Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

পিএসজিকে কাঁদিয়ে বায়ার্নের ষষ্ঠ শিরোপা

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ আগস্ট, ২০২০, ৬:৩৯ এএম

অপেক্ষা ফুরালো। এর আগের প্রতি মৌসুমে জুনের মধ্যেই জানা যেত ইউরোপের সেরা দলটির নাম। এবার করোনাভাইরাসের কারণে অনাকাক্সিক্ষত বিরতি ইউরোপিয়ান মৌসুমকে টেনে এনেছে আগস্টে। বহু প্রতীক্ষার পর শেষ হলো উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা নিষ্পত্তি।
রোববার রাতে পর্তুগালের রাজধানী লিসবনের স্তাদিও দ্য লুজে খুব প্রয়োজনের সময় যেন গোল করতে ভুলে গেল পিএসজি। দুই বড় ভরসা নেইমার-কিলিয়ান এমবাপে রইলেন নিজেদের ছায়া হয়ে। দুয়ারে গিয়েও ইতিহাস গড়া হলো না পিএসজির। আসর জুড়ে দুর্দান্ত ফুটবল খেলা বায়ার্ন মিউনিখ উজ্জ্বল শেষ বেলাতেও। ফরাসি চ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ষষ্ঠ শিরোপা জিতল হান্স ফ্লিকের দল। ১-০ গোলের জয়ে ট্রেবল জয়ের উচ্ছ্বাসে মাতে বায়ার্ন। প্রথমবার ফাইনালে উঠে হারের বেদনা নিয়ে মাঠ ছাড়ে টমাস টুখেলের দল।
এই প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হওয়া ক্লাবগুলোর তালিকায় যৌথভাবে তৃতীয় স্থানে উঠে এলো দলটি। সমান সংখ্যক শিরোপা আছে লিভারপুলেরও। প্রথম দুটি স্থান যথাক্রমে রিয়াল মাদ্রিদ (১৩) ও এসি মিলানের (৭) দখলে।
এক দল শেষ ১০ ম্যাচে গোল করেছে ৪২টি, আরেক দল চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শেষ কবে জালের দেখা পায়নি, সেটাই সবাই ভুলতে বসেছে। আক্রমণভাগে ছন্দে থাকা দারুণ সব ফরোয়ার্ড থাকার পরও প্রথমার্ধে খুব ভালো সুযোগ তৈরি করতে ভুগলো বায়ার্ন ও পিএসজি।
প্রথমে সুযোগ পেয়েও বারপোস্টে বল মেরে তা নষ্ট করেন বায়ার্নের গোলমেশিন রবের্ত লেভান্দোভস্কি। পরে ফাঁকা পোস্টে পেয়েও জাল ছোঁয়াতে না পারার আগুনে পুড়েছেন পিএসজির ফলাসি তারকা এমবাপেও। তবে দ্বিতীয়ার্ধের প্রথম দিকেই দুই দলের মাঝে ব্যবধান গড়ে দিয়েছে এই পিএসজিরই সাবেক ফুটবলার কিংসলে কোমানের একমাত্র গোল। আর তাতে ষ্ঠবারের মতো ইউরোপ সেরার মুকুট পরল জার্মান চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন।
প্রতিযোগিতাটিতে টানা ৩৪ ম্যাচে গোল করার পর জালের দেখা পেতে ব্যর্থ হলো পিএসজি। ইউরোপ সেরার মঞ্চে প্রথমবারের মতো ফাইনাল খেলতে আসা দলের দুর্দশা দীর্ঘায়িত হলো আরও।
এই জয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে দারুণ এক মাইলফলকও স্পর্শ করেছে বায়ার্ন। ইউরোপ সেরা প্রতিযোগিতায় বুন্দেসলিগার দলটি পূরণ করেছে ৫০০ গোলের বৃত্ত। ম্যাচের ৫৯তম মিনিটে জশুয়া কিমিচের বাড়ানো বলে দূরের পোস্টে থাকা কিংসলে কোমান হেডে জাল খুঁজে নেন।
চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সবচেয়ে বেশি গোল করা ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ। এ পর্যন্ত ৫৬৭ গোল করেছে প্রতিযোগিতাটির সর্বোচ্চ ১৩ বারের চ্যাম্পিয়ন দলটি। ৫১৭ গোল নিয়ে এ তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে আছে বার্সেলোনা। এবার তারা কোয়ার্টার-ফাইনালে বায়ার্নের কাছে ৮-২ ব্যবধানে হেরে ছিটকে পড়ে।
৫০০ গোল নিয়ে তৃতীয় স্থানে থাকা বায়ার্নের চেয়ে ঢের পিছিয়ে আছে চতুর্থ স্থানে থাকা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের দলটির গোল ৩৭৩টি। ৩০৬ গোল নিয়ে পঞ্চম স্থানে আছে সেরি আর দল জুভেন্টাস।



 

Show all comments
  • আমিনুল ইসলাম ২৪ আগস্ট, ২০২০, ৮:২৮ এএম says : 0
    বায়ার্নকে অভিনন্দন
    Total Reply(0) Reply
  • রাজিবুল হাসান ২৪ আগস্ট, ২০২০, ৮:২৮ এএম says : 0
    নেইমার ও এমবাপ্পের জন্য সমবেদনা
    Total Reply(0) Reply
  • মাহমুদা ২৪ আগস্ট, ২০২০, ১১:১৯ এএম says : 0
    এরকমটা প্রত্যাশা করি নাই
    Total Reply(0) Reply
  • ইলিয়াস ২৪ আগস্ট, ২০২০, ১১:২০ এএম says : 0
    খুব কষ্ট পেলাম
    Total Reply(0) Reply
  • তুহিন ২৪ আগস্ট, ২০২০, ১১:২০ এএম says : 0
    এই জয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে দারুণ এক মাইলফলকও স্পর্শ করেছে বায়ার্ন।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চ্যাম্পিয়ন্স লিগ


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ