Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

ফেনীতে গ্যাস লাইনে লিকেজ

সর্বত্রে আতঙ্ক

ফেনী জেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ফেনীর মহিপালে গ্যাস লাইনে লিকেজ পাওয়া যায়। গত শুক্রবার মহিপাল শাহিন হোটেলের পাশে ড্রেনের ভিতর ময়লা পানি বুদ বুদ করে উপরের দিকে গ্যাস উঠছে। সেখানে স্থানীয়রা দিয়াশলায়ের কাঠি মারতে আগুন জ্বলে উঠে। মহূর্তে পুরো এলাকার মানুষ আতঙ্কিত হয়ে পড়ে। স্থানীয়রা জানান, এ বিষয়ে বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানিকে বার বার অবহিত করলেও কোন সুরাহা হয়নি। গ্যাস লাইনে লিকেজ অনেক আগে থেকে ছিল।
শাহিন হোটেলের ম্যানেজার আবদুল আলীম জানান, মহসড়কের ওই অংশে অনেক আগে থেকে এভাবে বুদ বুদ করে গ্যাস বের হতে দেখা যায়। গত কয়েকদিনে এটি আরো বেড়ে যায়। বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানিকে এবিষয়ে জানানোর পর গত কিছুদিন আগে তারা কয়েক বস্তা বালু ফেলে চলে যায়। এদিকে, গতকাল দুপুরে ফেনী জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুজ্জামান মহিপালে গ্যাস লাইনের লিকেজ স্থান পরিদর্শনে আসেন দ্রুত সমাধানের নির্দেশ দেন। দুপুর থেকে গ্যাস লাইন লিকেজের স্থানে সংস্কার কাজ শুরু করেছে বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন লিমিটেড কর্তৃপক্ষ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাখরাবাদ ফেনী এরিয়া কার্যালয়ের ব্যবস্থাপক মো. সাহাব উদ্দিন, সহকারী প্রকৌশলী কামরুল হাসান ও নুরুল করিম, লক্ষ্মীপুর এরিয়া অফিসের সহকারি প্রকৌশলী বোরহান উদ্দিন, সড়ক জনপদ বিভাগের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মাকসুদুর রহমান প্রমুখ।
এর আগে সকাল ১০টার দিকে বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার শংকর মজুমদার, মহাব্যবস্থাপক (ইঞ্জিনিয়ার সার্ভিস) আবুল বাশার, নোয়াখালী আঞ্চলিক কার্যালয়ের উপ-মহাব্যবস্থাপক (বিক্রয়) মো. সোলেমান, সাগির আহমেদসহ ফেনী এরিয়া অফিসের কর্মকর্তাবৃন্দ ওই স্থান পরিদর্শন করেন। বাখরাবাদের উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধি দল পরিদর্শন শেষে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশ প্রদান করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গ্যাস-লাইন-লিকেজ

১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ