Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৫ কার্তিক ১৪২৭, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

আব্বাসীয় আমলের বিপুল পরিমাণ স্বর্ণমুদ্রার সন্ধান ইসরায়েলে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ আগস্ট, ২০২০, ২:২০ পিএম

ইসরায়েলি প্রত্নতাত্ত্বিকরা গত সোমবার জানিয়েছেন যে, সম্প্রতি তারা কেন্দ্রীয় শহর ইয়াভনের কাছে খননকাজের সময় ইসলামের প্রথম যুগের স্বর্ণমুদ্রার একটি সংগ্রহের সন্ধান পেয়েছেন, খবর এপি।

ইসরায়েলের পুরাকীর্তি কর্তৃপক্ষের প্রত্নতাত্ত্বিক লিয়াত নাদভ-জিভ এবং এলি হাদ্দাদ এক যৌথ বিবৃতিতে বলেন, ৪২৫টি সম্পূর্ণ স্বর্ণমুদ্রার সন্ধান পাওয়া গেছে, যা প্রায় ১১০০ বছর আগের আব্বাসীয় সময়কালের। এটি ‘অত্যন্ত বিরল’ এক সন্ধান।
গত সোমবার ইসরায়েলের অ্যান্টিকস অথরিটির প্রত্নতত্ত্ববিদরা জানান, মোট ৪২৫টি অতি দুর্লভ প্রাচীন স্বর্ণমুদ্রা পাওয়া গেছে। প্রতিটি মুদ্রা খাঁটি সোনার তৈরি। এর মধ্যে অধিকাংশই ১১০০ বছর আগের আব্বাসীয় আমলের।

অথরিটির অন্যতম মুদ্রা বিশেষজ্ঞ রবার্ট কুল জানান, উদ্ধার স্বর্ণমুদ্রাগুলোতে যে সংকেত বা চিহ্ন দেখা গেছে তা থেকে মনে করা হচ্ছে এগুলো আব্বাসীয় খিলাফতের স্বর্ণযুগের। যদিও এই বিষয়ে আরও গবেষণা এবং বিশ্লেষণের প্রয়োজন আছে।
রবার্ট কুল আরও বলেন, আব্বাসীয় খিলাফত সম্পর্কে এখনও বহু তথ্য আমাদের সামনে অজানা। উদ্ধার স্বর্ণমুদ্রা থেকে সে সময় সম্পর্কে আরও অনেক অজানা তথ্য জানা সম্ভব হবে।

উদ্ধার স্বর্ণমুদ্রাগুলো সে আমলে স্বল্পমূল্যের মুদ্রা ছিল বলে ইসরায়েলি বিশেষজ্ঞদের অভিমত। নবম শতাব্দীর শেষার্ধ্ব ছিল আব্বাসীয় খিলাফতে স্বর্ণযুগ। এই সময় সাম্রাজ্যের সর্বাধিক বিস্তার ঘটেছিল।

২০১৫ সালে দেশটির প্রাচীন বন্দর শহর সিয়েসারিয়ায় গুপ্তধনের সন্ধান পেয়েছিলেন জাভিকা ফায়ের নামে এক স্কুভা ডাইভার। সাগরের তলদেশে ঘুরে বেড়ানোর সময় ওই বিপুল সোনার মোহর আবিষ্কার করেন তিনি। সেবার প্রায় দুই হাজারটি সোনার মোহর আবিষ্কার হয়। সেগুলো ফাতেমীয় যুগের স্বর্ণমুদ্রা ছিল বলে গবেষণায় জানা যায়।



 

Show all comments
  • Chandrobindu ২৬ আগস্ট, ২০২০, ৪:২৯ পিএম says : 0
    তা হলেধরে নেওয়া যায় ঈসরায়েল মুসলমানদে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইসরাইল


আরও
আরও পড়ুন