Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ০১ নভেম্বর ২০২০, ১৬ কার্তিক ১৪২৭, ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

নিরাপত্তা চেয়ে ৯ শিক্ষকের থানায় জিডি

সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কা

রাবি সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ও প্রো-ভিসির বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুুরি কমিশনে (ইউজিসি) দুর্নীতির অভিযোগ দেয়ার প্রেক্ষিতে সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কায় নিরাপত্তা চেয়ে থানায় জিডি করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের আতঙ্কিত নয় শিক্ষক। গত রোববার নগরীর মতিহার থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন অভিযোগকারী আতঙ্কিত শিক্ষকরা।
আগামী ১৭ ও ১৯ সেপ্টেম্বর এই দুর্নীতির অভিযোগের শুনানি ইউজিসিতে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। অভিযোগকারী শিক্ষকরা হলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূতত্্ব¡ ও খনিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক সুলতান-উল-ইসলাম, ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের সৈয়দ মুহাম্মদ আলী রেজা, সংগীত বিভাগের অসিত রায়, মনোবিজ্ঞান বিভাগের মজিবুল হক আজাদ, প্রাণরসায়ন ও অণুপ্রাণ বিভাগের জাহাঙ্গীর আলম, রসায়ন বিভাগের তারিকুল হাসান, ভ‚গোল ও পরিবেশবিদ্যা বিভাগের মো. মিজানুর রহমান, নাট্যকলা বিভাগের এস এম ফারুক হোসাইন এবং রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক এস এম এক্রাম উল্যাহ।
জানা যায়, ওই শিক্ষকরা চলতি বছর ৪ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়সহ কয়েকটি সরকারি দফতরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ও প্রো-ভিসিসহ বর্তমান প্রশাসনের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দুর্নীতির নানা অভিযোগ জমা দিয়েছিলেন। শিক্ষকদের দাবি, শুনানিকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে ও শিক্ষকদের ক্ষতিগ্রস্ত করতে অপচেষ্টা করা হচ্ছে।
জিডিতে উল্লেখ করা হয়েছে, গত ১০ সেপ্টেম্বর দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষক ডিনস কমপ্লেক্সের শিক্ষক লাউঞ্জে আলোচনা করছিলেন। এ সময় তাদের কাছে খবর আসে আবদুল্লাহ আল মামুন নামে একজন বহিরাগত ও রাবি স্কুলের সহকারী শিক্ষক হিসেবে সদ্য যোগ দেয়া সাদ্দাম হোসেনের নেতৃত্বে কিছুসংখ্যক বহিরাগত ডিনস কমপ্লেক্সের বাইরে থাকা শিক্ষকদের গাড়িগুলোর গোপনে ভিডিও ধারণ করছে। পরে শিক্ষকরা সেখানে উপস্থিত হলে তারা শিক্ষকদের ছবিও ভিডিও ধারণ করে।
শিক্ষকরা জিডিতে অভিযোগ করেন, ছবি ও ভিডিও ধারণের কারণ জানতে চেয়ে শিক্ষকরা এগিয়ে এলে তারা সেখান থেকে চলে যায়। তবে যাওয়ার সময় তারা শিক্ষকদের লক্ষ্য করে অশ্রাব্য ভাষা ও আক্রমণাত্মক অঙ্গভঙ্গি প্রদর্শন করেন। ওই বহিরাগতদের দ্বারা যে কোনো সময় হামলা ও তাদের গাড়ির ক্ষতি সাধন হতে পারে আশঙ্কা করে ডায়েরিতে শিক্ষকরা নিজেদের নিরাপত্তা নিশ্চিতের দাবি জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সন্ত্রাসী


আরও
আরও পড়ুন