Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

সরকারি খরচে আনতে লিগ্যাল নোটিশ

প্রবাসীদের লাশ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

প্রবাসী শ্রমিকদের লাশ সরকারি খরচে দেশে আনার ব্যবস্থা চালু রাখতে লিগ্যাল নোটিশ দেয়া হয়েছে। গতকাল রোববার সুপ্রিম কোর্ট বারের অ্যাডভোকেট মো.মনিরুজ্জামান লিংকন এ নোটিশ দেন। বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ও পররাষ্ট্র বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিবকে রেজিস্ট্রি ডাকযোগে এ নোটিশের ‘প্রাপক’ করা হয়েছে। নোটিশে উল্লেখ করা হয়,তৃতীয় বিশ্বের উদীয়মান অর্থনীতির দেশ হিসেবে আমরা এখন বিশ্বের বুকে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছি। যেশক্তির ওপর ভর করে আমরা দাঁড়াচ্ছি সেটা হচ্ছে বৈদেশিক মুদ্রা। বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের বড় মাধ্যম হচ্ছে বিভিন্ন দেশে কর্মরত শ্রমিক। দেশের মানুষ যারা বিদেশের মাটিতে শ্রম দিচ্ছেন। মাথার ঘাম পায়ে ঝরানো পয়সা তারা দেশে পাঠাচ্ছে। তাদের পাঠানো বৈদেশিক মুদ্রায় জাতীয় অর্থনীতির চাকা সচল। জাতীয় অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে গিয়ে এই শ্রমিকদের অনেকেই বিদেশের মাটিতে প্রাণ হারান। সাধারণত বিদেশে কর্মরত অবস্থায় কোনো শ্রমিক ইন্তেকাল করলে নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষ ওই শ্রমিকের লাশ সংশ্লিষ্ট দেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করে থাকে। কিন্তু কিছু কিছু ক্ষেত্রে বিশেষ করে ফ্রি ভিসা বা অন্যান্য কিছু ক্ষেত্রে শ্রমিকের মৃত্যু হলে তিনি যে দেশের নাগরিক সেই দেশকেই তার লাশ দেশে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা নিয়ে থাকে।

বাংলাদেশও এর ব্যতিক্রম নয়। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস বিনা খরচে দেশে লাশ আনতো। কিন্তু সম্প্রতি বিমান কর্তৃপক্ষ নিজ খরচায় আর লাশ বহন করবে না বলে সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দিয়েছে। এটি অত্যন্ত অমানবিক এবং দু:খজনক। এটি হতে পারে না। রাষ্ট্রীয় খরচে উচিৎ তাদের লাশ ফেরত আনা। নোটিশ প্রাপ্তির সাত দিনের মধ্যে প্রবাসী শ্রমিকদের লাশ সরকারি খরচে দেশে আনার সিদ্ধান্ত না নিলে এ বিষয়ে আইনি পদক্ষেপ নেয়া হবে-মর্মে হুঁশিয়ারি দেয়া হয় লিগ্যাল নোটিশে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রবাসী-লাশ
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ