Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ০২ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউল সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

বায়োটেক খাতে ৩০০ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করছে চীনের ওরিক্স

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১১ আগস্ট, ২০২০, ৭:২৯ পিএম

বাংলাদেশে প্রথম বায়োটেক শিল্প খাতে ৩০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করবে চীনের ওরিক্স বায়োটেক হোল্ডিংসের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান ওরিক্স বায়োটেক লিমিটেড।

মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) দেশের বায়োটেক শিল্প খাতে বিনিয়োগের জন্য সামিট টেকনোপলিস ও বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে একটি ত্রিপক্ষীয় চুক্তি সই করেছে ওরিক্স বায়োটেক।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ এবং আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম, বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (সচিব) হোসনে আরা বেগম। এছাড়া অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হন সামিট গ্রুপের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ আজিজ খান, ভাইস চেয়ারম্যান লতিফ খান, ফরিদ খান, জাফর উম্মিদ খান, সামিট গ্রুপের পরিচালক আয়েশা আজিজ খান, আজিজা আজিজ খান, ফাদিয়া খান, সালমান খানসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এবং চীন থেকে যুক্ত হন ডেভিড বো ও তার সহকর্মীরা।

চুক্তির আওতায় বাংলাদেশে প্রথম বায়ো টেকনোলজি বিষয়ক বিনিয়োগ হিসেবে ওরিক্স তাদের প্লাজমা বিশ্লেষণ প্ল্যান্ট স্থাপন করবে সামিট টেকনোপলিসের ব্লক-০২ এ। এই প্ল্যান্টটি প্লাজমা ডেরিভেটিভস উৎপাদন করবে যা জীবন রক্ষাকারী ওষুধ হিসেবে বিবেচিত হবে। করোনার সম্ভাব্য চিকিৎসায় প্লাজমার চাহিদা থাকায় এটি বাংলাদেশের স্বাস্থ্য গবেষণা ও সেবা খাতসমূহের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ এবং সময়োপযোগী বিনিয়োগ। আশা করা হচ্ছে, এই প্রকল্পে দুই হাজার দক্ষ বিজ্ঞান স্নাতকদের কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হবে। এছাড়া এখানে অ্যালবুমিন, ইমিউনোগ্লোবিনের মতো থেরাপিউটিকস উৎপাদন শুরু হবে।

সামিট গ্রুপের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ আজিজ খান বলেন, সামিট টেকনোপলিসের বরাদ্দ ২৫ একর জমি এবং ভবনে দেশের প্রথম এবং বৃহত্তম বায়োটেক শিল্প খাতে প্রায় ৩০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের এই বিনিয়োগ কার্যকর করতে পেরে আমরা আনন্দিত। বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উদযাপনের বর্ণিল বছরে এটি অত্যন্ত সন্তোষজনক ব্যাপার যে, এই প্লাজমা ফ্রাকশানেশন প্ল্যান্টটি বাংলাদেশের উন্নয়নে নতুন দিগন্ত উন্মোচন করবে।



 

Show all comments
  • Zahangir ১১ আগস্ট, ২০২০, ৮:২৯ পিএম says : 0
    এ চুক্তির কারণে ভারতের দাদা ভাইয়েরা গোস্যা করে কি না- কে জানে। যদি ভেবে বসে যে বাংলাদেশে তাদের জমিদারিতে আবার চীন ভাগ বসিয়ে ফেলেছ!
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ