Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২১, ১৩ মাঘ ১৪২৭, ১৩ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

চাঁদপুর-ঢাকা নৌপথে লঞ্চে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়

চাঁদপুর থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:৪৮ পিএম

চাঁদপুর-ঢাকা নৌপথে লঞ্চে যাত্রীদের কাছ থেকে নির্দিষ্ট ভাড়ার চেয়ে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করার অভিযোগ উঠেছে। চাঁদপুর থেকে ঢাকা যেতে তৃতীয় শ্রেণীর টিকেট ১০০ টাকার পরিবর্তে ১১৫টাকা এবং দ্বিতীয় শ্রেণীর টিকেট ১১৫ টাকার পরিবর্তে ১৮০ টাকা করে আদায় করা হচ্ছে। এ নিয়ে প্রতিনিয়ত যাত্রীদের সাথে লঞ্চ স্টাফদের বাকবিতন্ডা হচ্ছে।

লঞ্চে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় নিয়ে যাত্রীদের মধ্যে চরম অসন্তোষ বিরাজ করছে। এ নিয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তরফ থেকে সমাধানের কোনো উদ্যোগ লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। ঈদুল আযহা থেকে শুরু করে এ পর্যন্ত অতিরিক্ত ভাড়া আদায় অব্যাহত রয়েছে।

চাঁদপুর-ঢাকা নৌপথে যাতায়াতকারী যাত্রীরা জানান, অতিরিক্ত ভাড়া আদায় নিয়ে স্টাফদের সাথে প্রতিনিয়তই তাদের ঝগড়া-বিবাদ লেগেই আছে। সরকারের নির্দেশনা কিংবা কোনো ঘোষণা ছাড়া অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছে।

যাত্রীদের এমন অভিযোগ থাকলেও ঘাট সুপারভাইজার বলছেন কোন বাড়তি ভাড়া আদায় করা হয় না। সরকারি তালিকা অনুযায়ী টিকেট কাটা হচ্ছে।

রুহুল আমিন, ইউসুফ আলী, আজগরসহ কয়েকজন লঞ্চ প্রতিনিধি জানান, বিআইডব্লিউটিএ অনুমোদিত তালিকা অনুযায়ী যাত্রীদের কাছ থেকে ভাড়া আদায় করা হচ্ছে। সরকারি তালিকায় তৃতীয় শ্রেণীর ভাড়া ১১৬ টাকা । সেখানে নেয়া হচ্ছে ১১৫ টাকা। আর দ্বিতীয় শ্রেণীর ১৮৬ টাকার পরিবর্তে নেয়া হচ্ছে ১৮০ টাকা। তারা জানান দেশে করোনা পরিস্থিতির কারণে যানবাহন ভাড়া বাড়ানো হয়েছে। সেই হিসেবে লঞ্চযাত্রী কম হওয়ার কারণে লঞ্চ মালিক কর্তৃপক্ষ ভাড়া বাড়ানোর জন্য আবেদন করেন । কিন্তু তারা সরকারি তালিকা অনুযায়ী যাত্রীদের কাছ থেকে ভাড়া আদায় করার নির্দেশ দেন। সেই অনুযায়ী ভাড়া আদায় করা হচ্ছে।

চাঁদপুর বিআইডব্লিউটিএর উপ-পরিচালক কায়সারুল ইসলাম জানান, করোনাকালীন সময়ে যাত্রী কম হওয়ায় লঞ্চ মালিক কর্তৃপক্ষ ভাড়া বাড়ানোর আবেদন করেছিল । কিন্তু ভাড়া বাড়ানোর নির্দেশনা না দিয়ে সরকারি তালিকা অনুযায়ী প্রতি কিলোমিটার হিসেবে ভাড়া আদায় করার নির্দেশ দেয়া হয়। যেহেতু আগে তালিকার চেয়ে কম ভাড়া আদায় করা হতো। সাধারণ যাত্রীরা মনে করছেন বর্তমানে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা হচ্ছে। আসলে তা নয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন