Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৬ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

মসজিদে মাইকে আজান বন্ধের নির্দেশ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৯ আগস্ট, ২০২০, ২:১২ পিএম

নানা অজুহাতে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে মুসলিমদের অগ্রযাত্রাকে অনেক সনাতন ধর্মের মানুষ থামিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে। ভারতের মতো নানা অঞ্চলে তাদের তৎপরতা অব্যহত রয়েছে। এবার এক হিন্দু ধর্মাবলম্বী আজানে আপত্তি জানিয়ে কোটে আর্জি করে তা বন্ধের। তার আবেদনের প্রেক্ষিতে দক্ষিণ আফ্রিকার একটি মসজিদে মাইকে আজান বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। মসজিদটি বন্ধ করে দেওয়ারও আবেদন জানান চন্দ্র ইল্লোরি। অবশ্য এ ধরনের আদেশ দিতে অস্বীকৃতি জানান বিচারক এনগাদি।

ডারবানের কাজুলু-নাটাল হাইকোর্টের বিচারক সিডবেল এনগাদি এই আদেশ দেন বলে জানায় আলজাজিরা।

আদেশে বলা হয়, মসজিদের সড়কের বিপরীত পাশে থাকা ওই বাসিন্দার বাড়িতে যাতে আজানের শব্দ না যায়।

হিন্দু ধর্মাবলম্বী চন্দ্র ইল্লোরি দক্ষিণ আফ্রিকার ইসিপিঙ্গো সৈকত এলাকায় মাদ্রাসা তালেমুদ্দীন ইসলামিক ইনস্টিটিউটের বিপরীত দিকের বাসিন্দা। তার যুক্তি, আজানের শব্দ ‘তাকে নিজ সম্পত্তির মালিকানা ভোগ থেকে বঞ্চিত করে’।

তবে আদালতের এই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করার কথা জানিয়েছে মসজিদ কর্তৃপক্ষ।

দক্ষিণ আফ্রিকার মানবাধিকার কমিশন জানায়, আদালতের এ রায়ে সমতা এবং ধর্মপালনের স্বাধীনতাসহ কয়েকটি সাংবিধানিক অধিকার লঙ্ঘিত হয়েছে।

এছাড়া চন্দ্র ইল্লোরি আরও অভিযোগ করেন, আজানের শব্দে এলাকায় এক ধরনের ‘আলাদা মুসলিম আবহ’ সৃষ্টি হয়।

 



 

Show all comments
  • তাওহীদ ২৯ আগস্ট, ২০২০, ৩:২৩ পিএম says : 0
    হিন্দুরা কখনোই মুসলমানদেরকে এবং মুসলমানদের ধর্মীয় কার্যক্রমকে সহ্য করতে পারে না
    Total Reply(0) Reply
  • মাজহারুল ইসলাম ২৯ আগস্ট, ২০২০, ৩:২৪ পিএম says : 0
    আদালতের কাছ থেকে এই ধরনের রায় প্রত্যাশা করা যায় না
    Total Reply(0) Reply
  • আলামিন ২৯ আগস্ট, ২০২০, ৩:২৪ পিএম says : 0
    আশাকরি মুসলমানরা এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করবে
    Total Reply(0) Reply
  • আব্দুল আলিম ২৯ আগস্ট, ২০২০, ৪:৪৪ পিএম says : 0
    এই রকম রায় আশা করিনি
    Total Reply(0) Reply
  • শরীফ আহম্মদ ২৯ আগস্ট, ২০২০, ৭:১৯ পিএম says : 0
    মুসলমানদের সুদিন আসবে
    Total Reply(0) Reply
  • Md Rejaul Karim ২৯ আগস্ট, ২০২০, ৭:৪৫ পিএম says : 0
    ইসলাম শান্তির ধর্ম এটি তার বাস্তবপ্রমান এরা মুসলমানের শক্রু ।।। এর পরিনাম ভয়াবহ।।।।
    Total Reply(0) Reply
  • মাসুদুর রহমান ২৯ আগস্ট, ২০২০, ৩:০৮ পিএম says : 0
    কাজটা খুব খারাপ হয়েছে
    Total Reply(0) Reply
  • কামাল উদ্দিন ২৯ আগস্ট, ২০২০, ৩:০৮ পিএম says : 0
    এর পরিণাম ওদেরকে ভোগ করতে হবে
    Total Reply(0) Reply
  • A Qahhar ২৯ আগস্ট, ২০২০, ৮:১৩ পিএম says : 0
    হিন্দুদের ধর্মীয় অনুষ্ঠান শব্দ ছাড়া হয় কি?
    Total Reply(0) Reply
  • Md Hafizur Rahman ৩১ আগস্ট, ২০২০, ২:৩১ পিএম says : 0
    মুসলমানের ধর্মের স্বাধীনতাকে হরন করা হচ্ছে।আদালত এরকম রায় দিতে পারেনা। হিন্দুর জায়গা আছে মুসলমানের ও জায়গা আছে। তাহলে মুসলমানের ধর্মীয় কাজে বাাধ কেন। হিন্দু যখন তার ধর্ম পালন করার অধিকার আছে তেমনি মুসলমানের ও আছে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আজান


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ