Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

চাঁদপুর মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের এ্যাম্বুল্যান্স চালকের মরদেহ উদ্ধার

চাঁদপুর থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩১ আগস্ট, ২০২০, ১১:১৫ এএম | আপডেট : ১১:২৮ এএম, ৩১ আগস্ট, ২০২০

চাঁদপুর মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের (মাতৃমঙ্গল হাসপাতাল) এ্যাম্বুলেন্স চালক মো. রফিকুল ইসলাম (৫৮) এর লাশ ডোবা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। রোববার রাত সাড়ে ৯টায় শাহরাস্তি পৌরসভার ২নং ওয়ার্ড এলাকার একটি ডোবা থেকে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।

চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক সড়কে উত্তর পাশে বাদিয়া এলাকার ডোবায় পানিতে ভাসমান থাকা ওই চালকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

রফিকুল ইসলাম পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের বাদিয়া এলাকার ডাকবাংলো বাড়ীর মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে। তার স্ত্রী, ১ কন্যা ও ৪ পুত্র সন্তান রয়েছে।

ওয়ার্ড কাউন্সিলর বাহার উদ্দিন বাহার বলেন, রফিকুল ইসলাম আজ সকাল থেকেই ওই ডোবায় থাকা কচুরিপানা পরিস্কার করছিল। দুপুর ১২টার দিকে একবার ডোবা থেকে উপরে উঠতে দেখেছেন লোকজন। পুনরায় আবারো তিনি ওই ডোবাতে কাজ করেন। কিন্তু সন্ধ্যায় বাড়িতে না ফেরার কারণে পরিবারের লোকজন খুঁজতে গিয়ে তার মরদেহ ডোবার পানিতে ভাসমান দেখেন। এরপর লোকজন শাহরাস্তি থানায় সংবাদ পাঠায়।

শাহরাস্তি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহ আলম বলেন, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করেছি। সুরতহাল করা হয়েছে। এই বিষয়ে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলার প্রস্তুতি চলছে।

রফিকুল ইসলাম মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র চাঁদপুর সদরের এ্যাম্বুলেন্স চালক ছিলেন বিষয়টি নিশ্চিত করেন চাঁদপুর পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উপপরিচালক ডাঃ ইলিয়াছ।
তিনি বলেন, রফিকুল ইসলাম শনিবার (২৯ আগস্ট) ছুটি নিয়ে বাড়িতে গিয়েছেন। মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে আমরা একজন স্টাফ পাঠিয়েছি ঘটনাস্থলে। ওই স্টাফ জানিয়েছে ডোবা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: এ্যাম্বুল্যান্স চালক
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ