Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১২ কার্তিক ১৪২৭, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

সাহেদের অস্ত্র মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:০৩ এএম

রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মো. সাহেদের বিরুদ্ধে দায়ের করা অস্ত্র মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়েছে। গতকাল ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশের আদালতে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাদবীর ইয়াছির আহসান চৌধুরী এবং মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের ইন্সপেক্টর মো. শায়রুল ইসলাম সাক্ষ্য দেন। এর পর আসামিপক্ষের আইনজীবীরা তাদের জেরা করেন। ওই দুজনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আজ ও আগামীকাল আসামির আত্মপক্ষ শুনানির দিন ধার্য করেন। এ নিয়ে মামলাটিতে ১৪ জন সাক্ষীর মধ্যে ১১ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হলো। গত ২৭ আগস্ট ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক এ মামলার চার্জ গঠনের আদেশ দেন। ৩০ জুলাই আদালতে চার্জশিট জমা দেন ডিবি পুলিশের পরিদর্শক মো. শায়রুল। ১৩ আগস্ট ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মামলাটি বিচারের জন্য মহানগর দায়রা জজ আদালতে বদলির আদেশ দেন। অভিযোগপত্র দাখিলের দিন সংবাদ সম্মেলনে ডিবির অতিরিক্ত কমিশনার আব্দুল বাতেন বলেন, সাহেদ যখন আমাদের কাছে রিমান্ডে ছিলেন, তখন তার ব্যবহার করা গাড়িটি জব্দ করি এবং গাড়ি থেকে অবৈধ অস্ত্র জব্দ করি। তদন্তে অভিযোগপত্র ও মামলার নথিপত্রে সব উপস্থাপন করেছি। এ ধরনের মামলায় সাজা নিশ্চিত করতে যে ধরনের তথ্য-প্রমাণাদি দরকার হয়, সবকিছুর সত্যতা নিশ্চিত করেছি। এখন আদালত বিচার করে এর রায় দেবেন।

উল্লেখ্য, গত ৬ জুলাই রাজধানীর উত্তরায় রিজেন্ট হাসপাতালে অভিযান চালায় র‌্যাব। অভিযানের শেষে গত ৭ জুলাই হাসপাতালের উত্তরা ও মিরপুরের শাখা দুটি সিলগালা করে সাহেদসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা করে র‌্যাব। ১৫ জুলাই ভোরে অবৈধ অস্ত্রসহ সাহেদকে সাতক্ষীরা সীমান্ত এলাকা থেকে আটক করা হয়েছে।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন