Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১৩ কার্তিক ১৪২৭, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ভারতে যাচ্ছে দেড় হাজার টন ইলিশ রফতানির অনুমতি পেয়েছে ৯ প্রতিষ্ঠান

রাজধানীর বাজারে দাম বেড়ে গেছে

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

বাংলাদেশের রুপালি ইলিশ নিচ্ছে ভারত। পদ্মার ইলিশের প্রতি ভারতীয়দের লোভ অতি পুরনো। বাংলাদেশ ২০১২ সালে আনুষ্ঠানিকভাবে ভারতে ইলিশ রফতানি বন্ধ করার পর থেকেই নানা ফন্দি-ফিকির করে তারা ইলিশ নিয়ে যাচ্ছে। আসন্ন দুর্গাপূজা উপলক্ষ্যে এবার এক হাজার ৪৫০ টন ইলিশ ভারতে রফতানি হচ্ছে বলে জানা গেছে। ইতোমধ্যে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে সমপরিমাণ ইলিশ রফতানির জন্য ৯টি দেশি প্রতিষ্ঠানকে অনুমতি দেয়া হয়েছে। গত বছরও শারদীয় শুভেচ্ছা হিসেবে ভারতে ৫শ’ টন ইলিশ রফতানির অনুমতি দেয়া হয়েছিল। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

ভারতে ইলিশ যাচ্ছে দুদিন আগেই কলকাতার পত্রিকায় খবর বের হয়েছে। জানা গেছে, বাংলাদেশের প্রতিকেজি ইলিশ ৮০০ টাকা দরে ভারতে রফতানি হবে বলে সিদ্ধান্ত চ‚ড়ান্ত করেছে সরকার। এই দরে রফতানি করা প্রতিটি ইলিশের সাইজ হবে ১০০০ (এক কেজি) থেকে ১২০০ গ্রাম (এক কেজি ২০০ গ্রাম) ওজনের। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, এ বছর ভারতে ইলিশ রফতানির জন্য ২০০টি প্রতিষ্ঠান থেকে আবেদন জমা পড়ে। যাচাই-বাছাই করে ৯টি প্রতিষ্ঠানকে ভারতে ইলিশ রফতানির জন্য চ‚ড়ান্ত করা হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠান অধিক পরিমাণে ইলিশ স্থলপথে, বিশেষ করে বেনাপোল স্থলবন্দর ব্যবহার করে রফতানি করবে বলে জানা গেছে। তবে রফতানিকারক প্রতিষ্ঠান অন্য যেকোনও স্থলবন্দরও ব্যবহার করতে পারবেন।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের একজন যুগ্ম সচিব নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, ভারতে ইলিশ রফতানির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তবে কী পরিমাণ ইলিশ রফতানির অনুমতি দেয়া হয়েছে তা আমি বলতে পারবো না। কারণ, বিষয়টি অন্য দফতর দেখভাল করে।
উল্লেখ, ২০১২ সালের ১ আগস্ট ইলিশসহ সব ধরনের মাছ রফতানি নিষিদ্ধ করে সরকার। পরে ওই বছরের ২৩ সেপ্টেম্বর ইলিশ ছাড়া অন্য সব মাছ রফতানির পুনরায় অনুমতি দেয়া হয়। ইলিশ রফতানি বন্ধ থাকলেও তা পাচার হওয়ার অভিযোগ দীর্ঘদিনের। পাচার বন্ধের কৌশল হিসেবে ইলিশ রফতানির ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা শিথিল করার বিষয়টি সরকার বিবেচনা করছে।
বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের একটি দায়িত্বশীল সূত্র জানিয়েছে, ইলিশ রফতানি করতে হলে সরকারের অনুমতি নিতে হয়। অনুমতি সাপেক্ষে বাংলাদেশ থেকে ইলিশ রফতানির সুযোগ দিচ্ছে সরকার। এর অংশ হিসেবেই এবারের দুর্গাপূজায় শুভেচ্ছা হিসেবে সরকার ভারতে ১৪৫০ টন ইলিশ রফতানির অনুমতি দিয়েছে বলে জানা গেছে।
এদিকে ইলিশের ভরা মৌসুমে বাংলাদেশের বিভিন্ন নদী অববাহিকায় খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এ বছরও জেলেদের জালে ঝাঁকে ঝাঁকে রুপালি ইলিশ ধরা পড়ছে। ইলিশ অধ্যুষিত জেলা ভোলা, পিরোজপুর, বরগুনা, চাঁদপুর. বরিশাল ও পটুয়াখালীর জেলেরা এখন ইলিশ ধরার কাজে ব্যস্ত সময় পার করছেন। সে কারণে রাজধানীর বাজারে ইলিশের সরবরাহ ভাল। কিন্তু ক্রেতাদের শঙ্কা ভারতে ইলিশ রফতানির খবর প্রচার হলেই বাজারে ইলিশের দাম বেড়ে যাবে। বাস্তবতাও তাই। গতকাল রাজধানীর কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখা গেছে ইলিশের দাম বেড়ে গেছে। যা মধ্যবৃত্তের নাগালের বাইরে বটে।



 

Show all comments
  • মোং বাবুল হোসেন ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৮:১০ এএম says : 0
    ইলিশ ধরা বন্দো কবে থেকে যানাবেন
    Total Reply(0) Reply
  • Jack Ali ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:১২ পিএম says : 0
    We people cannot buy ইলিশ because it is very expensive but our government don't care about us and thus they are exporting our favourite fish... Allah is watching every step of the Government-- They cannot flee from severe torment which Allah has prepared for them..
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইলিশ

২৪ অক্টোবর, ২০২০
১৮ অক্টোবর, ২০২০
১৮ অক্টোবর, ২০২০
১৮ অক্টোবর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন