Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ৪ কার্তিক ১৪২৭, ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

টাঙ্গাইলে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামী ও শ্বশুরের মৃত্যুদন্ড

টাঙ্গাইল জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩১ আগস্ট, ২০২০, ১:৫৫ পিএম

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামী ও শ্বশুরকে মৃত্যুদন্ড দিয়েছে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক বেগম খালেদা ইয়াসমিন। সোমবার দুপুরে তিনি এই রায় ঘোষণা করেন। দন্ডিতরা হলেন টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার অজুর্না গ্রামের স্বামী জহুরুল ইসলাম ও তার পিতা মজনু মিয়া। 

আসামীরা পলাতক রয়েছেন।
টাঙ্গাইল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পিপি নাসিমুল আকতার নাসিম জানান, দুই বছর আগে ভূঞাপুর উপজেলার কুঠিবয়ড়া এলাকার খন্দকার তছলিম উদ্দিনের মেয়ে তাসলিমকে বিয়ে করেন একই উপজেলার অর্জুনা গ্রামের মজনুর ছেলে জহিরুল ইসলাম। বিয়ের সময় ৫০ হাজার টাকা যৌতুকও দেয়া হয়। পরবর্তিতে সিএনজি কেনার জন্য ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা দাবি করে জহুরুল ও তার পরিবার। এ টাকা না পাওয়ায় ২০১৬ সালের ২৮ নভেম্বর তাসলিমার স্বামী তার মোবাইল থেকে তার শ্বাশুরী রাবেয়া বেগমকে জানায়, কাউকে কিছু না বলে তাসলিমা তিনদিন আগে বাড়ি থেকে চলে গেছে। পরে তাকে না পেয়ে রাবেয়া বেগম ভূঞাপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করে। পরে ২০১৬ সালের ২৯ নভেম্বর বিকেলে গোবিন্দাসী বাজারের পশ্চিম পাশে যমুনার তীরে অজ্ঞাতনামা একটি লাশের ছবি ও ভিডিও দেখে নিহতের পিতা মেয়ের লাশ শনাক্ত করেন। পরে নিহতে পিতা খন্দকার তছলিম উদ্দিন ২০১৬ সালের ১ ডিসেম্বর ভূঞাপুর থানায় দন্ডিত ব্যক্তিদের নামে মামলা দায়ের করেন।
আসামী পক্ষের মামলা পরিচালনা করেন এডভোকেট ফায়েদুজ্জামান নাজির।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: টাঙ্গাইল


আরও
আরও পড়ুন