Inqilab Logo

রোববার, ২৯ মে ২০২২, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৭ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

হত্যার উৎস পাওয়া গেছে

প্রদীপ-লিয়াকত-নন্দ আবার রিমান্ডে মামলার তদন্তে বেশ অগ্রগতি হয়েছে : র‌্যাব

কক্সবাজার ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৫ আগস্ট, ২০২০, ১২:০১ এএম

তোলপাড় করা মেজর (অব.) সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যার ‘উৎস ও কারণ’ খুঁজে পেয়েছে বলে জানা গেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটি। মামলার তদন্তকারী সংস্থা র‌্যাব জানিয়েছে, সিনহা হত্যা মামলার বেশ অগ্রগতি হয়েছে। আসামীরা রিমান্ডে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে। তবে এখন কিছু বলা যাচ্ছেনা।

আসামীদের আরো জিজ্ঞাসাবাদের প্রয়োজন আছে। এদিকে র‌্যাবের রিমান্ডে থাকা প্রদীপ, লিয়াকত, নন্দ দুলালকে ৭ আসামীর আবার ৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। ঈদুল আহজার আগের দিন ৩১ জুলাই পুলিশের গুলিতে মেজর (অব.) সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যার ‘উৎস ও কারণ’ সম্পর্কে নিশ্চিত হয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটি। কমিটি মনে করছে, সেখানে যা ঘটেছে তা অনাকাঙ্খিত ও দুর্ভাগ্যজনক। ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনা এড়াতে কমিটি তাদের প্রতিবেদনে সুনির্দিষ্ট মতামত তুলে ধরবে বলে জানা গেছে তদন্ত কমিটি সূত্রে। এদিকে মামলার তদন্তকারী সংস্থা র‌্যাবের দায়িত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তা এএসপি খায়রুল ইসলাম বলেন, আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে সিনহা হত্যা মামলার বেশ অগ্রগতি হয়েছে। তবে নিরপেক্ষ প্রভাবমুক্ত তদন্তের স্বার্থে আসামীদের আরো জিজ্ঞাসবাদ করা দরকার।

সূত্রমতে পূর্বনির্ধারিত ৩১ আগস্টের মধ্যেই তদন্ত কমিটি সরকারের কাছে তাদের প্রতিবেদন জমা দেবে। তবে তার আগে টেকনাফ থানার সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশকে জিজ্ঞাসাবাদ করবেন কমিটির সদস্যরা। এখন পর্যন্ত ৬৮ জনের আনুষ্ঠানিক বক্তব্য নিয়েছে তদন্ত কমিটি। তাদের সবার বক্তব্য রেকর্ড করা হয়েছে। অনানুষ্ঠানিকভাবে আরও অনেকের সঙ্গে কথা বলেছেন কমিটির সদস্যরা।

ওই সূত্রমতে কমিটি গুছিয়ে এনেছেন তদন্ত কাজ। ঘটনার উৎস ও কারণ জানা গেছে। ঘটনাটি তাৎক্ষণিক নাকি পরিকল্পিত ছিল- এর উত্তর ও পেয়েছেন তদন্ত কমিটি। তবে এটা এখনই মিডিয়াকে বলে দেওয়া ঠিক হবে না।
যেসব উত্তর পাওয়া গেছে তার আলোকে সর্বসম্মত সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে এখন নিজেদের মধ্যে আরও আলোচনা চালাবে কমিটির সদস্যরা। প্রাপ্ত তথ্য নিজেদের মধ্যে বিশ্নেষণের মধ্য দিয়ে সবার কাছে গ্রহণযোগ্য সিদ্ধান্তে আসতে চায় তদন্ত কমিটি।

গত ৩১ জুলাই রাতে কক্সবাজারের মেরিন ড্রাইভে এপিবিএনের চেকপোস্টে পুলিশ পরিদর্শক লিয়াকত আলীর গুলিতে সিনহা নিহত হন। এ ঘটনা তদন্তে মিজানুর রহমানকে প্রধান করে একটি কমিটি গঠন করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। তাদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার সময়সীমা এক সপ্তাহ বাড়িয়ে ৩১ আগস্ট করেছে মন্ত্রণালয়।

তদন্ত কমিটির একজন কর্মকর্তা জানান, এই তদন্তে কে গুলি করেছে সেটা বের করার কিছু ছিল না। কারণ যিনি গুলি করেছেন, সেটা সবার কাছে শুরু থেকেই পরিস্কার ছিল। লিয়াকত যে গুলি করেছেন, সেটা সে আনুষ্ঠানিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকারও করেছেন। এই ঘটনায় যেটা তদন্তের বিষয় তা হলো, গুলিটা কেন করা লাগল? গুলি এড়ানো যেত কিনা। এটা পরিকল্পিত নাকি তাৎক্ষণিক। গুলির ঘটনার উৎস ও কারণ কী- এসব প্রশ্নের উত্তর তদন্ত কমিটির কাছে পরিষ্কার হয়েছে ।

আবার রিমান্ড : মেজর (অব.) সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যা মামলায় ওসি প্রদীপ, লিয়াকত ও নন্দ দুলালসহ ৭ পুলিশের আরো ৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। গতকাল সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যা মামলায় ওসি প্রদীপ, লিয়াকত ও নন্দ দুলালসহ ৭ পুলিশের আরো ৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। আদালত থেকেই ওসি প্রদীপ, লিয়াকত ও নন্দ দুলালকে আবারো র‌্যাব হেফাজতে নিয়ে যায়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তার আবেদনের প্রেক্ষিতে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তামান্না ফারাহ এই আদেশ দেন। সিনহা হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা র‌্যাব-১৫ এর এএসপি খায়রুল ইসলাম সাংবাদিকদের এই তথ্য জানান। তিনি বলেন, সিনহা হত্যা মামলার বেশ অগ্রগতি হয়েছে। কিন্তু তদন্তের স্বার্থে আসামীদের আরো জিজ্ঞাবাদ করা দরকার। তাই রিমান্ড শেষে গত সোমবার আদালতে তোলা প্রধান তিন আসামী ওসি প্রদীপ, লিয়াকত ও নন্দলাল এবং ইতোমধ্যে রিমান্ড সম্পন্ন হওয়া চার পুলিশ সদস্যের আরো সাত দিন করে রিমান্ড আবেদন করি। কিন্তু আদালত সাত দিন নাকচ করে চার দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন। অন্য চার পুলিশ সদস্যরা হলো- বহিস্কৃত কনস্টেবল সাফানুর করিম, কনস্টেবল কামাল হোসেন, কনস্টেবল আবদুল্লাহ আল মামুন ও এএসআই লিটন মিয়া।



 

Show all comments
  • সাইফ ২৪ আগস্ট, ২০২০, ২:০৯ পিএম says : 0
    আগেই বলেছি বিছার কিছুই হবেনা, যেভাবেই হোক আসামীদেরকে বাছিয়ে দেয়া হবে আর হ্যাঁ একটা ভালো কাজ এটা হবে মরহুম সিনহাকে মিথ্যে মামলা থেকে রেহাই দেয়া হবে এটা ঠিক। আল্লাহ্‌ আমাদের দেশকে রক্ষা করুণ।
    Total Reply(0) Reply
  • Ibrahim ২৪ আগস্ট, ২০২০, ২:৩৯ পিএম says : 0
    বাংলাদেশের নাটক সিনেমার চেয়ে অনেক ভালো ও উন্নত
    Total Reply(0) Reply
  • ম নাছিরউদ্দীন শাহ ২৪ আগস্ট, ২০২০, ২:৪৫ পিএম says : 0
    যদি মেজর সিনহা হত‍্যাকান্ড সেনাবাহিনী পুলিশ রক্তক্ষয়ী সংঘাতময় পরিস্থিতি সৃষ্টি হতো?? সারাদেশে আইন শৃংখলা শান্তি শৃংখলার চরম অবনতি হতো? তার দায় দায়িত্ব কে নিতো?????। সংবাদ শিরোনাম হতো আন্তর্জাতিক গভীর চক্রান্ত দেশের বিরুদ্ধে সরকারের বিরুদ্ধে ইত্যাদি ইত্যাদি। তাই তদন্ত কমিটি নেতৃত্বে জারা আছেন রাষ্ট্রের গোয়েন্দা সহ দেশের অভিজ্ঞ মানুষের সাথে অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে প্রতিবেদন দিন সময় আরো লাগলে নিন। পকৃত ঘটনা সমগ্রজাতি জানুক এটি কি রাষ্ট্রের সাথে আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র কিনা। ধন্যবাদ
    Total Reply(0) Reply
  • খাইরুল ইসলাম ২৪ আগস্ট, ২০২০, ২:৪৫ পিএম says : 0
    তদন্ত কমিটি এখন পেয়েছে পাবলিক তো আগে থেকেই জানে
    Total Reply(0) Reply
  • আশিক ২৪ আগস্ট, ২০২০, ২:৪৬ পিএম says : 0
    যাক শুনে খুব ভালো লাগলো এখন তাড়াতাড়ি তাদের শাস্তির ব্যবস্থা করুন
    Total Reply(0) Reply
  • md. Tareque ২৪ আগস্ট, ২০২০, ৩:৫৩ পিএম says : 0
    oder sobar fasi cay na hole kono bicar holo na
    Total Reply(0) Reply
  • মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন তালুকদার ২৪ আগস্ট, ২০২০, ৮:৪৩ পিএম says : 0
    আল্লাহর ওয়াস্তে সত্য প্রকাশ করুন।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Shah Alam Khan ২৪ আগস্ট, ২০২০, ১০:৪৭ পিএম says : 0
    উপরের সংবাদের মূল বিষয় হচ্ছে, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটি মেজর (অবঃ) সিনহার হত্যার ‘উৎস ও কারণ’ খুঁজে পেয়েছে। কমিটি মনে করেছে, সেখানে যা ঘটেছে তা অনাকাঙ্খিত ও দুর্ভাগ্যজনক। ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনা এড়াতে কমিটি তাদের প্রতিবেদনে সুনির্দিষ্ট মতামত তুলে ধরবে বলে জানিয়েছে। নিন্দুকেরা বলেছেন, কমিটির এই কথা থেকে পরিষ্কার বুঝাযায় যায় সিনাহাকে হত্যা করা হয়েছে। কমিটি তদন্তের উপর এটুকুই মন্তব্য করে পুরো বিষয়টাকে বুঝিয়ে দিয়েছেন। এখন পাঠকেরা বুঝে নিবেন। আল্লাহ্‌ আমাকে সহ সবাইকে সত্য বলা, সত্য জানা, সত্য বুঝা ও সততার সাথে চলার ক্ষমতা প্রদান করুন। আমিন
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: তদন্ত কমিটি
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ