Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ০৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

অবশেষে ইকুয়েডর দূতাবাস ছাড়ছেন অ্যাসাঞ্জ

প্রকাশের সময় : ৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : গোপন তথ্য ফাঁস করে সাড়া-জাগানো ওয়েবসাইট উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ দীর্ঘদিন পর লন্ডনের ইকুয়েডর দূতাবাস ছাড়ছেন। জাতিসংঘের নির্দেশেই তিনি আজ শুক্রবার দূতাবাস ত্যাগ করছেন বলে উইকিলিকসের টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে এক বার্তায় এই কথা জানানো হয়। জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বর মাসে জাতিসংঘের কার্যকরী পরিষদের কাছে সুইডেন ও যুক্তরাজ্যের সরকারের বিরুদ্ধে বিনা বিচারে আটক করে রাখার অভিযোগ করেন। লন্ডনের ইকুয়েডরের দূতাবাসে গত তিন বছর ধরে রাজনৈতিক আশ্রয়ে আছেন তিনি। ২০১০ সালে অ্যাসাঞ্জের বিরুদ্ধে নারী নির্যাতন ও ধর্ষণের মামলা করে সুইডেন। এ নিয়ে তীব্র সমালোচনার মুখে পরে অবশ্য যৌন নির্যাতনের অভিযোগ দুটি প্রত্যাহার করে নেয় সুইডেনের প্রসিকিউটরা।
গ্রেফতার আতংকের ব্যাপারে মন্তব্য করতে গিয়ে অ্যাসাঞ্জ বলেছেন, জাতিসংঘের আইনে স্বীকৃত হলে তিনি গ্রেফতার বরণ করতে রাজি আছেন।
২০১০ সালে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের গোপনীয় কূটনৈতিক নথির বিশাল এক ভান্ডার উইকিলিকস ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ফাঁস করে। মার্কিন সরকার গুপ্তচরবৃত্তি সংক্রান্ত আইনে তার বিচার করবে এবং  মৃত্যুদ- দেবে এ রকম আশঙ্কায় তিনি লন্ডনের ইকুয়েডর দূতাবাসে আশ্রয় নিয়েছেন। ২০০৬ সালে উইকিলিকস প্রতিষ্ঠা করেন অস্ট্রেলীয় সাংবাদিক ও অধিকার আন্দোলনকর্মী জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ। ২০১০ সালে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনীর অসংখ্য গোপন দলিল ফাঁস করেন। যা সারাবিশ্বে আলোড়ন তুলে। বিবিসি, রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অবশেষে ইকুয়েডর দূতাবাস ছাড়ছেন অ্যাসাঞ্জ
আরও পড়ুন