Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১৬ আশ্বিন ১৪২৭, ১৩ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

লিভার সুরক্ষায় ১১ বনৌষধি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ আগস্ট, ২০২০, ১২:০০ এএম

লিভার বা যকৃত দেহের বৃহত্তম অঙ্গ। এটি ওষুধ, খাবার, জীবনধারা এবং পরিবেশ থেকে শরীরে প্রবেশ করা বিষাক্ত পদার্থ শরীর থেকে বের করে দিয়ে সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করে। সেকারণেই লিভারকে সুস্থ রাখার গুরুত্ব অপরিসীম। সুস্থ লিভারের জন্য মিল্ক থিসল্, আর্টিচোক, হলুদের শেকড়সহ ১১টি বনৌষধি ও খাদ্য সহায়ক অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

১. মিল্ক থিসল্: লিভার বা যকৃতের চিকিৎসা ও মেরামতের জন্য মিল্ক থিসল্ অন্যতম জনপ্রিয় ওষধি। এটিতে সিলিমারিন নামক ফ্ল্যাভোনয়েড রয়েছে। সিলিমারিন একটি গুরুত্বপূর্ণ অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, যা লিভারের কার্যকারিতা বৃদ্ধি করে এবং ডিটক্সিফিকেশন বা বিষ নাশ করে লিভারকে সুরক্ষা দেয়। এটি রোগ, মদ এবং মাদকদ্রব্য দ্বারা সঙ্ঘটিত লিভারের কোষগুলির ক্ষতিও মেরামত করে। মূলত এটি অ্যালকোহলিক হেপাটাইটিস, সিরোসিস এবং ভাইরাল হেপাটাইটিসের চিকিৎসার জন্য সারা বিশ্ব জুড়ে ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হয়।

২. এনএসি: মানবদেহের এমাইনো এসিড সিস্টিন’র একটি সম্পূরক রূপ হ’ল এন-এসিটিলসিস্টিন-এনএসি। এটি লিভারকে নিরাময় করে এবং ওষুধের ব্যবহারজনিত পার্শ^প্রতিক্রিয়া থেকে লিভারকে রক্ষা করে। এমনকি অ্যাসিটামিনোফেন ওষুধের অতিমাত্রায়া সেবনের পার্শ^প্রতিক্রিয়ার চিকিৎসায় হাসপাতালের জরুরি বিভাগে এটি ব্যবহার করা হয়। এনএসি অন্যান্য ক্ষতি, যেমন, অতিরিক্ত অ্যালকোহল গ্রহণ জনিত বা পরিবেশ দূষণজনিত কারণে লিভারের অকার্যকারিতা রোধ করে। ডিটক্সিফিকেশন চলাকালীন শরীরে গøুটাথায়নের মাত্রা পুনরায় পূরণ এবং বজায় রাখার জন্য এনএসি প্রয়োজনীয়।

৩. আর্টিচোক পাতা: উত্তর আমেরিকা, ইউরোপ এবং ভ‚মধ্যসাগর অঞ্চলে সাধারণত খাবার হিসবে ব্যবহৃত হয়। এটি লিভারের কার্যকারিতায় একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রতিকার হিসাবে পরিচিত। এতে রয়েছে সাইনারিন, যা লিভারে পিত্তের উৎপাদন বৃদ্ধি করে। এটি করোনারি হৃদরোগের ঝুঁকিতে থাকাদের স্বাস্থ্যকর কোলেস্টেরলের মাত্রা বজায় রাখতেও সহায়তা করে।
৪. হলুদের শেকড়: এটি একটি সুপরিচিত অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি এবং অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট। হলুদের শেকড় বা মূলে থাকা পলিফেনল ফ্যাটি লিভারের রোগের ঝুঁকি হ্রাস করতে উপকারী বলে প্রমাণিত হয়েছে। এমনকি এটি শরীরে ক্যান্সার সৃষ্টিকারী কোষগুলির ঝুঁকি কমাতেও সহায়তা করতে পারে।
৫. ড্যান্ডেলায়ন গাছের শেকড়: ড্যানডেলায়নের শেকড় পিত্তর উৎপাদন বাড়ানোর পাশাপাশি শরীরের বিষাক্ত পদার্থগুলি অপসারণের ক্ষমতাকে উন্নত করে লিভারকে সুস্থ রাখতে সহায়তা করে। গবেষকরা আবিষ্কার করেছেন যে, ড্যানডেলায়ন শিকড়ের অ্যান্টিঅক্সিডেন্টগুলির উচ্চমাত্রা যকৃতের কোষগুলিকে সুরক্ষা দেয়ার পাশাপাশি কোষের জন্য ক্ষতিকর মুক্ত মৌলগুলি রোধ করে।

৬. ইয়েলো ডক রুট: বিভিন্ন গবেষণায় বলা হয়েছে যে, এটি শরীর জুড়ে রক্তকোষ বহনকারী লিম্ফ্যাটিক সিস্টেমকে উন্নত করে এবং শরীর থেকে ক্ষতিকারক দূষিত পদার্থগুলির নির্গমন মাত্রা বাড়িয়ে তোলে। অন্ত্রের গতিবিধি নিয়ন্ত্রণ এবং কোষ্ঠকাঠিন্য রোধেও কার্যকর অ্যানথ্রাকুইনোন্সের একটি গুরুত্বপূর্ণ উৎস হিসাবেও ইয়েলো ডক ব্যবহৃত হয়।
৭. বিটের শেকড়: বিট ফাইবারের পাশাপাশি ফলিক অ্যাসিড, ম্যাঙ্গানিজ এবং পটাসিয়ামেরও উৎস। এতে রয়েছে বেটালাইনের মতো গুরুত্বপূর্ণ অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট যৌগ, যা শরীরের ক্ষতিকারক মৌলগুলিকে সাফ করে এবং শরীরের প্রদাহ কমাতে সাহায্য করে।

৮. আদা: প্রদাহ রোধক বৈশিষ্ট্যগুলির জন্য বিশ্বজুড়ে পরিচিত আদা লিভারের স্বাস্থ্যের জন্য অত্যাবশ্যক। আদা নন-অ্যালকোহলিক ফ্যাটি লিভার ডিজিজ-এনএএফএলডি হওয়ার ঝুঁকি উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস করে।
৯. কোলিন: ম্যাক্রোনিউট্রিয়েন্ট কোলিন হ’ল একটি যৌগ যা দেহের চর্বির কাঠামোগত উপাদান তৈরি করে। এটি লিভার থেকে শরীরের অন্যান্য প্রয়োজনীয় অংশে কোলেস্টেরল এবং ট্রাইগিøসারাইড উভয়ই পরিবহন করে অন্যান্য অঙ্গগুলিকে কার্যকর রাখতে সহায়তা করে। কোলিন এমনকি শারীরিক অনুশীলনের পর সামগ্রিক শক্তির স্তর, মেজাজ, ঘুমচক্র এবং ঘাটতি পূরণের সময় উন্নত করতে সহায়তা করে।

১০. মলিবডেনাম: মলিবডেনাম শরীরের একটি প্রয়োজনীয় পুষ্টি উপাদান যা এনজাইম উৎপাদনে অনুঘটক হিসাবে কাজ করে এবং শরীরে কিছু অ্যামিনো অ্যাসিড ভাঙতে সাহায্য করে। মলিবডেনাম উল্লেখযোগ্যভাবে ফুসফুস এবং লিভারের ফাইব্রোসিস প্রতিরোধ করে। মলিবডেনাম অ্যাসিটামিনোফেন থেকে লিভারের ক্ষতি রোধ করে এবং ডক্সোরুবিসিন নামক এক ধরনের অ্যান্টিবায়োটিক থেকে হৃৎপিন্ডের ক্ষতি হ্রাস করতেও সহায়তা করে।

১১. সেলেনিয়াম: একটি গুরুত্বপূর্ণ খনিজ, যা প্রাকৃতিকভাবে মাটিতে এবং কিছু খাবারে পাওয়া যায়, সেলেনিয়ামের রয়েছে অসংখ্য স্বাস্থ্য উপকারিতা। লিভারের টিস্যুর স্থিতিস্থাপকতা বজায় রাখতে সেলেনিয়ামও প্রয়োজন, বিশেষত যাদের দীর্ঘস্থায়ী লিভারের রোগ রয়েছে তাদের ক্ষেত্রে। সূত্র : ব্যালান্স ওয়ান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: লিভার


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ