Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১৩ কার্তিক ১৪২৭, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

মাদারীপুরে স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় ৭ জনকে আসামি করে থানায় মামলা

আদালতে ১৬৪ ধারায় দোষ স্বীকার

মাদারীপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৮ আগস্ট, ২০২০, ৬:৫৯ পিএম

মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার মিনাজদি গ্রামে ধারালো দা দিয়ে কুপিয়ে স্ত্রী ময়না বেগম (২৫) কে হত্যার ঘটনায় থানায় সোমবার দায়েরকৃত মামলায় গ্রেফতারকৃত প্রধান আসামী সোলায়মান মঙ্গলবার দুপুরে আদালতে ১৬৪ ধারায় হত্যার ঘটনায় দোষ স্বীকার করে জবানবন্দী প্রদান করেছে। মাদারীপুরের বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সাঈদুর রহমান আসামীর জবানবন্দী রেকর্ড করেন।

উল্লেখ্য কালকিনি উপজেলার মিনাজদি গ্রামের মো. আজিজ খানের ছেলে সোলায়মান খান (৩৫) এর সাথে ময়নার পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় ১৫ বছর পূর্বে। বিয়ের পর মাঝে মধ্যেই সামান্য বিষয় নিয়ে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হত। রোববার দুপুরে সামান্য বিষয় নিয়ে ফের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে স্বামী সোলায়মান হাতের কাছে থাকা ধারালো দা দিয়ে স্ত্রীকে এলো পাথারী ভাবে কুপিয়ে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা গুরুতর আহত অবস্থায় ময়না বেগমকে উদ্ধার করে প্রথমে কালকিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। বরিশাল নেয়ার পর রোববার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে ময়না হাসপাতালে মারা যায়।সোমবার বিকেলে নিহত ময়নার ভাই শহিদুল মোল্লা বাদী হয়ে ৭ জনকে আসামি করে কালকিনি থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর সোমবার রাতে সোলায়মানের পিতা মো. আজিজ খান (৫৮)কে গ্রেফতার করে থানা পুলিশ।
মঙ্গলবার দুপুরে বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সাইদুর রহমান এর আদালতে আসামি সোলায়মান হাজির হয়ে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি প্রদান করে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কুপিয়ে হত্যা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ