Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯ আশ্বিন ১৪২৭, ০৬ সফর ১৪৪২ হিজরী

‘পাকিস্তানের উইকেট’ পেয়েই সাবলীল রিজওয়ান!

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ আগস্ট, ২০২০, ১২:০০ এএম

সাউদাম্পটন টেস্টে ৫ উইকেটে ১২৬ রান নিয়ে প্রথম দিনের খেলা শেষ করেছিল পাকিস্তান। দ্বিতীয় দিনে মোহাম্মদ রিজওয়ান দেয়াল হয়ে না দাঁড়ালে দুই শ তোলাই অনিশ্চিত ছিল সফরকারীদের। দ্বিতীয় দিনে বৃষ্টি ও আলোকস্বল্পতায় খেলা হয়েছে মাত্র ৪০.২ ওভার। এর মধ্যেই বিপদে পড়েছিল পাকিস্তান। দলীয় ১৫৮ রানে বাবর আজম আউট হলে ছোট মড়ক লাগে ব্যাটিং অর্ডারে। এক প্রান্ত আগলে ছিলেন রিজওয়ান। ৯ উইকেটে ২২৩ রান তুলে পাকিস্তান দ্বিতীয় দিন শেষ করতে পারে ম‚লত তার ব্যাটিংয়েই। গতকাল রিপোর্টটি লেখা পর্যন্ত (রাত ৮টা) সেখানেই আটকে রোজ বোলের ম্যাচ। বৃষ্টির কারণে মাঠেই নামতে পারেননি রিজওয়ান।
৬০ রানে অপরাজিত থাকা এ উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যানের অবশ্য রান করতে ভালোই ঘাম ছুটেছে। ১১৬ বলের ইনিংসে দিনের শেষ ভাগে সিম মুভমেন্ট সামলাতে হিমশিম খেয়েছেন রিজওয়ান। অভিজ্ঞতাটা তিনি ভাগ করেছেন আগের দিনের খেলা শেষে, ‘কঠিন কন্ডিশন। পাকিস্তানের উত্তরাঞ্চলের উইকেটের সঙ্গে সাদৃশ্য আছে। অ্যাবোটাবাদ ও পেশোয়ারের মতো জায়গা।’
রোজ বোলের উইকেটের যে বিষয়টি রিজওয়ানকে চমকে দিয়েছে, সেটি জানালেন এরপরই, ‘ক্যারিয়ারে এই প্রথম আমি দেখলাম ৭৫ ওভারের পর বলের সিম (মুভ) করে, সেটিও তারা নতুন বল না নেওয়া পর্যন্ত। কখনো এমন কিছু দেখিনি।’ রিজওয়ান মনে করেন, এই উইকেটে শুধু যে পাকিস্তানের ব্যাটস্যমানরাই ভুগবে তা নয়। পরীক্ষা দিতে হবে স্বাগতিক ইংলিশ ব্যাটসম্যানদেরও, ‘ইংল্যান্ডের জন্যও এটা কঠিন হবে। ব্যাটিং করাটা সহজ হবে না।’
বাবর আউট হওয়ার পর একটু আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করেছেন রিজওয়ান। লেজের ব্যাটসম্যানেরা চলে আসায় সম্ভবত। পাকিস্তানের ঘরোয়া ক্রিকেটে শীর্ষ পাঁচের মধ্যে ব্যাট করতে অভ্যস্ত রিজওয়ান। এই টেস্টে ছয়ে ব্যাটিংয়ে নেমে শেষ দিকে লড়াইয়ের অভিজ্ঞতাটুকু তার জন্য নতুন, ‘ঘরোয়া ক্রিকেটে আমি শীর্ষ পাঁচের মধ্যে ব্যাট করি। এখানে শেষের দিকের ব্যাটসম্যানদের সঙ্গে ব্যাটিং করা শেখার বিষয়। নামার সময় মিসবাহ উল হক ও ইউনিস খানের কাছ থেকে প্রচুর পরামর্শ পেয়েছি।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাকিস্তান


আরও
আরও পড়ুন