Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৫ কার্তিক ১৪২৭, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

কোকোর জন্মদিনে কবর জিয়ার, খাবার বিতরণ ও দোয়া-মাহফিল

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৩ আগস্ট, ২০২০, ১২:০০ এএম

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান ও দলের চেয়ারপারসন সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে মরহুম আরাফাত রহমানের ৫১তম জন্মদিনে নানা কর্মসূচি পালন করেছেন নেতাকর্মীরা। দিনের শুরুতে বনানী কবরস্থানে তার কবরে পুস্পস্তবক অর্পন ও জিয়ারত, এতিমদের মধ্যে খাবার বিতরণ এবং দোয়া-মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বুধবার কয়েক‘শ নেতাকর্মী সকাল ৯টায় বনানী কবরস্থানের সামনে উপস্থিত হন। যদিও তাদেরকে বনানী কবরাস্থানে প্রবেশ করতে দেয়নি পুলিশ। পরে সকাল সাড়ে ১০টা দিকে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খানের নেতৃত্বে কয়েকজন নেতা স্বাস্থ্য বিধি মেনে কবর জিয়ারত ও পুস্পস্তবক অর্পন করে তার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন। ফাতেহা পাঠের পর মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন- দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, কেন্দ্রীয় নেতা মীর সরফত আলী সপু, আমিনুল হক, তাবিথ আউয়াল, ইশরাক হোসেন, শ্রমিক দলের আনোয়ার হোসেইন, যুব দলের সাইফুল আলম নিরব, সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু, স্বেচ্ছাসেবক দলের আবদুল কাদির ভুঁইয়া জুয়েল, ছাত্রদলের ফজলুর রহমান খোকন।

কবরস্থানের বাইরে গেইটের সামনে কয়েক‘শ নেতাকর্মী মোনাজাতে অংশ নেন। এদের মধ্যে ছিলেন- বিএনপির শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস, খায়রুল কবির খোকন, সহিদুল ইসলাম বাবুল, মহানগর উত্তরের আবদুল আলীম নকি, স্বেচ্ছাসেবক দলের গোলাম সারোয়ার, সাইফুল ইসলাম ফিরোজ, ছাত্রদলের ইকবাল হোসেন শ্যামল প্রমূখ।
কবর জিয়ারত শেষে গেইটের বাইরে এসে সাংবাদিকদের কাছে নজরুল ইসলাম খান বলেন, আমরা আজকে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার দ্বিতীয় পুত্র আমাদের ছোট ভাই মরহুম আরাফাত রহমান কোকোর কবর জিয়ারত করতে এসেছিলাম। অনিবার্বায কারণে আপনারা দেখেছেন যে, আমরা সবাই তার কবরের পাশে যেয়ে জিয়ারত করতে পারি নাই। সকলের পক্ষ থেকে আমরা কয়েকজন জিয়ারত করেছি এবং আল্লাহর কাছে তার রুহের মাগফেরাত কামনা করেছি। বিকালে গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে কোকোর রুহের মাগফেরাত কামনা করে মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে দলের কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন। অনলাইনে দোয়া-মাহফিলে অংশ নেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এছাড়া দুপুরে মীরপুরে একটি এতিমখানায় খাবার বিতরণ করেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। ২০১৫ সালের ২৪ জানুয়ারি মালয়েশিয়ায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান খালেদা জিয়ার কনিষ্টপুত্র আরাফাত রহমান কোকো।#



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ