Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭, ১০ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

রন-দীপু হকের জামিন আবেদন ইতিহাসে নজিরবিহীন

হাইকোর্টের আদেশ প্রকাশ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১১ আগস্ট, ২০২০, ১২:০২ এএম

আদালতে আত্মসমর্পণ না করে সিকদার গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রন হক সিকদার এবং দীপু হক সিকদারের জামিন আবেদনকে ‘নজিরবিহীন’ আখ্যায়িত করেছেন হাইকোর্ট। একটি হত্যা চেষ্টা মামলার পলাতক আসামি তারা। মামলার পর পরই এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে ব্যাংকক পাড়ি জমান তারা। সেখানে অবস্থান করেই হাইকোর্টের ভার্চুয়াল বেঞ্চে আগাম জামিনের আবেদন করেন।গত ২০ জুলাই তাদের আবেদন নাকচ করে দিয়ে এক আদেশ দেন হাইকোর্ট।পূর্ণাঙ্গ আদেশ সুপ্রিম কোর্ট ওয়েব সাইটে প্রকাশিত হয়েছে সম্প্রতি। প্রকাশিত রায়ে দেখা যায়, বিদেশে অবস্থানরত সিকদার গ্রুপের দুই ভাইয়ের আগাম জামিন আবেদনকে ‘নজিরবিহীন’ বলে উল্লেখ করেছেন আদালত।দেশের বাইরে থেকে আইনজীবী হিসেবে মামলা পরিচালনাও বেআইনি এবং নীতিনৈতিকতা বহির্ভূত বলে উল্লেখ করা হয়। এমন নজিরবিহীন আগাম জামিনের দরখাস্ত পৃথিবীর ইতিহাসে প্রথম।আর আইন ও বিধি মোতাবেক বিদেশ থেকে আগাম জামিনের দরখাস্ত করার কোনো সুযোগ নেই। এ ধরণের বেআইনি এবং নীতিনৈতিকতা বহির্ভূত আবেদন পরিত্যাজ্য। এছাড়া আইন, বিধি ও প্রাকটিস ডিরেকশন মোতাবেক বাংলাদেশের সীমানার বাইরে থেকে আদালতে অ্যাডভোকেট হিসেবে বক্তব্য এবং যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের কোনো সুযোগ নেই।
উল্লেখ্য,গত ২০ জুলাই দুই ভাইয়ের জামিন আবেদন সরাসরি নাকচ করে দেন বিচারপতি মো.আশরাফুল কামালের তৎকালিন ভার্চুয়াল বেঞ্চ। সেই সঙ্গে আদালতের মূল্যবান সময় নষ্ট করার দায়ে রন হক এবং দীপু হককে ১০ হাজার পিস পিপিই জরিমানা করেন। জরিমানাকৃত পিপিই প্রধান মন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে জমা দিতে বলেন আদালত। দুই ভাইয়ের পক্ষে লন্ডনে বসে ভার্চুয়ালি শুনানি করেন অ্যাডভোকেট আজমালুল হক কিউসি।
গত ১৯ মে রন হক সিকদার ও দীপু হক সিকদারের বিরুদ্ধে গুলশান থানায় মামলা হয়। এজাহারে বলা হয়, ৭ মে রন ও দীপু এক্সিম ব্যাংকের এমডি মুহাম্মদ হায়দার আলী মিয়া ও অতিরিক্ত এমডি মুহাম্মদ ফিরোজ হোসেনকে একটি অ্যাপার্টমেন্টে আটকে রাখেন। সেখানে দুজনকে গুলি করে হত্যার চেষ্টা করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: হাইকোর্টের


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ