Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

চাকরির নামে আ.লীগ নেত্রীর প্রতারণা

নেছারাবাদ (পিরোজপুর) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

নেছারাবাদে জাহিদুল ইসলাম নামে এক বেকার যুবককে প্রাইমারি স্কুলে শিক্ষক পদে চাকরি দেয়ার কথা বলে পাঁচ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের নেত্রী ও সোহাগদল রজ্জব আলী বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা সাহারা বেগম। টাকা দিয়ে প্রায় তিন বছরেও চাকরি না পেয়ে টাকার জন্য দিনের পর দিন ধর্ণা দিচ্ছেন জাহিদুল। অনুনয় বিনয় করেও পাওনা টাকা না পেয়ে উল্টো ওই যুবক সাহারার কাছ থেকে হুমকি ধামকির শিকার হচ্ছেন। অবশেষে বাধ্য হয়ে ওই যুবক নেছারাবাদ থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। সাহারা বেগম বছরাকাঠি গ্রামের ফিরোজ হাওলাদারের স্ত্রী।
বরিশাল জেলার কাউনিয়া থানার সাপানিয়া গ্রামের জাহিদুল ইসলাম অভিযোগে জানান, তিনি ২০১৮ সালে কৌরিখাড়া গ্রামে মামাতো বোনের বাসায় বেড়াতে আসেন। সেখানে সাহারার সাথে তার পরিচয় হয়। সাহারার সাথে পরিচয় সূত্রে জাহিদুল তার কাছে বেকারত্বের কথা খুলে বলে। এসময় সাহারা জাহিদকে চাকরি দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে তার কাছ থেকে পাঁচ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়। টাকা দেয়ার তিন বছর পরেও চাকরি না পেয়ে টাকার জন্য অনুনয় বিনয় করতে থাকেন। প্রথম দিকে মিষ্টি কথা বলে জাহিদকে বিদায় দিলেও পরে উগ্র আচরণ করতে শুরু করেন সাহারা। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে অভিযোগ অস্বীকার করে সহকারী শিক্ষক সাহারা বলেন, একটা কাজের ব্যাপারে জাহিদ তাকে পাঁচ লাখ টাকা দিয়েছিল। কিন্তু সে কাজটি হয়নি বিধায় তাকে সাড়ে তিন লাখ টাকা ফেরৎ দেয়া হয়েছে। এখন মাত্র দেড় লাখ টাকা পাওনা রয়েছে। সে টাকা দিতে একটু দেরি হওয়ায় জাহিদ তার সম্পর্কে নানা বাজে কথা বলে বেড়াচ্ছে।
ভুক্তভোগী জাহিদ জানান, চাকরির আশায় বিভিন্ন জনের কাছ থেকে ধার করে সাহারাকে পাঁচ লাখ টাকা দিয়েছিলেন। সাহারাকে টাকা দিয়ে প্রতারিত হয়ে এখন দেনার বোঝা মাথায় নিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন তিনি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আ.লীগ-নেত্রীর-প্রতারণা
আরও পড়ুন