Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০ আশ্বিন ১৪২৭, ০৭ সফর ১৪৪২ হিজরী

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

প্রকাশের সময় : ৮ আগস্ট, ২০১৬, ১২:০০ এএম

জুলফিকার আলী

সকল কালো দূর কোরে
সাহিত্য আলো ছড়ান,
আলোর রবি দাদুর ছবি
দেখলে জুড়ায় পরাণ!

জোড়াসাঁকোর রবিঠাকুর
বিশ্বকবি সে যে,
তার নামে হাজার বছর
সুর উঠবে বেজে।

বাংলা সাহিত্য অমর নাম
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর,
সবার প্রিয় যুগে যুগে
ভাইয়া বাবা কাকুর।

বিশ্বজোড়া খ্যাতি তার
মানবতার গায় বাণী,
রবি মানে আলো রশনাই
বাংলা ভাষীরা মানি।

বিশ্ব কবি রবিঠাকুর
ইসলাম তরিক

বিশ্ব কবি বিশ্ব কবি
আঁকেন তিনি মনের ছবি।
হৃদয় পুড়ে
জগৎ জুড়ে
হলেন তিনি কবির কবি।।
সব লেখাতে সফল যিনি
স্বপ্ন ছোঁয়া নায়ক তিনি
মনের ঘরে
বসত করে
আমরা সবাই তাঁকে চিনি।।
মুক্ত মনে ভ্রান্ত নাশে
মহৎ কাজে ছিলেন পাশে।
দেশের কথা
দশের কথা
তাঁর কলমে উঠে আসে।।
হাজার কবির পঙ্ক্তি ভিড়ে
আছেন রবি উচ্চ শিরে।
মুক্ত মনে
দ্বীপ্ত পণে
থাকবে অমর হৃদয় নীড়ে।

বৃষ্টি এবং বর্ষা
লুৎফুর রহমান

ইষ্টিকুটুম বিষটি কুটুম
মিষ্টিকুটুম মেঘে
শাওনে যায় বেগে
বর্ষা দিলো নদীর মাঝে
মেঘ জননী রেগে।

জেগে
বৃষ্টি ছিলো লেগে
বর্ষা এলো ফর্সা করে
বৃষ্টি গেলো ভেগে।

ভাগুক
ভাগতে গিয়ে সুখের বাতাস
লাগুক
ঘুমিয়ে থাকা সব শিশু-
জাগুক।


বানভাসি
জুলফিকার আলী

বানের জলে যাচ্ছে ভেসে
জ্বলেনা তাদের চুলো,
খেয়ে না খেয়ে কাটায় দিন
বানভাসি মানুষগুলো।

ঘর-বাড়ি পানির তল
থাকার নেই জায়গা,
শিশুরা চরম বিপদে
ডুবে তারা যায় গা!

বানভাসিদের কষ্ট দেখে
কাঁদে আজ সকলে,
স্কুল-কলেজ, ক্ষেতের ফসল
জলের রয়েছে দখলে।

নিরাপদ খাবার-পানি’র অভাবে
বানভাসিরা ডরাই,
রক্ষা কর আল্লাহতা’আলা
কেমনে আজ তরাই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন