Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১২ কার্তিক ১৪২৭, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

অবশিষ্ট ৪০০ তালিবানকে মুক্তি দিল আফগান সরকার

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১০ আগস্ট, ২০২০, ৮:১৪ পিএম

যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতায় যথাশীঘ্রই শান্তি আলোচনা শুরু করতে আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি অবশিষ্ট ৪০০ জন তালিবান বন্দিদের মুক্তি দিয়েছেন। সরকার সমর্থিত সংসদ লয়া জিরগা অবশিষ্ট তালিবানদের মুক্তির আবেদন জানালে তিনি এই পদক্ষেপ নেন। খবর ভয়েস অব আমেরিকা’র।

আশা করা হচ্ছে, এ শান্তি আলোচনার মধ্য দিয়ে দেশটিতে চলমান ১৯ বছরের যুদ্ধের অবসান হবে। খবর রয়টার্স।
গতকাল আফগানিস্তানের নেতাদের সর্বোচ্চ পরিষদ লয়া জিরগায় এসব তালেবানকে মুক্তি দেয়ার বিষয়ে অনুমোদন দেয়া হয়। পরিষদের পক্ষ থেকে বলা হয়, শান্তি আলোচনার পথে সৃষ্ট বাধা অপসারণ করে চলমান রক্তপাত বন্ধের লক্ষ্যে লয়া জিরগা ৪০০ তালেবানকে মুক্তি দিতে সম্মত হয়েছে। আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ গানি বলেন, আজ আমি এসব তালেবান বন্দির মুক্তি সনদে স্বাক্ষর করব।
এর আগে গত সপ্তাহে গানি প্রায় ৩ হাজার ২০০ আফগান গোষ্ঠী নেতা ও রাজনীতিবিদকে কাবুলে আমন্ত্রণ জানান। কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে তাদের রাজধানীতে নিয়ে আসার উদ্দেশ্য ছিল, তালেবান বন্দিদের মুক্তি দেয়া যায় কিনা তা আলোচনা করা। এ ৪০০ জনকে মুক্তি দেয়ার মধ্য দিয়ে পাঁচ হাজার তালেবান বন্দির মুক্তির প্রতিশ্রুতি পূরণ করতে যাচ্ছে আফগান সরকার।
পশ্চিমা কূটনীতিকরা জানিয়েছেন, চলতি সপ্তাহে দোহায় তালেবান ও আফগান সরকারের মধ্যে শান্তি আলোচনা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। এর আগে তালেবানকে পূর্ণ যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানিয়েছেন আশরাফ গানি।
তবে আফগানিস্তানজুড়ে ভয়াবহতম বেশকিছু হামলার জন্য দায়ী এসব তালেবান যোদ্ধার মুক্তি দেয়া নিয়ে সাধারণ নাগরিক ও অধিকার সংগঠনগুলোর মধ্যে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে। তাদের মতে, এ শান্তি আলোচনার প্রক্রিয়ার নৈতিকতা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে। তবে আফগানিস্তানে যে পরিস্থিতি চলছে, তাতে শান্তি আলোচনার বিকল্প নেই বলে মনে করছেন অনেকেই। কারণ জাতিসংঘের প্রতিবেদন অনুযায়ী, শুধু ২০১৯ সালেই দেশটিতে সংঘাতের কারণে ১০ হাজারের বেশি বেসামরিক মানুষ নিহত কিংবা আহত হয়েছে। গত এক দশকে দেশটিতে হতাহতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে এক লাখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন