Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১১ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

পরিবর্তন হচ্ছে পানি উন্নয়ন বোর্ডের নাম

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডকে বিলুপ্ত করে নতুন করে বাংলাদেশ পানিসম্পদ অধিদফতর নামে গঠন করতে যাচ্ছে সরকার। এজন্য বাংলাদেশ পানিসম্পদ অধিদফতর আইন-২০২০’ নামে প্রণয়ন করা হচ্ছে নতুন আইন। ইতোমধ্যেই এ আইনের মূল খসড়া প্রক্রিয়ার কাজ শুরু হয়েছে। এ প্রক্রিয়া শেষ হলে তা মন্ত্রিসভার অনুমোদনের জন্য প্রস্তাব আকারে পাঠানো হবে। মন্ত্রিসভার অনুমোদনের পর আইন মন্ত্রণালয়ের ভেটিং শেষে জাতীয় সংসদে পাসের জন্য পাঠানো হবে আইনটি। পানিসম্পদ মন্ত্রণালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

এ বিষয়ে পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব কবির বিন আনোয়ার ইনকিলাবকে বলেন, আইনটি প্রায় চূড়ান্ত করা হয়েছে। আরও কিছু কাজ বাকি আছে। এর কাজ শেষ হলেই তা মন্ত্রিসভার অনুমোদনের জন্য পাঠানো হবে। মন্ত্রিসভার অনুমোদনের পর আইন মন্ত্রণালয়ের ভেটিং শেষে জাতীয় সংসদে পাসের জন্য পাঠানো হবে আইনটি। জাতীয় সংসদে আইনটি পাসের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড বিলুপ্ত হয়ে বাংলাদেশ পানিসম্পদ অধিদফতরে নামে হবে।

দেশের পানিসম্পদের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা ও টেকসই উন্নয়ন সাধন পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান ভিশন থাকলেও নতুন আইনে গঠিত অধিদপ্তরের মূল ভিশন হচ্ছে পানিসম্পদের টেকসই উন্নয়ন এবং দক্ষ ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করা। একইসঙ্গে বন্যা, খরা, জলাবদ্ধতা, আন্তর্জাতিক নদীর প্রবাহ, লবণাক্ততা, জলবায়ু পরিবর্তনজনিত বিরূপ প্রভাব মোকাবেলা ও প্রাকৃতিক পরিবেশের যথাযথ ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে কৃষি, মৎস্য, বন ইত্যাদি ক্ষেত্রে টেকসই উন্নয়ন সাধন করাও হবে অধিদপ্তরের কাজ।
জানা গেছে, ১৯৫৪ এবং ১৯৫৫ সালের ভয়াবহ বন্যার পর বন্যার ক্ষয়ক্ষতি কমিয়ে খাদ্য উৎপাদন বাড়ানের লক্ষ্যে জাতিসংঘের অধীনে গঠিত ক্রুগ মিশন এর সুপারিশক্রমে এ অঞ্চলের পানিসম্পদ ব্যবস্থাপনা ও উন্নয়নের জন্য ১৯৫৯ সালে পূর্ব পাকিস্তান পানি ও বিদ্যুৎ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (ইপিওয়াপদা) গঠন করা হয়। বর্তমান বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড (বাপাউবো) ইপিওয়াপদা’র পানি উইং হিসেবে বন্যা নিয়ন্ত্রণ, নিষ্কাশন ও সেচ প্রকল্প বাস্তবায়ন করে কৃষি ও মৎস্য সম্পদের উৎপাদন বাড়ানোর লক্ষ্যে দেশের পানিসম্পদ ব্যবস্থাপনায় প্রধান সংস্থা হিসেবে কার্যক্রম শুরু করে।

১৯৭২ সালে প্রেসিডেন্টর আদেশ নং: ৫৯ মোতাবেক ইপিওয়াপদা’র পানি অংশ একই ম্যান্ডেন্ট নিয়ে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড (বাপাউবো) হিসেবে সম্পূর্ণ স্বায়ত্তশাসিত সংস্থা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে। পরবর্তীতে সংস্কার ও পুনর্গঠনের ধারাবাহিকতায় জাতীয় পানি নীতি ১৯৯৯ এর সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে বাপাউবো আইন, ২০০০ প্রণয়ন করা হয়। বাংলাদেশ পানি আইন-২০১৩ এর অধীন জাতীয় পানি নীতি ও জাতীয় পানিসম্পদ পরিকল্পনা এবং ডেল্টা প্লান-২১০০ এর আলোকে এবং উপ-আঞ্চলিক ও স্থানীয় পানি ব্যবস্থাপনা পরিকল্পনা সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ হওয়া সাপেক্ষে ভবিষ্যৎ প্রকল্পের বাস্তবায়ন ও ব্যবস্থাপনা নির্ধারিত হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পানি-উন্নয়ন-বোর্ড
আরও পড়ুন