Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৫ কার্তিক ১৪২৭, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

তুর্কি সিরিয়াল আরতুগ্রুল নিয়ে অনেক কথা হচ্ছে। আমার বন্ধুদের অনেকেই এটা দেখার জন্য আমাকে উৎসাহিত করছে। প্রশ্ন হলো, এ সিরিয়ালটি দেখা যাবে কি?

ফাইজুল ইসলাম
ইমেইল থেকে

প্রকাশের সময় : ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৯:৪৬ পিএম

উত্তর : ইলেক্ট্রনকি ডিভাইস বা গণমাধ্যমে কোনো মুভি, সিরিয়াল, ডকুমেন্টারি ইত্যাদি দেখার বিষয়ে উলামায়ে কেরামের মধ্যে নানা মত রয়েছে। আপনার বর্ণিত সিরিয়ালটি নিয়েও মিশ্র মতামত আছে। যারা এসব দেখা জায়েজ মনে করেন না, ইচ্ছা করলে আপনি তাদের মত অনুসরণ করতে পারেন। কেউ যদি কোনো যুক্তিতে এ ধরণের কিছু সিরিয়াল বা মুভি দেখা যায় বলে মত পোষন করেন, তাদের মতও ইচ্ছা করলে কেউ গ্রহণ গ্রহণ করতে পারে। এসব বিষয় ভালো মন্দ মিলিয়ে তৈরি হয়ে থাকে। বিষয়ের প্রামাণ্যতা, উপস্থাপন, নাজায়েজ অনুসঙ্গ ইত্যাদি বিশ্লেষণে জায়েজ না হওয়ার বিষয়টি প্রবল হতে পারে। অন্যদিকে বিপুল জনগোষ্ঠির মনে কোনো ইতিবাচক ভাবধারা তৈরি, জাগরণ সৃষ্টি, ইতিহাস চর্চা ও তথ্য প্রচারে এসবকে আধুনিক যুগের প্রয়োজনীয় শিক্ষা মাধ্যম বলেও গণ্য করা হয়। এক্ষেত্রে এসবের প্রতি নমনীয়তা অনুমোদনের মতামতটি জোরদার হয়ে থাকে। আপনি নিজের ইচ্ছায় যে কোনো একটি ধারা আলেমগণের বরাতে অনুসরণ করবেন। 

উত্তর দিয়েছেন : আল্লামা মুফতি উবায়দুর রহমান খান নদভী
সূত্র : জামেউল ফাতাওয়া, ইসলামী ফিক্হ ও ফাতওয়া বিশ্বকোষ।
প্রশ্ন পাঠাতে নিচের ইমেইল ব্যবহার করুন।
[email protected]

ইসলামিক প্রশ্নোত্তর বিভাগে প্রশ্ন পাঠানোর ঠিকানা
[email protected]



 

Show all comments
  • মোহাম্মদ আবুল হাশেম ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১১:৫০ পিএম says : 3
    ওসমানিয়া খেলাফত এর কিভাবে উত্থান ঘটেছিল সেই কাহিনির উপর ভিত্তি করে Resurrection Ertugrul serial তৈরী করা হয়েছে। সম্পূর্ণ সত্য নাও হতে পারে। তবে ইতিহাস জানতে দোষ কি!
    Total Reply(0) Reply
  • ওবায়দুল হক্ব ৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৬:৪৭ পিএম says : 1
    গাঁ বাঁচানো উত্তর দিলে হবে? সত্য কথা বলতে হবে! কোন ছেলের জন্য যেমন কোন মেয়েকে দেখা হারাম, তেমনি কোন মেয়ের জন্যও কোন ছেলেকে দেখা হারাম। সহজ ভাষায় এইসব সিরিয়াল দেখা জায়েজ নেই! এখন কারো যদি ইতিহাস জানার ইচ্ছা থাকে তবে তার উচিত ইতিহাসের বইগুলো অধ্যায়ন করা! কারন আপনার গুনাহের ভাগীদার কিন্তু কেউ হবে না! আপনাকেই আপনার গুনাহের বোঝা বহন করতে হবে! শুকরিয়া!
    Total Reply(0) Reply
  • mohammad sayem ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১:৫৫ পিএম says : 0
    শিথিলতা কাম্য নয়‌।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন

প্রশ্ন : পতিতাদের জানাযার ব্যাপারে একটি মাসআলা সোশ্যাল মিডিয়ায় আসার পরে আমার মনে প্রশ্ন জেগেছে যে, বর্তমানে পতিতালয়ে অনেক নারী আছে, যারা সেচ্চায় এ কর্মে যায়না (বরং কোন প্রতারকের মাধ্যমে বিক্রি হয়ে বা অন্য কোন উপায়) আবার তারা ওখান থেকে বের হয়ে আসতেও পারেনা, কারণ তাদেরকে কঠিন বেষ্টনীর মধ্যে কড়া পাহাড়ায় রাখা হয়। এক পর্যায় কোনো উপায়ন্ত না পেয়ে এসব নারীরা পতিতাবৃত্তিতে যুক্ত হয়ে সারা জীবন এ বন্দী শিবিরে তাদের যৌবন বিলিয়ে দিতে বাধ্য হয়। এসমস্ত বন্দী পতিতা নারীদের মৃত্যুর পর জানাযার নামায পড়ার বিধান কি?

উত্তর : অবস্থাভেদে মাসআলাও ভিন্ন হয়। বাস্তবেই যাদের এমন জীবন ঈমান ও তওবার ভিত্তিতে তাদের সাথে সামাজিক আচরণও ভিন্ন হতে পারে। কিছুদিন আগে পুলিশ ও

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ