Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২১, ০৫ মাঘ ১৪২৭, ০৫ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

লেবাননের সহায়তায় এবার আরবলীগ ও তুরস্ক

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ আগস্ট, ২০২০, ২:২২ পিএম

সাম্প্রতিক ভয়াবহ বিস্ফোরণে লেবাননের রাজধানী বৈরুতের বৃহৎ একটি অংশ ধ্বংসের পর সহায়তার আশ্বাস দিয়েছে আরব লীগ। এছাড়া বন্দর পুনর্নিমাণে সহায়তা করতে প্রস্তুত আছে বলে জানিয়েছে তুরস্ক।
বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, গতকাল শনিবার লেবাননের প্রেসিডেন্ট মিশেল আউনের সঙ্গে বৈঠক করেন আরব লীগের প্রধান আহমেদ আবুল গেইত ও তুরস্কের ভাইস প্রেসিডেন্ট ফুয়াত ওক্তাই। এরপর গেইত জানিয়েছেন, লেবাননকে সহায়তা প্রদান করতে সম্মিলিত আরব উদ্যোগ নেওয়ার চেষ্টা করবেন তিনি।
বৈঠকের পর সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় তিনি জানান, কায়রোভিত্তিক আরব লীগের রাষ্ট্রগুলো বিস্ফোরণের তদন্তে সহায়তা করতে প্রস্তুত আছে। “সম্ভাব্য সব ধরনের সহায়তা করতে প্রস্তুত আছি আমরা,” বলেন তিনি।
আউনের সঙ্গে বৈঠকের পর তুরস্কের ভাইস প্রেসিডেন্ট ওক্তাই জানান, তার দেশ বৈরুত বন্দর পুনর্নিমাণে সহায়তা করতে প্রস্তুত আছে। তিনি আরও জানান, বৈরুত বন্দর পুনর্নির্মিত না হওয়া পর্যন্ত তুরস্কের ভূমধ্যসাগরীয় মাইসিন বন্দর, লেবাননকে শুল্ক ছাড় ও বড় ধরনের চালানের জন্য গুদাম ব্যবহার করার সুবিধা দিয়ে সাহায্য করতেও প্রস্তুত আছে। তিনি বলেন, “আমরা বলেছি, মাইসিন থেকে ছোট জাহাজে করে ও পরিবহনের অন্যান্য উপায় ব্যবহার করে লেবাননে পণ্য পাঠানো যেতে পারে।”
চিকিৎসার জন্য আহত লেবাননিদের তুরস্কের এয়ার অ্যাম্বুলেন্স করে তুরস্কে নেওয়া যেতে পারে বলেও এক ভাষণে জানিয়েছেন ওক্তাই। তুরস্কের কর্তৃপক্ষ লেবাননে তল্লাশি ও উদ্ধারকারী দল পাঠানোর পাশাপাশি মেডিকেল টিমও পাঠিয়েছে।
বৈরুতে মঙ্গলবারের ওই বিস্ফোরণে ১৫৮ জন নিহত ও ছয় হাজার জন আহত হয়েছেন বলে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে। ২১ জন এখনো পর্যন্ত নিখোঁজ রয়েছেন বলে খবর হয়েছে। আড়াই লাখেরও বেশি লোক গৃহহীন অবস্থায় রয়েছেন। বন্দরের একটি গুদামে বিস্ফোরণের ওই ঘটনাটি ঘটে। সেখানে দুই হাজার ৭৫০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট রাখা ছিল যা সার অথবা বিস্ফোরক হিসেবে ব্যবহার করা যায়।
মধ্যপ্রাচ্যের তেল সমৃদ্ধ আরব দেশগুলো দীর্ঘদিন ধরে লেবাননের ভঙ্গুর অর্থনীতে তহবিল যুগিয়েছে, কিন্তু আঞ্চলিক প্রতিদ্বন্দ্বী ইরান প্রভাবিত শক্তিশালী শিয়া গোষ্ঠী হেজবুল্লার বাড়তে থাকা প্রভাবের কারণে সতর্ক হয়ে তারা এখন দেশটিকে আর্থিক সহায়তা দেওয়া বন্ধ রেখেছে। সূত্র : আনাদোলু ও ডেইলি সাবাহর।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: লেবানন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ