Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৫ কার্তিক ১৪২৭, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

কথিত বন্দুকযুদ্ধের নামে প্রবাসী মাহমুদুর রহমানকে হত্যার অভিযোগে ওসি প্রদীপসহ ২৩ জনের নামে মামলা

কক্সবাজার ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৬ আগস্ট, ২০২০, ৫:৪৯ পিএম

জোরপূর্বক ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে পাঁচ লাখ টাকা নিয়ে আরো পাঁচ লাখ টাকা না দেয়ায় টেকনাফের মাহমুদুর রহমান নামের এক প্রবাসীকে কথিত বন্দুকযুদ্ধের নামে ক্রসফায়ারে হত্যার অভিযোগে টেকনাফ থানার সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশসহ ২৩ জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলার এজাহার দায়ের করা হয়েছে টেকনাফ থানায় ।

আজ বুধবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট টেকনাফ ৩ আদালতে এজাহারটি দায়ের করা হয়।

তবে বেলা ২টার দিকে শুনানী শেষে এজাহারটি রুজু না করে ওই ঘটনায় অন্য কোনো হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে কিনা তা জানাতে টেকনাফ থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

নিহত মাহমুদুর রহমানের ভাই নুরুল হোসাইন বাদি হয়ে এই এজাহার দায়ের করেন। বাদি পক্ষের আইনজীবি ইনসাফুর রহমান এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

এজাহারে বাদি জানান, গত বছরের ২৮ মার্চ টেকনাফ মৌলভীপাড়া আলী আকবর পাড়ার মিয়া হোসেনের পুত্র প্রবাসী মাহমুদুর রহমানকে থানার এসআই দীপকের নেতৃত্বে একদল পুলিশ আটক করে নিয়ে যায়।

পরে দীপক ও ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ক্রসফায়ার না দেয়ার শর্তে প্রবাসীর পরিবারের লোকজন থেকে ১০ লাখ টাকা দাবি করেন। পরিবার নিরুপায় হয়ে পাঁচ লাখ দেন। কিন্তু আরো পাঁচ লাখ টাকা দাবি করে পুলিশ। দাবিকৃত পাঁচ লাখ টাকা না দেয়ায় ৩১ মার্চ রাতে কথিত বন্দুকযুদ্ধের নামে ক্রসফায়ারের প্রবাসী মাহমুদুর রহমানকে হত্যা করা হয়।

মামলার এজাহারে এসআই দীপককে প্রধান ও বহিস্কৃত ওসি প্রদীপ কুমার দাশকে ২নং আসামী করে মোট ২৩জনকে আসামী করা হয়। এর মধ্যে ১৮ জন পুলিশ সদস্য বাকি পাঁচজন চৌকিদারসহ স্থানীয় লোকজন।

বাদি পক্ষের আইনজীবি ইনসাফুর রহমান বলেন, বাদির দায়ের করা ফৌজদারি এজাহারটি আমলে নেন। ওই কথিত বন্দুযুদ্ধ সংক্রান্ত মামলার এহাজারসহ সকল কাগজপত্র আগামী ৭ সেপ্টেম্বর আদালতে দাখিল করার জন্য টেকনাফ থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মামলা

১৪ অক্টোবর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন