Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

দুই ব্রোকারেজ হাউজকে ৭ লাখ টাকা জরিমানা

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২০ আগস্ট, ২০২০, ৭:৩৯ পিএম

সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ রুল লঙ্ঘন করায় চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) দুটি ব্রোকারেজ হাউজকে সাত লাখ টাকা জরিমানা করেছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। বৃহস্পতিবার (২০ আগস্ট) অনুষ্ঠিত কমিশন সভায় এ জরিমানা করা হয়।

জরিমানার শিকার ব্রোকারেজ হাউজ দুটি হলো-এন ডি সিকিউরিটিজ লিমিটেড এবং ফার্স্টলিড সিকিউরিটিজ লিমিটেড। এরমধ্যে এন ডি সিকিউরিটিজ লিমিটেডকে পাঁচ লাখ টাকা এবং ফার্স্টলিড সিকিউরিটিজ লিমিটেডকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

বিএসইসি জানিয়েছে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের ২০১৮ সালের মে মাসের প্রতিবেদনে এন ডি সিকিউরিটিজের বিরুদ্ধে বিভিন্ন আইন লঙ্ঘনের তথ্য উঠে আসে। আর ফার্স্টলিড সিকিউরিটিজের বিরুদ্ধে ২০১৭ সালের নভেম্বর মাসের পরিদর্শন প্রতিবেদনে আইন লঙ্ঘনের তথ্য উঠে আসে।

এন ডি সিকিউরিটিজ

গ্রাহকদের ট্রেড সম্পাদনের জন্য কনফার্মেশন নোটিশ না দিয়ে সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ রুল ১৯৮৭-এর ৪(৫) ধারা ভঙ্গ করেছে। পে ইন সিøপ সংরক্ষণ না করে ডিপজিটরি (ব্যবহারিক) প্রবিধানমালা ২০০৩-এর প্রবিধি-৫৩ এর তফসিল ৫(২)(১) ভঙ্গ করেছে। কোম্পানির আলাদা ওয়ার্ক স্টেশনে ডিলার কোডে ট্রেড সম্পাদন না করে ২০০৮ সালের ১২ আগস্ট বিএসইসির দেয়া নির্দেশনা লঙ্ঘন করেছে। কনসলিডেটেড কাস্টমার ব্যাংক অ্যাকাউন্টের (সিসিএবি) অর্থ কোম্পানির নিজ নামে আইপিও শেয়ার ক্রয়ের জন্য ব্যবহার করে সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ রুল ১৯৮৭-এর রুল ৮ এ(১) ভঙ্গ করেছে। একই সঙ্গে কোম্পানি পাঁচ লাখ টাকার বেশি নগদ গ্রহণ করে সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ রুল ১৯৮৭-এর রুল ৮ এ(১)(সিসি)(র) ভঙ্গ করেছে।

ফার্স্টলিড সিকিউরিটিজ

কোম্পানির ব্যবসায়িক সত্যতা, সঠিকতা ও হালনাগাদ অবস্থা বিবেচনার জন্য হিসাব বই ও অন্যান্য ডকুমেন্টস প্রস্তুত ও সংরক্ষণ না করে সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ রুল ১৯৮৭-এর ৮(১) ধারা ভঙ্গ করেছে। কোম্পানির একজন অনুমোদিত প্রতিনিধিকে তার নিজের নামে সিকিউরিটিজ ক্রয়-বিক্রয় করতে দিয়ে ‘ডিড অফ এগ্রিমেন্ট অফ অথরাইজড রিপ্রেজেন্টেটিভ’ এর ৫ ধারা লঙ্ঘন করেছে।

কোম্পানির কনসলিডেটেড কাস্টমার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ঘাটতি থাকার পাশাপাশি কনসলিডেটেড কাস্টমার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে ডিলার অ্যাকাউন্টে অর্থ স্থানান্তর করা হয়েছে। একই সঙ্গে একাধিক কনসলিডেটেড কাস্টমার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট পরিচালনা করা হয়েছে। এতে সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ রুল ১৯৮৭-এর রুল ৮এ(১) এবং (২) ভঙ্গ হয়েছে। ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে দ্যা রিক্স বেজড ক্যাপিটাল অ্যাডেকোয়েসি রেশিও ১:২০ পরিপালন করেনি। এর মধ্যেমে সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ রুল ১৯৮৭-এর রুল ১৫(১) ভঙ্গ করেছে। কোম্পানিটি পারিচালক ও কর্মকর্তাদের ঋণ দিয়েছে। এর মাধ্যমে ২০১০ সালের ২৩ মার্চে দেয়া বিএসইসি’র নির্দেশনা লঙ্ঘন করেছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জরিমানা

১৫ অক্টোবর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ