Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৫ কার্তিক ১৪২৭, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রে ফের অগ্নিকাণ্ড : ময়মনসিংহ নগর অন্ধকারে

শামসুল আলম খান | প্রকাশের সময় : ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১০:৩৮ পিএম

পার হয়নি ৭২ ঘন্টা, ভয়াবহ বিপর্যয়ের মুখে ময়মনসিংহের বিদ্যুৎ উপকেন্দ্র। ময়মনসিংহের কেওয়াটখালী নামক স্থানে অবস্থিত পাওয়ার গ্রিড উপকেন্দ্রটিতে আবারো অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার (১০ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টা ২৪ মিনিটের দিকে আবারো অগ্নিকাণ্ডের সম্মুখীন হয় পাওয়ার স্টেশনটি। বিগত ৮ সেপ্টেম্বর দুপুর ১টায় প্রথমবারের মতো অগ্নিকাণ্ডের শিকার হয় বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রটি। বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে ময়মনসিংহ বিভাগের ৫টি জেলা। পরবর্তীতে বিদ্যুৎ সংযোগ পুনরায় স্থাপন করা সম্ভব হলেও ৭২ ঘন্টা অতিবাহিত হওয়ার পূর্বেই আবারো অগ্নিকাণ্ডের কবলে পড়ে বিকল হলো বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রটি। বর্তমানে অপরাপর জেলাসমূহ বিদ্যুৎ সংযোগ স্থাপন করা সম্ভব হলেও নগরীতে বিদ্যুৎ সংযোগ স্থাপন করা সম্ভব হয়নি।
ময়মনসিংহ মহানগরী দ্বিতীয়বারের মতো অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় পুরোপুরি অন্ধকারে নিমজ্জিত অবস্থায় আছে। বাড়ছে জনদুর্ভোগ ভোগান্তি। কূলকিনারা করতে পারছে না ব্যবসায়ীসহ সাধারন নাগরিকরা। বাসাবাড়িতেও আসতে চলেছে স্থবিরতা। এ বিষয়ে বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রটির প্রধান প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম জানান, পাওয়ার গ্রিড কোম্পানির লোকজন ঠিকমতো তাদের যন্ত্রপাতি আপগ্রেড অবস্থায় রাখেনি। যার কারণে বারবার অগ্নিকাণ্ডের মতো এমন গুরুতর বিপর্যয় দেখা দিচ্ছে। কবে নাগাদ বিদ্যুৎ সঞ্চালন ব্যবস্থা চালু করা সম্ভব হবে তাও বলতে পারছেন না তিনি। বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে ধার করা বিদ্যুতে অন্যান্য চারটি জেলায় বিদ্যুৎ সঞ্চালন চালু করা সম্ভব হয়েছে। কিন্তু ময়মনসিংহ নগরীর বিদ্যুৎ ব্যবস্থা চালু করা এখনো সম্ভব হয়নি। আশপাশের কয়েকটি উপজেলা বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন অবস্থায় অন্ধকারে নিমজ্জিত।
স্থানীয় সংশ্লিষ্ট সূত্র থেকে জানা গেছে, মঙ্গলবার দুপুর একটার দিকে হঠাৎ বিকট শব্দে পিজিসিবির ময়মনসিংহ নগরীর কেওয়াটখালী পাওয়ার গ্রিডে আগুন ধরে। আগুনে পাওয়ার গ্রিড এর সার্কিট ব্রেকার, ট্রান্সফর্মার, সিটি আইসোলেটর, কন্ট্রোল সার্কিট ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে পূর্বেই। নতুন করে সংঘটিত অগ্নিকাণ্ডে আবারো মেরামত কৃত অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানা গেছে।
প্রথমবার অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়েই ময়মনসিংহের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক জাহাঙ্গীর আলম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শাহজাহান মিয়া সহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর কর্মকর্তাগণ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। মঙ্গলবারের সংঘটিত অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় জেলা প্রশাসন ও পিজিসিবির পক্ষ হতে পৃথক দু'টি তদন্ত কমিটি গঠিত হয়েছে। এছাড়াও পিজিসিবির পিডিবি এবং আরইবির পক্ষ হতে পিজিসিবির নির্বাহী পরিচালক (অপারেশন এন্ড মেইনটেন্যান্স) মাসুম আলম বক্সীকে প্রধান করে গঠিত একটি কমিটি ইতিমধ্যে তদন্ত শুরু করেছে। তদন্ত রিপোর্ট পাওয়ার পূর্বেই আবার অগ্নিকাণ্ড সংঘটিত হলো। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বিদ্যুৎ ব্যবস্থা স্বাভাবিক হয়নি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অগ্নিকাণ্ড

২১ অক্টোবর, ২০২০
২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন