Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ৪ কার্তিক ১৪২৭, ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

মুরাদনগরে মাদরাসা ছাত্রের লাশ উদ্ধার বিকালে নিখোঁজ, সকালে লাশ

দেবিদ্বার (কুমিল্লা) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩১ আগস্ট, ২০২০, ৩:৪৬ পিএম

কুমিল্লার মুরাদনগরে সাতার জানা মাদরাসা ছাত্র মাহমুদুল হাসানের (১৬) রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। শনিবার বিকাল আনুমানিক সাড়ে ৩টায় উপজেলার নবীপুর পশ্চিম ইউনিয়নের নিমাইকান্দি এলাকার গোমতী নদীতে এ ঘটনা ঘটে। নিহত মাহমুদুল হাসান চাদপুর জেলার কচুয়া উপজেলার রাগদৈল গ্রামের জসিম উদ্দিনের ছেলে। পুলিশ রবিবার সকালে গোমতী নদী থেকে তার লাশ উদ্ধার করেছে।
জানা যায়, মাহমুদুল হাসান উপজেলার নিমাইকান্দি গ্রামের মাদরাসাতুল মদিনা আল আরাবিয়ার কিতাব বিভাগের ছাত্র। শনিবার বিকাল আনুমানিক সাড়ে ৩টায় সে পার্শ্ববর্তী গোমতী নদীতে গোছল করতে যায়। পরে সে ফিরে না আসায় মাদরাসার লোকজন নদীর পাড়ে খুঁজতে গিয়ে তার জামা কাপড়, জুতা ও মোবাইল ফোন দেখতে পায়। বিভিন্ন স্থানে খোঁজা-খুজি করে তাকে না পেয়ে ওইদিন রাতেই মুরাদনগর থানায় একটি জিডি করেন মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা ওমর ফারুক। পরদিন রবিবার সকাল ৮টায় গোমতী নদীতে তার লাশ ভাসতে দেখে থানায় খবর দেয়। পুলিশ সূরতহালপূর্বক লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। লাশটি মাদরাসা ছাত্র মাহমুদুল হাসানের বলে সনাক্ত করা হয়। লাশ উদ্ধারের সময় তার পড়নে লুঙ্গি ছিল। যা দেখে প্রত্যক্ষদর্শীদের সন্দেহের জাল আরো ঘনিভূত হয়।
নিহতের পিতা জসিম উদ্দিন বলেন, তার ছেলের বয়স ১৬। মাত্র ২২ দিন আগে এই মাদরাসার কিতাব বিভাগে তাকে ভর্তি করাই। বন্দুরা বলেন, নিহত মাহমুদুল হাসান সাতার জানতেন। তবুও তার পানিতে ডুবে মৃত্যুর কারন এখনো অজানা।
মুরাদনগর থানার ওসি (তদন্ত) নাহিদ আহমেদ বলেন, উক্ত ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে। লাশ কুমেক হাসপাতাল মর্গে ময়না তদন্ত শেষে তার পরিবারের লোকজনের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট আসলেই তার মৃত্যু রহস্যের জট খুলতে পারে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: লাশ উদ্ধার


আরও
আরও পড়ুন