্পদের হিসাব নেয়া সাথে সাথে তাঁর ইতিপূর্বের কর্মকাণ্ড পর্যালোচনা করা। এখানে তাঁর (ওসির) ব্যাবহারে নিশ্চিত হওয়া যায় যে, এই ওসি সাহেব একজন দুর্নীতিবাজ ওসি। এখানে যেভাবে ওসি সাহেব তাঁর অধিনস্ত একজন কর্মকর্তাকে অন্যায় ভাবে লাঠি চার্জ না করায় চড় মেরেছেন এতেই প্রমাণিত এই ওসি সাহেব কতটা উগ্রমেজাজী এবং জনগণের প্রতি একজন বেরহম সন্ত্রাসী স্বভাবের পুলিশ। এতে প্রমাণিত এই ওসি কোনভাবেই ওসি পদের যোগ্য নন। কাজেই আর দেরী নাকরে তাঁকে তাঁর পদথেকে অব্যহতি দিয়ে সরিয়ে নেয়া উচিৎ।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পুলিশ

২৩ নভেম্বর, ২০২০
১৯ নভেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ