Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১২ কার্তিক ১৪২৭, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

ভারত-চীন দ্বন্দ্বে ফের মধ্যস্থতার বার্তা ট্রাম্পের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৩:২৫ পিএম

গত চার মাস ধরে পূর্ব লাদাখে ভারত ও চীনের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। দুই দেশের মধ্যে সেনা-সহ বিভিন্ন পর্যায়ে একাধিক বার আলোচনার পরেও পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়নি। এমন পরিস্থিতিতে শনিবার দুই প্রতিবেশী দেশের বিরোধে ‘সাহায্য’ করতে তার আগ্রহের কথা আরও একবার জানালেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প

এর আগেও বিভিন্ন সময়ে চীনের সাথে সীমান্ত বিরোধ ও পাকিস্তানের সাথে কাশ্মীর ইস্যুতে মধ্যস্থতা করার প্রস্তাব দিয়েছেন ট্রাম্প। তিনি বলেন, ‘ভারত-চীন সীমান্তে খুব খারাপ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। এই পরিস্থিতিকে আরও ভয়াবহ হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করে তিনি জানান, দু’দেশ চাইলে আমেরিকা উত্তেজনা কমাতে সাহায্য করতে প্রস্তুত। ভারত ও চীনের সঙ্গে এ ব্যাপারে কথা চলছে বলেও জানান তিনি।

তবে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ ব্যাপারে সরকারি ভাবে কোনও প্রতিক্রিয়া জানায়নি। সূত্রে জানানো হয়েছে, এর আগেও একাধিক বার নয়াদিল্লি জানিয়েছে, এই ধরনের দ্বিপাক্ষিক বিরোধে তৃতীয় কোনও পক্ষের হস্তক্ষেপ ভারত চায় না। সেই অবস্থানের কোনও বদল হয়নি। এর আগে, শুক্রবার ভারতের সেনাপ্রধান এমএম নরবণে জানিয়েছেন, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় পরিস্থিতি ভয়াবহ। তিনি বলেন, ‘প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা এখন উত্তেজনাপূর্ণ হয়ে রয়েছে। সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে সেখানে প্রয়োজনীয় সেনা মোতায়েন করা হয়েছে।’

শুক্রবার রাতে এক সাংবাদিক সম্মেলনে ভারত ও চীনের বিরোধ নিয়ে ট্রাম্প বলেন, ‘আমরা এ দিকে নজর রাখছি। চীন ও ভারতের মধ্যে সীমান্তে সমস্যা খুবই খারাপ দিকে এগোচ্ছে।’ ট্রাম্প দাবি করেছেন, এই বিষয়ে চিন ও ভারত, দু’দেশের সঙ্গেই তাঁর কথা হয়েছে। তিনি বলেন, ‘আমরা এই বিষয়ে ভারত ও চীন দু’দেশকেই সাহায্যের বার্তা দিয়েছি। যদি কিছু করতে পারি, তা হলে আনন্দের সঙ্গে তা করব। এই বিষয়ে দু’দেশের সঙ্গেই কথা বলছি আমরা।’

এর আগে, গত জুনে লাদাখের গালওয়ানে ভারত ও চীনা সেনার মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের পরেও মধ্যস্থতার প্রস্তাব দিয়ে ট্রাম্প বলেছিলেন, ‘এই সমস্যা মেটাতে আমরা ভারত ও চীনের সঙ্গে কথা বলছি। প্রয়োজনে মধ্যস্থতা করতেও রাজি।’

সীমান্তে দু’দেশের মধ্যে এমন উত্তেজনার আবহেই চীনের আগ্রহে এবং রাশিয়ার মধ্যস্থতায় শনিবার মস্কোয় চীনা প্রতিরক্ষামন্ত্রী ওয়েই ফেংহের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহ। তবে সেই বেঠকের পরেও উত্তেজনা কমার কোন সম্ভাবনা দেখা যায়নি। তবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি সরকারী সূত্র ওয়াশিংটনে রয়টার্সকে বলেছে যে, আমেরিকার মূল্যায়ন হল চীন বা ভারত কেউই এই বিরোধকে যুদ্ধে জড়িয়ে পড়ার মতো পর্যায়ে নিয়ে যেতে আগ্রহী নয়। সূত্র: সিএনবিসি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ট্রাম্প

২৫ অক্টোবর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন