Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

ফেসবুককে তলব ভারতীয় সংসদীয় কমিটি

‘সোশ্যাল মিডিয়ার অপব্যবহার’

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ আগস্ট, ২০২০, ১২:০০ এএম

বিজেপির হয়ে কাজ করছে ফেসবুক। সংস্থা হিসাবে এই দায় নিয়ে ফেসবুকের তরফে উত্তর শুনতেই শশী থারুরের নেতৃত্বে তৈরি তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রকের সংসদীয় স্ট্যান্ডিং কমিটির সামনে ডাক পড়ল সংস্থার প্রতিনিধির। আগামী ২ সেপ্টেম্বর এই হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। হেট স্পিচ থেকে শুরু করে বিজেপির সুরে কথা বলার অভিযোগ, সব কিছু নিয়েই সেখানে প্রশ্নের সামনে পড়তে হতে পারে সংস্থাকে। তার আগে এই সংসদীয় কমিটি জম্মু কাশ্মীরে ইন্টারনেট শাটডাউন নিয়েও আলোচনা করবে বলে শোনা যাচ্ছে। সেই কারণে সেখানকার প্রশাসনিক প্রতিনিধিদের ডেকে পাঠানো হয়েছে। ফেসবুকের পাশাপাশি, সংসদীয় স্ট্যান্ডিং কমিটির সামনে তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রকের প্রতিনিধিদেরও উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে। 

কারণ, সেখানে আলোচিত হবে, কীভাবে দেশের সাধারণ মানুষের স্বার্থ ও স্বাধীনতা সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারের ক্ষেত্রে রক্ষা করা যায় ও কীভাবে সোশ্যাল মিডিয়ার অপব্যবহার রোধ করা যায়। এই আলোচনায় ডিজিটাল ক্ষেত্রে মহিলাদের নিরাপত্তার বিষয়ে জোর দেওয়া হতে পারে বলেও শোনা যাচ্ছে। যদিও এই শমন জারি করার পরে সোশ্যাল মিডিয়া সংস্থার পক্ষ থেকে সরাসারি কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। এর আগেই বিজেপি নেতা নিশিকান্ত দুবে একটি চিঠি লেখেন লোকসভার স্পিকারের কাছে। তার অভিযোগ ছিল, তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রকের স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান হিসাবে শশী থারুর তার ক্ষমতার অপব্যবহার করছেন এবং রাজনৈতিক উদ্দেশ্য চরিতার্থ করছেন। কিন্তু তারপরেই জারি করে দেওয়া হল এই শমন।
ওয়াল স্ট্রিট জার্নালে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়, যেখানে বলা হয়, বিজেপির পক্ষ নিয়ে হেট স্পিচ বন্ধ করার বা ছড়িয়ে দেওয়ার বিষয়টি পরিচালনা করছে ফেসবুক। সেই প্রতিবেদন উদ্ধৃত করে ট্যুইট করেন রাহুল গান্ধী। তারপর সরব হন শশী থারুর। স্ট্যান্ডিং কমিটির প্রধান হিসাবে তিনি বলেন, এই বিষয়ে ফেসবুকের মত শোনা দরকার। তারপরই বিজেপির সঙ্গে সরাসরি দ্বন্দ্ব তৈরি হয় কংগ্রেসের। এই ইস্যুতে দু’পক্ষ দু’মেরুতে দাঁড়িয়ে আছে আপাতত। সূত্র : নিউজ১৮।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফেসবুক

৬ নভেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন