Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

দর্শকের জন্য স্মিথের হাহাকার

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ আগস্ট, ২০২০, ১২:০১ এএম

সর্বশেষ ইংল্যান্ড সফরে গ্যালারিতে ইংলিশ দর্শকদের দুয়ো শুনতে হয়েছিল স্টিভেন স্মিথকে। তাতে তেতে উঠার বারুদ পেয়ে চার টেস্টেই করেছিলেন ৭৭৪ রান। তার ব্যাটে এমন দাপট শেষ পর্যন্ত বিরুদ্ধ সমর্থকদের তালিও এনে দিয়েছিল। এবার আরেকটি ইংল্যান্ড সফরে দর্শকপূর্ণ চেনা আবহ মিস করবেন অস্ট্রেলিয়ার সেরা ব্যাটসম্যান।
করোনাভাইরাস মহামারির প্রকোপে এবার অস্ট্রেলিয়ার ইংল্যান্ড সফর হবে অচেনা আবহে। সুরক্ষিত পরিবেশে খেলা হবে দর্শকশ‚ন্য মাঠে। তিন টি-টোয়েন্টি ও তিন ওয়ানডে সিরিজ খেলতে গতকালই ইংল্যান্ডের ফ্লাইট ধরেছে ২১ সদস্যের অস্ট্রেলিয়া দল। ইংল্যান্ড রওয়ানা দেওয়ার আগে পার্থ বিমানবন্দরে সামাজিক দ‚রত্ব রেখে গণমাধ্যমের সামনে আসেন স্মিথ। করোনার পর প্রথম কোন ক্রিকেট সিরিজ খেলতে যাওয়ার আনন্দের পাশাপাশি দর্শকদের জন্য আফসোস ঝরেছে বিশ্বের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যানের কণ্ঠে, ‘আমি ওখানে ব্যাট করতে পছন্দ করি। দুর্ভাগ্যজনকভাবে আমাকে বাড়তি জ্বালানি দেওয়ার জন্য কোন দর্শক মাঠে থাকবে না।’
ভাড়া করা উড়োজাহাজে পার্থ থেকে পূর্ব মিডল্যান্ডে পৌঁছাবে অস্ট্রেলিয়া দলের বিমান। সেখানে ডার্বি ক্রিকেট গ্রাউন্ডের পাশের হোটেলে থেকে ক্যাম্প চালাবেন তারা। এরপর তিন ঘণ্টার বাস ভ্রমণ শেষে পৌঁছাবেন সাউদাম্পটনের এইজেস বোলে। যেখানের মাঠের সঙ্গে যুক্ত থাকা হোটেলেই থাকবে অসি দল। এই মাঠেই টি-টোয়েন্টি ও ৫০ ওভারের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে অ্যারন ফিঞ্চের দল। ৪ সেপ্টেম্বর সাউদাম্পটনের এই মাঠেই শুরু হবে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ, ‘গত কদিন ইংল্যান্ডের টেস্ট খেলা দেখছিলাম, এবং আমরা জানি সাদা বলের ক্রিকেটে গত কয়েক বছর থেকে তারা কতটা উন্নত। এটা খুব ভাল একটা সিরিজ হবে।’ টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষ করে ওয়ানডে সিরিজ খেলতে ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ড যাবে অস্ট্রেলিয়া। সেখানেও মাঠ সংলগ্ন হোটেলে থাকবে তারা।
গত মার্চ মাসে করোনা মহামারির শুরুর দিকে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ শুরু করেছিল অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু দর্শকশ‚ন্য মাঠে এক ম্যাচ হওয়ার পরই সিরিজটি করোনার কারণে বাতিল হয়ে যায়। লম্বা সময় খেলার বাইরে থাকলে স্মিথ মনে করছেন আগের ছন্দে দ্রুতই ফিরবেন তারা, ‘আমরা ভাগ্যবান যে খেলায় ফিরতে পারছি। যা করা দরকার তা আমাদের করতে হবে। একতাবদ্ধ হয়ে, সহায়তাপরায়ন হয়ে এগুতে হবে।’ ইংল্যান্ড রওয়ানা দেওয়ার আগে স্ত্রীর সঙ্গে বিদায়ের ছবি ইন্সটাগ্রামে পোস্ট করেন স্মিথ, ওয়ার্নাররা। করোনার থাবার মাঝে লম্বা সময় পরিবারের কাছ থেকে এই দূরে থাকাও একটা চ্যালেঞ্জ স্মিথের কাছে, ‘আমি নিশ্চিত এটা কঠিন মুহূর্ত সবার জন্যই। কারণ বেশ বড় একটা সময় পরিবারের বাইরে থাকতে হবে।’ ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ শেষ করেই আইপিএল খেলতে সংযুক্ত আরব আমিরাতে যেতে হবে স্মিথদের।

ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া সিরিজের সূচি
সেপ্টেম্বর ৪ : প্রথম টি-২০, সাউদাম্পটন
সেপ্টেম্বর ৬ : দ্বিতীয় টি-২০, সাউদাম্পটন
সেপ্টেম্বর ৮ : তৃতীয় টি-২০, সাউদাম্পটন
সেপ্টেম্বর ১১ : প্রথম ওয়ানডে, ম্যানচেস্টার
সেপ্টেম্বর ১৩ : দ্বিতীয় ওয়ানডে, ম্যানচেস্টার
সেপ্টেম্বর ১৬ : তৃতীয় ওয়ানডে, ম্যানচেস্টার



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন