Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২১, ১২ মাঘ ১৪২৭, ১২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

মাদারীপুরে বন্যার পানি কমতে শুরু করেছে

মাদারীপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৯ আগস্ট, ২০২০, ৬:২৯ পিএম

মাদারীপুরের ৪টি উপজেলার বিভিন্ন নদ-নদীর পানি রোববার থেকে কমতে শুরু করেছে। এর ফলে জেলার সার্বিক বন্যা পরিস্থিতি উন্নতির দিকে যাচ্ছে। জেলার পদ্মা নদী ও আড়িয়াল খাঁ নদীর দুপাশের অনেক গ্রামের নিচু স্থানের ঘরবাড়ি এখনও পানিতে ভরপুর। সরকারের পক্ষ থেকে বন্যা ও নদী ভাঙনে ক্ষতিগ্রাস্তেদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ অব্যহত রয়েছে।

জানা গেছে, নদীর পানি কমতে থাকায় জেলার বন্যা পরিস্থিতি উন্নতির দিকে হলেও এখনও নি¤œাঞ্চলের অনেক এলাকার ঘরবাড়িতে পানি উঠে আছে। বিশেষ করে বন্যার পানিতে শিবচর উপজেলার পদ্মা নদীর বেষ্টিত চর ও সংলগ্ন ইউনিয়নগুলো এবং সদর উপজেলা, রাজৈর ও কালকিনি উপজেলার নিন্মাঞ্চল এখনও প্লাবিত আছে। ঘরবাড়ি পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় নি¤œ আয়ের মানুষ চরম ভোগান্তিতে পড়েছে। জেলায়র প্রায় ৪০টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়েছে। ইতিমধ্যেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ বসত বাড়ি ফসলি জমি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, রাস্তাঘাট পানিতে তলিয়ে গেছে। ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে কৃষি ফসলের। অন্যদিকে নদীর পানি কিছুটা কমার সাথে সাথে ভাঙ্গনের তীব্রতা বৃদ্ধি পেয়েছে। রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ এবং সরকারের পক্ষ থেকে কেউ আবার ব্যক্তিগত ভাবে বন্যা ও নদী ভাঙনে ক্ষতিগ্রাস্তেদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করছে।

মাদারীপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী পার্থ প্রতীম সাহা বলেন, মাদারীপুর জেলার সার্বিক বন্যা পরিস্থিতি এখন উন্নতির দিকে। প্রতিদিনই বিভিন্ন নদ-নদীর পানি কমতেছে। আড়িয়াল খাঁ নদীর পানি গত ২৪ ঘন্টায় ৭ সে.মি কমেছে। বিপদ সীমার ১৬ সে.মি নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পদ্মা নদীর পানি মাওয়া পয়েন্টে গত ২৪ ঘন্টায় ৮ সে.মি কমেছে। বিপদ সীমার ১২ সে.মি ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার পদ্মা ও আড়িয়াল খা নদী বিভিন্ন স্থানে ভাঙতেছে। ভাঙন প্রতিরোধে আমরা কিছু কিছু গুরুত্বপূর্ন স্থানে বালু ভর্তি জিও ব্যাগ ফালাচ্ছি।
মাদারীপুরে বিল্ডিংয়ের ছাদ ধসে নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু
মাদারীপুর জেলা সংবাদদাতা:মাদারীপুরের ডাসার থানার পশ্চিম বোতলা গ্রামে রোববার সকাল ১০টার দিকে পুরানো বিল্ডিং এর কাজ করতে গিয়ে বারান্দার ছাদ ধসে পড়ে হালান সরদার (৩৫) নামে এক নির্মান শ্রমিক নিহত হয়েছে। নিহত হালান মাদারীপুুর সদর উপজেলার ঝাউদি ইউনিয়নের পশ্চিম টুবিয়া গ্রামের মোসলেম সরদারের ছেলে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ডাসার থানার বালীগ্রাম ইউনিয়নের পশ্চিম বতলা গ্রামে কবির হাওলাদের পুরানো বাড়ী ভেঙ্গে নতুন বাড়ী করার পরিকল্পনা করায় সকাল থেকে বিল্ডিং ভাঙ্গার কাজ শুরু করে নির্মাণ শ্রমিকরা। এসময় বাড়ীর ২য় তলার বারান্দার ছাদ ধসে পড়ে নিচে চাপা পড়ে হালান সরদার। সেখান থেকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
মাদারীপুর সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক মো. সাকিল জানান, মাথায় ও মুখে গুরুতর আঘাত প্্রাপ্ত এক ব্যক্তিকে হাসপাতালে নিয়ে আসার পূর্বেই তিনি মারা গেছেন।
ডাসার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ওহাব মিয়া ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বন্যা পরিস্থিতি


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ