Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮ আশ্বিন ১৪২৭, ০৫ সফর ১৪৪২ হিজরী

সুশান্তকে শ্বাসরোধ করেই হত্যা করা হয়েছে, দাবী আইনজীবীর

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ আগস্ট, ২০২০, ১:১৭ পিএম

বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুতে উত্তাল গোটা দেশ। একের পর এক অভিযোগে বিদ্ধ হচ্ছে বলিউড। কখনো উঠছে স্বজনপ্রীতির অভিযোগ আবার কখনো বা বিত্তশালীদের নাম। শুধু তাই নয়, সুশান্তের মৃত্যু তদন্তেও নানা মহল থেকে আসছে বাধা। এবার চাঞ্চল্যকর মন্তব্য করে ফের বিতর্কের জন্ম দিলেন প্রয়াত অভিনেতার বাবার আইনজীবী।

সুশান্তের বাবার আইনজীবীর অভিযোগ, সুশান্ত নিজে আত্মহত্যা করেননি, বরং শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে তার বন্ধু সিদ্ধার্থ পিঠানি। আইনজীবীর এমন মন্তব্য মুহুর্তেই হই ফেলে দিয়েছে নেটদুনিয়ায়। ফলে আরেক দফা শুরু হয়েছে তড়জা।

তবে শুধু সিদ্ধার্থের বিরুদ্ধে অভিযোগই আনেননি ওই আইনজীবী, সুশান্তকে যে তিনি খুন করেছেন তার প্রেক্ষিতে একাধিক যুক্তিও দেখিয়েছেন তিনি। তার কথায়, ১৪ জুন সুশান্তের ঘর খোলার জন্য চাবিওয়ালা এসেছিলেন। ঘর আনলক করার পর তাকে গেট পর্যন্ত এগিয়ে দিয়ে আসেন সিদ্ধার্থ। স্পষ্টতই ঘর খোলার তাড়াহুড়ো ছিলো না তার। তাহলে কেন সুশান্তের বোনের জন্য অপেক্ষা করছিলেন সিদ্ধার্থ। দরজা খোলার পর কেনই বা তার পরিবারের সদস্য কিংবা পুলিশের অপেক্ষা না করেই বন্ধুর ঝুলন্ত দেহ নিচে নামিয়েছেন?

আইনজীবী আরও বলেন, সুশান্তকে বেল্ট দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। কিন্তু হত্যার পর তার গলায় পেচিয়ে দেওয়া হয় বিছানার চাদর। অভিনেতা যদি নিজের ইচ্ছাতে আত্মহত্যা করতেন তাহলে তার গলায় ইংরেজির 'ইউ' চিহ্ন থাকতো। কিন্তু সেটি না হয়ে তার গলায় ইংরেজি 'ও' চিহ্ন দেখা গেছে। এসব বিষয় নিয়ে জোরালো তদন্তের মাধ্যমেই মৃত্যুর রহস্য জানা যাবে বলেও দাবী করেন সুশান্তের বাবার আইনজীবী।

এরই মধ্যে সুশান্তের মৃত্যুর রহস্য উদঘাটন করতে মাঠে নেমেছে দেশটির কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিবিআই। এমনকি দায়িত্ব পেয়েই রিয়া চক্রবর্তী সহ বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে মামলাও দায়ের করেছেন তারা। গত দু'দিন আগে পাটনায় হাজির হয়ে সুশান্তের বাবার বয়ান রেকর্ড করেছে সিবিআই। শোনা যাচ্ছে, এই মামলায় অভিযুক্ত সবাইকে খুব শিগগিরই জিজ্ঞাসাবাদ করবে সংস্থাটি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বলিউড


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ