Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৫ কার্তিক ১৪২৭, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

পিএসজির রূপকথায় পিষ্ট লাইপজিগের স্বপ্ন

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ আগস্ট, ২০২০, ১২:০০ এএম

রূপকথার মতো অসাধারণ এক যাত্রায় দারুণ ফুটবল উপহার দিয়ে, একের পর এক অঘটনের জন্ম দিয়ে পৌঁছে গিয়েছিল উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালে। আরেকটি নতুনের জন্ম দেওয়ার হুঙ্কার দিয়েই দলটি নেমেছিল মাঠে। তবে কোনো অঘটনের সুযোগ না দিয়ে লাইপজিগের স্বপ্ন গুড়িয়ে নতুন রূপকথার জন্ম দিয়েছে প্যারিস সেন্ট জার্মেই। গতপরশু রাতে পর্তুগালের রাজধানী লিসবনে আক্রমণাত্মক ফুটবলের পসরা সাজিয়ে জার্মানির দলটিকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে ওঠার গল্প লিখল পিএসজি। ইতিহাস গড়ে ফাইনালে উঠা ফরাসি চ্যাম্পিয়নদের জয়টি ৩-০ গোলের।
নিষেধাজ্ঞা থেকে এদিন ফিরেছিলেন দলের অন্যতম সেরা তারকা অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। আর ইনজুরি থেকে সম্প‚র্ণ ফিট হওয়া কিলিয়ান এমবাপেকেও শুরু থেকে পায় পিএসজি। যদিও নিয়মিত গোলরক্ষক কেইলর নাভাসকে ঠাড়াই মাঠে নামতে হয়েছিল তাদের। তবে আক্রমণভাগের সেরা তারকাদের ফেরত পেয়ে শুরু থেকেই গোছানো ফুটবল উপহার দেয় টমাস টুখেলের দল। লাইপজিগকে রীতিমতো উড়িয়ে দেয় তারা।
মাত্র ১১ বছর আগে ফুটবলে পথচলা শুরু করা লাইপজিগ চমক জাগানোর চেষ্টা করে এই ম্যাচেও। সুযোগও পেয়েছিল তারা, কিন্তু বড় ম্যাচের অভিজ্ঞতার অভাবে সাফল্য মেলেনি। প্রতিপক্ষকেও পারেনি আটকে রাখতে। ম্যাচের শুরুতে মার্কিনিয়োসের গোলে এগিয়ে যায় পিএসজি। শেষ দিকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। আর দ্বিতীয়ার্ধে তৃতীয় গোলটি করে লাইপজিগের স্বপ্নের কফিনে শেষ পেরেকটি ঠুকে দেন হুয়ান বের্নাত। এরই সাথে শেষ হয় একের পর এক বিস্ময়ের জন্ম দেওয়া লাইপজিগের পথচলা। করোনাভাইরাসের প্রভাবে এক লেগের নক-আউট পর্বের শেষ ষোলোয় ইংলিশ দল টটেনহ্যাম হটস্পার ও কোয়ার্টার-ফাইনালে স্প্যানিশ দল অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদকে হারায় জার্মান দলটি।
দ্বিতীয় সেমি-ফাইনালে গতকাল রাতেই মুখোমুখি হয়েছে বায়ার্ন মিউনিখ ও অলিম্পিক লিওঁ। এই ম্যাচের বিজয়ীর বিপক্ষে আগামী রোববার শিরোপা লড়াইয়ে নামবে পিএসজি। এতক্ষণে নিশ্চই জেনেও গেছেন কারা হচ্ছে টমাস টুখেলের দলের প্রতিপক্ষ।
ইতিহাসে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে পা রাখা দলটির সামনে এখন অধরা ইউরোপ সেরার মুকুটের হাতছানি। ‘মুন বুটে’ পা নিয়ে ডাগআউটে বসেছিলেন কোচ টুখেল, তবে মুখে ছিল চওড়া হাসি। আর নেইমার-এমবাপেদের উদযাপন তো ছিল বাঁধভাঙা। এই উদযাপনই কাল হতে রূপকথার পারে অন্যতম কারিগর নেইমারের। অতি উচ্ছ¡াস প্রকাশ করতে গিয়ে বর্তমান পরিস্থিতিতে বদলে যাওয়া নিয়ম কানুন ভুলে বসেছেন এ ব্রাজিলিয়ান। আর তাতেই নিষেধাজ্ঞায় পড়তে পারেন হালের অন্যতম সেরা এ তারকা।
বিশ্বব্যাপী মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে চলতি মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে অনেক বদলই হয়েছে। এক লেগে খেলে হচ্ছে। অনেকটা বিশ্বকাপের আদলে। ম্যাচে উদযাপনেও রয়েছে নানা বিধিনিষেধ। সামাজিক দ‚রত্ব মানার কথা রয়েছে। তবে ঝুঁকি এড়াতে জার্সি বদল সম্প‚র্ণ নিষিদ্ধ করে দিয়েছে উয়েফা। কিন্তু সে ভুলটাই করেছেন নেইমার। ম্যাচ শেষে এক পর্যায়ে নেইমারের কাছে এগিয়ে আসেন আর লাইপজিগের মার্সেল হালস্টেনবার্গ। নেইমারের সঙ্গে জার্সি বদলের ইচ্ছা পোষণ করেন। না করতে পারেননি এ ব্রাজিলিয়ান। তাতেই ঘটে বিপত্তি। করোনাভাইরাসের কারণে উয়েফার নতুন নিয়মের ৩১ নম্বর অনুচ্ছেদ অনুযায়ী নিয়ম ভঙ্গ করেছেন তিনি। তাতে শাস্তি পেতে হতে পারে নেইমারকে।
আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের সংবাদ অনুযায়ী, ইচ্ছাকৃত এমন কাজ করলে এর সর্বোচ্চ শাস্তি এক ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা। পাঠানো হবে কোয়ারেন্টিনে। আর এমনটা হলে ঐতিহাসিক ফাইনালেও নাও পাওয়া যেতে পারে পিএসজির সেরা তারকাকে। তবে ভুলবশত হলে শাস্তির পরিমাণ কম হতে পারে। তবে এখনও জানা যায়নি শেষ পর্যন্ত কি হতে যাচ্ছে নেইমারের কপালে। ম্যাচে অসাধারণ খেলেছেন নেইমার। ইতিহাস গড়তে ফাইনালে তার উপস্থিতি দলের জন্য খুবই জরুরী। এমন ম্যাচে তিনি নিষেধাজ্ঞায় পড়লে বড় ধাক্কা খেতে পারে দলটি।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চ্যাম্পিয়ন্স লিগ


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ