Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ৮ কার্তিক ১৪২৭, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

বন্যায় নওগাঁ’র ৫৬৩টি পুকুর দিঘী ভেসে গেছে ঃ ২৫ কোটি ৫ লক্ষ টাকার ক্ষতি

নওগাঁ জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২২ আগস্ট, ২০২০, ৩:০১ পিএম

নওগাঁ জেলায় চলতি বছরের বন্যায় ৫ উপজেলায় ৩১৮ জন চাষির ৫৬৩টি পুকুর এবং দিঘী ভেসে গেছে। এর ফলে পুকুর ও দিঘীর মালিকদের ২৫ কোটি ৫ লক্ষ ২৪ হাজার টাকা ক্ষতি হয়েছে।
জেলা মৎস্য কর্মকর্তা ফিরোজ আহাম্মেদ জানিয়েছেন জেলায় ৩১৮ ব্যক্তির মালিকানাধীন ৩৭১ দশমিক ৩৭ হেক্টর জলাশয়ের আয়তন বিশিষ্ট এসব পুকুরের ২৪ কোটি ৫৪ লক্ষ ২০ হাজার টাকা মুল্যের ১ হাজার ৬শ ৫৮ মেট্রিক টন মাছ, ৫০ লক্ষ ৪ হাজার টাকা মুল্যের ৩৩ লক্ষ ২ হাজার পোনা ভেসে গেছে। এ ছাড়াও ১ লক্ষ টাকা মুল্যের অবকাঠামোগত ক্ষতি হয়েছে।
সূত্রমতে সদর উপজেলায় ৭৯ জন মালিকের ১৩৪টি পুকুর দিঘী ভেসে গেছে। ৪৭ দশমিক ৮১ হেক্টর জলা বিশিষ্ট এসব পুকুর দিঘী থেকে ২ কোটি ৪৩ লক্ষ টাকা মুল্যের ১৭৫ দশমিক ৫১ মেট্রিক টন মাছ বন্যার পানিতে ভেসে গেছে।
মান্দা উপজেলায় ৫০ জন মালিকের মোট ৭০টি পুকুর দিঘী ভেসে গেছে। ১৪ হেক্টর জলা বিশিষ্ট এসব পুকুর দিঘী থেকে ৫১ লক্ষ ২৪ হাজার টাকা মুল্যের ৪২ দশমিক ৭০ মেট্রিকটন মাছ ভেসে গেছে।

রানীনগর উপজেলায় চলতি বছরের বন্যায় ২৯ ব্যক্তির মালিকানাধীন মোট ৩২টি পুকুর দিঘী বন্যার পানিতে ভেসে গেছ। মোট ৬ দশমিক ৯৬ হেক্টর আয়তনের জলা বিশিষ্ট এসব পুকুর থেকে ১৫ লক্ষ ৭৪ হাজার টাকা মুল্যের ১৩ দশমিক ১২ মেট্রিকটন মাছ ভেসে গেছে।
আত্রাই উপজেলায় ১৪৬ ব্যক্তির মালিকানাধীন মোট ৩০৭টি পুকুর দিঘী ভেসে গেছে। এর ফলে ২৮৫ হেক্টর জলা বিশিষ্ট এসব পুকুর দিঘী থেকে ২১ কোটি ১৫ লক্ষ টাকা মুল্যের ১ হাজার ৪শ ১০ মেট্রিকটন মাছ এবং ৫০ লক্ষ টাকা মুল্যের ৩৩ লক্ষ পোনা ভেসে গেছে।
পোরশা উপজেলায় ১৪ ব্যক্তির মালিকানাধীন ২০টি পুকুর দিঘী ভেসে গেছে। এর ফলে ১৭ দশমিক ৬০ হেক্টর আয়তনের জলা বিশিষ্ট পুকুর দিঘী থেকে ২৯ লক্ষ ২ হাজার টাকা মুল্যের ১৭ দশমিক ২০ মেট্রিকটন মাছ, ৪ হাজার টাকা মুল্যের ২ হাজার পোনা ভেসে গেছে এবং ১ লক্ষ টাকার অবকাঠামোর ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বন্যায় ক্ষতি


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ