Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

অবিশ্বাস্য ব্যাটিং ধসে ডুবল অস্ট্রেলিয়া

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

মিচেল স্টার্ক, জস হ্যাজেলউডদের পেস আর অ্যাডাম জাম্পার স্পিনে ইংল্যান্ডকে মাঝারি প‚ঁজিতে আটকে রেখেছিল অস্ট্রেলিয়া। রান তাড়ায় অ্যারন ফিঞ্চ, মারনাস লাবুশানের ব্যাটে অনায়াসে জেতার রাস্তাতাতেও ছিল তারা। কিন্তু আচমকা ব্যাটিং ধসে হুড়মুড় করে ভেঙ্গে পড়ে অসিদের ইনিংস। মুঠোয় থাকা ম্যাচ বিস্ময়করভাবে হেরে বসে তারা।
ক্রিস ওকস, জোফরা আর্চার আর স্যাম কারানের পেসের ঝাঁজে অস্ট্রেলিয়াকে ধসিয়ে দুর্দান্ত এক জয় পেয়েছে ইংল্যান্ড। গতপরশু রাতে ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ডে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ফিঞ্চের দলকে ২৪ রানে হারিয়ে তিন ম্যাচ সিরিজে সমতায় ফিরেছে এউইন মরগ্যানরা। ইংল্যান্ডের ২৩২ রান টপকাতে গিয়ে ৮ বল আগে ২০৭ রানে শেষ হয়ে যায় সফরকারীদের ইনিংস।
২৩২ রান তাড়ায় নেমে ডেভিড ওয়ার্নারকে চতুর্থ ওভারেই হারায় অস্ট্রেলিয়া। তিনে নামা মার্কাস স্টয়নিসও ফেরেন ৯ রান করেই। ৩৭ রানে ২ উইকেট হারালেও তৃতীয় উইকেটে দারুণ জুটি পান মারনাস লাবুশানে আর অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। দু’জনের শতরানের জুটিতে ম্যাচ অনায়াসে জেতার পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। কিন্তু আচমকা ঝড়ে জেতার সেই মঞ্চের ক্ষণিকের মধ্যেই লাপাত্তা। ১৪৪ থেকে ১৬৬ রানের মধ্যেই নেই ৬ উইকেট। কিপার ব্যাটসম্যান অ্যালেক্স ক্যারি, প্যাট কামিন্সকে নিয়ে বিপর্যয় সামাল দিতে চেয়েছিলেন। শেষ উইকেটে হ্যাজেলউডকে নিয়ে প্রায় অসম্ভব হয়ে পড়া সমীকরণ আর মেলানো হয়নি ক্যারির।
এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে গিয়ে শুরুতেই ধাক্কা খায় ইংল্যান্ড। সব মিলিয়ে দেড়শো রানের ভেতর ৮ উইকেট হারিয়ে ফেলে স্বাগতিকরা। এরপরও তাদের দুশো পেরুনোর কৃতিত্ব টম ক্যারান আর আদিল রশিদের। নবম উইকেট জুটিতে মহাগুরুত্বপ‚র্ণ ৭৬ রান আনেন তারা। ৩৯ বলে ৩৭ করেন কারান। রশিদ অপরাজিত থাকেন ২৬ বলে ৩৫ রানে। এই রান যে কতটা গুরুত্বপ‚র্ণ, বোঝা গেছে ম্যাচের বাকি অংশে।
সংক্ষিপ্ত স্কোর
ইল্যান্ড : ৫০ ওভারে ২৩১/৯ (রয় ২১, বেয়ারস্টো ০, রুট ৩৯, মর্গ্যান ৪২, বাটলার ৩, বিলিংস ৮, ওকস ২৬, স্যাম কারান ১, টম কারান ৩৭, রশিদ ৩৫*, আর্চার ৬*; স্টার্ক ২/৩৮, হেজেলউড ১/২৭, কামিন্স ১/৫৬, মার্শ ১/৪৯, জাম্পা ৩/৩৬)।
অস্ট্রেলিয়া : ৪৮.৩ ওভারে ২০৭ (ওয়ার্নার ৬, ফিঞ্চ ৭৩, স্টয়নিস ৯, লাবুশেন ৪৮, মার্শ ১, কেয়ারি ৩৬, ম্যাক্সওয়েল ১, কামিন্স ১১, জ্যাম্পা ২, হেজেলউড ৮*; ওকস ৩/৩২, আর্চার ৩/৩৪, টম কারান ০/২৮, রশিদ ১/৬৮, স্যাম কারান ৩/৩৫)।
ফল : ইংল্যান্ড ২৪ রানে জয়ী।
ম্যান অব দ্য ম্যাচ : জফ্রা আর্চার (ইংল্যান্ড)।
সিরিজ : ৩ ম্যাচ সিরিজে ১-১ সমতা।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অস্ট্রেলিয়া


আরও
আরও পড়ুন