Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৫ কার্তিক ১৪২৭, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

রামগতিতে নির্মাণাধীন স্কুলের ছাদ ধসে আহত ৩

রামগতি (লক্ষ্মীপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৯:৩১ এএম | আপডেট : ১০:১৭ এএম, ৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০

লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের নির্মাণাধীন ভবনের ছাদ ধ্বসে পড়েছে। এ সময় কর্মরত তিন নির্মাণ শ্রমিক গুরুতর আহত হয়েছে। আহতদের নোয়াখালী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতরা হলেন, নির্মাণ শ্রমিক মান্নান (২৩), রাকিব হোসেন (২৫) সহ তিনজন। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার চর বাদাম ইউনিয়নের কারামতিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর নির্মাণ কাজ বন্ধ রয়েছে।

সূত্র জানায়, কারিগরী শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের বাস্তবায়নে জেলা শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের আওতায় ‘টিকেআইবি জেবি ৮৭’ নামীয় ঢাকার ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ২০১৮ সালের আগষ্টে লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের নির্মাণ কাজ শুরু করে।

প্রত্যক্ষদশীরা জানায়, মঙ্গলবার সকাল থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের নির্মাণাধীন একটি ভবনের ছাদ ঢালাইয়ের কাজ করে শ্রমিকরা। শুরু থেকেই নির্মাণ কাজে নিন্মমানের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহারের অভিযোগ ছিলো। বিষয়টি স্থানীয় প্রকৌশলীকে অবহিত করলেও তা কর্ণপাত না করায় বিকেলের দিকে হঠাৎ ছাদটি ধ্বসে পড়ে। এতে সেখানে কর্মরত তিন শ্রমিক গুরুতর আহত হয়। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা চেয়ারম্যান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, থানা পুলিশ ও শিক্ষা প্রকৌশলী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
এ ঘটনার পর ঠিকাদারি প্রতিষ্টানের দায়িত্বশীলরা
পালিয়ে যান।

স্থানীয়দের অভিযোগ, ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ভবন নির্মাণে নিন্মমানের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহার করা হচ্ছে। এছাড়া চাদ ঢালাইয়ে ব্যবহৃত সেন্টারিং কাজে ক্রটি ছিলো। ফলে ঢালাই চলাকালীন সময়ে চাঁদ ধ্বসে পড়ে। তারা জানান, শিক্ষা প্রকৌশলীর অধিদপ্তরের খামখেয়ালী এবং তদারকির অভাবে এ ধরণের দুর্ঘটনা ঘটেছে। প্রতিদিন সেখানে দেড় শতাধিক শ্রমিক কাজ করেন। বড় ধরণের দুর্ঘটনা থেকে বেচে গেছে সেখানে কর্মরত অনেক শ্রমিক।

রামগতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আবদুল মোমিন জানান, নির্মাণাধীন ভবনের ছাদ ধ্বসে দুই জন আহত হয়। তবে কেউ নিহত হয়নি। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। এ ঘটনার ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান এবং দায়িত্বরতদের গাফিলতি থাকলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আহত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ