Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

স্বরূপকাঠি পৌর মেয়রের বিরুদ্ধে থানায় জিডি

জোড় করে স্ট্যাম্পে আঙ্গুলের ছাপ নেয়ার অভিযোগে

নেছারাবাদ(পিরোজপুর)উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১১ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৩:০২ পিএম

সম্পত্তির ভাগ বাটোয়ারা সংক্রান্ত ঘটনায় হালিমা খাতুন (৯২) নামের শয্যাশায়ী এক বৃদ্ধার কাছ থেকে জোড় করে স্ট্যাম্পে আঙ্গুলের ছাপ নেয়ার অভিযোগে স্বরূপকাঠি পৌরসভার মেয়র মো.গোলাম কবিরের বিরুদ্ধে থানায় সাধারণ ডায়েরী করা হয়েছে। নেছারাবাদ (স্বরূপকাঠি) থানায় ওই জিডি নং ৩৮৭। বৃহসপতিবার সকাল ১০ টায় হালিমা খাতুন এর ইচ্ছার বিরুদ্ধে বৃদ্ধাঙ্গুলের (টিপ) ছাপ নেয়ার পর তার পক্ষে বিকেলে নেছারাবাদ (স্বরূপকাঠি) থানায় ওই জিডি করা হয়। হালিমা খাতুন প্রায়াত উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার জাহিদ হোসেনের মা। হালিমা খাতুন জিডিতে অভিযোগ করেন তার ২ মেয়েকে সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত করতে পুত্রবধু জেবুন্নেছার যোগসাজশে মেয়র কবির জবরদস্তি করে তার কাছ থেকে টিপ সই নিয়েছেন। শুক্রবার বৃদ্ধা হালিমা খাতুনের কন্যা মারুফা বেগম ও মাকসুদা বেগম সাংবাদিকদের কাছে দেয়া এক লিখিত অভিযোগে জানান তাদের মায়ের সম্পত্তি থেকে দুই বোনকে বঞ্চিত করার জন্য মেয়র কবির তাদের পরিবারে অযাচিত হস্তক্ষেপ করছে। তারা বলেন, মেয়র কবির অসৎ উদ্দেশ্যে জোড় করে স্ট্যাম্পে আমার মায়ের টিপ সই নিয়েছেন। এ বিষয় মেয়র মো.গোলাম কবির বলেন, জোড় করে কোনো টিপ সই নেয়া হয়নি। তিনি বলেন,ওই ভদ্র মহিলার ভাগিনা সাবেক সংসদ সদস্য অধ্যক্ষ শাহ আলমের সাথে তিনি ওই পরিবারের পারিবারিক মিমাংশায় উপস্থিত ছিলেন মাত্র। তিনি বলেন হালিমা খাতুন তার পুত্রের সম্পত্তি থেকে তার প্রাপ্ত জমি ( মায়ের আগে ছেলের মৃত্যুতে প্রাপ্ত অংশ) এতিম নাতিদের সেচ্ছায় দান করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অভিযোগ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ