Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

চাঁদাবাজি বন্ধের দাবি ট্রাক শ্রমিকদের

জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

সড়ক-মহাসড়কে পুলিশি হয়রানি, সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজি বন্ধ করাসহ নয় দফা দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে ঢাকা জেলার ট্রাক-ট্যাংকলরি-কাভার্ড ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়ন। গতকাল সোমবার দুপুরে রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধনে এ দাবি জানানো হয়। মানববন্ধনে সংগঠনের সভাপতি জয়নাল আবদীন ও সাধারণ সম্পাদক আ. জব্বারসহ শ্রমিক ইউনিয়নের অন্যান্য নেতাকর্মী ও শ্রমিকরা উপস্থিত ছিলেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ট্রাক শ্রমিকরা জীবনের ঝুঁঁকি নিয়ে দেশের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে পণ্য পরিবহন করে থাকেন। মহামারি করোনাভাইরাস যখন বিশ্বের জনজীবনকে আঘাত করেছে তখনও এ শ্রমিকরা নিজেদের জীবনবাজি রেখে পণ্য পরিবহন করছেন। এর ফলে দেশের শিল্প ও কৃষি আবারও ঘুরে দাঁড়ানোর পথ খুঁজে পেয়েছে। কিন্তু যখন এ শ্রমিকদের ওপর নির্যাতন চলে তখন সেটা অমানবিক। গত ২৬ আগস্ট বিআইডবিøটিএ গাবতলী বেড়িবাধ এলাকায় বিনা নোটিশে পণ্য পরিবহনের ১৭টি গাড়ি ভাঙচুর করেছে ও চারটি গাড়ির মালামালসহ নিলামে বিক্রি করে দেয়। এছাড়া পণ্য পরিবহনের টার্মিনালের সমস্যা, মাত্রাতিরিক্ত টোল আদায়, সন্ত্রাসীদের আক্রমণ, বিশ্রামাগারের অভাব, দুর্নীতি পরায়ন পুলিশ ও বিআরটিএ’র কর্মকর্তাদের নির্যাতন প্রতি মুহূর্ত আমাদের অস্থির করে তুলছে।

এসব সমস্যা সমাধানে শ্রমিক ইউনিয়ন নয় দফা দাবি জানায়। তাদের দাবি গুলো হলো: গত ২৬ আগস্ট গাবতলীর বেড়িবাঁধ এলাকার ঘটনায় বিআইডব্লিটিএকে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। ওই ঘটনার সঙ্গে জড়িত বিআইডব্লিটিএ যুগ্ম-পরিচালক (বন্দর) এ কে এম আরিফ উদ্দিনকে অপসারণ ও শাস্তি দিতে হবে। সারাদেশে মহাসড়কের পাশে এবং জেলার আধুনিক ট্রাক টার্মিনাল ও বিশ্রামাগার নির্মাণ করতে হবে। সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮ তে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি ও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন থেকে দেয়া সংশোধনী অবিলম্বে বাস্তবায়ন করতে হবে। এছাড়া বিআরটিএর কাছে জমাকৃত ড্রাইভিং লাইসেন্স অবিলম্বে সরবরাহ করতে হবে এবং না দেয়া পর্যন্ত চালকদের চলমান লাইসেন্স দিয়ে গাড়ি চালানোর সুযোগ দিতে হবে। যানবাহনের বর্ধিত আয়কর প্রত্যাহার করতে হবে। সড়ক-মহাসড়কের পুলিশি হয়রানির, মাস্তানি, সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজি বন্ধ করতে হবে। বিআইডব্লিউটিএ-এর ফেরিঘাট ও টার্মিনাল নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় পরিচালনা করতে হবে এবং টঙ্গী ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান টার্মিনাল স্থায়ী করার দাবিও জানানো হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ট্রাক-শ্রমিক
আরও পড়ুন